• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

৬৯তম দিন: আজকের যোগাভ্যাস

লকডাউন ওঠার প্রথম পর্যায়েও জিম, যোগব্যায়ামের প্রশিক্ষণে যাওয়ার ছাড় মেলেনি। এই অবস্থায় বাড়িতে বসে শরীরচর্চা করা ছাড়া উপায়ও নেই। তাই আমরা প্রতি দিন হদিশ দিচ্ছি একটি করে ব্যায়ামের। আজ ৬৯তম দিন।

yoga
চেয়ার যোগ— নেক স্ট্রেচ বা গ্রীবা প্রসারণ। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

চেয়ার যোগ— নেক স্ট্রেচ বা গ্রীবা প্রসারণ

ঘাড় সোজা রেখে বা নাগাড়ে একই ভঙ্গিতে কাজ করার জন্য ঘাড়ের পেশীতে ঠিক ভাবে রক্ত চলাচল না হলে ব্যথা হতে পারে। ঘাড়ের সমস্যা হলে মাথা, কাঁধ ও পিঠের ব্যথায় ভুগতে হয়। এই সব সমস্যা দূর করতে পারে নিয়মিত নেক স্ট্রেচ। চেয়ারে বসে ঘাড় সামনে-পিছনে হেলিয়ে এই আসন করা হয়। বরিষ্ঠ নাগরিক এবং ছাত্রছাত্রী-সহ যাঁরা নাগাড়ে চেয়ারে বসে কাজ করেন, তাঁরা মাঝে মাঝে গ্রীবা প্রসারিত আসন করলে ঘাড়ের ব্যথায় কষ্ট পেতে হয় না।

কী ভাবে করব  

• শিরদাঁড়া টানটান করে চেয়ারে পা ঝুলিয়ে বসুন। মা মাটিতে রাখতে হবে। মাথা ও  ঘাড় সোজা থাকবে। দুই হাত রাখুন কোলের উপর। এটি আসন শুরুর প্রাথমিক অবস্থান।  

• এ বার ধীরে ধীরে শ্বাস নিতে নিতে মাথা উঁচু করে সিলিংয়ের দিকে তাকান। পিছন দিকে যতটা সম্ভব ঘাড় হেলাতে পারবেন, ততটুকুই হেলাবেন।

আরও পড়ুন: ৬৮তম দিন: আজকের যোগাভ্যাস

• এ বার শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে মাথা সামনের দিকে ঝুঁকিয়ে চিবুক বুকে ঠেকান। এক রাউন্ড সম্পূর্ণ হল। এই ভাবে ৭ রাউন্ড অভ্যাস করতে হবে।

• বেশি স্ট্রেন না করে ধীরে ধীরে আসনটি করবেন। চোখ খোলা রেখে আসনটি অভ্যাস করবেন। কয়েক দিন অভ্যাস করার পর চূড়ান্ত অবস্থান কয়েক সেকেন্ড ধরে রাখতে পারলে ভাল হয়।

• বয়স্করা যখন এই আসন অভ্যাস করবেন, তখন খুব ধীরে অভ্যাস করতে হবে। মাথা উঁচুতে তোলার পর স্বাভাবিক অবস্থানে এসে তার পর নীচু করবেন। আবার স্বাভাবিক অবস্থায় এসে পরবর্তী রাউন্ড অভ্যাস করতে হবে।

সতর্কতা

উচ্চ রক্তচাপ, সারভাইকাল স্পন্ডিলোসিস, ঘাড়ে ভয়ানক ব্যথা যন্ত্রণা থাকলে বা মাথা ঘোরার সমস্যা থাকলে এই নেক স্ট্রেচ আসনটি করা চলবে না। 

আরও পড়ুন: ৬৭তম দিন: আজকের যোগাভ্যাস

কেন করব           

হাত, পা-সহ শরীরের সমস্ত অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের নার্ভ বা স্নায়ু আমাদের ঘাড় থেকে প্রবাহিত হয়। নানা কাজকর্মে নাগাড়ে আমাদের ঘাড় সোজা করে বা এক দিকে কাত করে কাজ করলে ঘাড় ও কাঁধের পেশীতে চাপ পড়ে ও ক্লান্ত হয়ে যায়। নিয়মিত নেক স্ট্রেচ আসন করলে ঘাড় ও কাঁধের পেশিতে রক্ত চলাচল বাড়ে ও পেশীর ওয়ার অ্যান্ড টিয়ার অনেক কম হয়। ফলে ঘাড় ও কাঁধের পেশীর স্টিফনেস কমে যায়।  স্পন্ডিলাইটিস, স্লিপ ডিস্ক ও ক্ষয়জনিত ব্যথা-বেদনার ঝুঁকি থাকে না বললেই চলে। যখন তখন মাথা ব্যথার কষ্টও থাকে না। দিনের যে কোনও সময় কাজের ফাঁকে সময় বার করে চেয়ারে বসেই আসনটি অভ্যাস করে নিতে ভুলবেন না।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন