অনেকেই হয়ত ভাববেন লিফ্‌টের আয়না আসলে হেয়ারস্টাইলটা একটু ঠিকঠাক করে নেওয়ার জন্য বা মিটিংয়ে যোগ দেওয়ার আগে নিজেকে একটু পরিপাটি করে নেওয়ার জন্য। যদি এটাই ভেবে থাকেন আপনি, তা হলে খুব ভুল ভাবছেন। সাজগোজের চেয়েও আয়না রাখার পিছনে আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ কারণ রয়েছে। খুব ভেবে-চিন্তে লিফ্‌টে আয়না চালু হয়েছিল। লিফ্‌টে আয়নার গুরুত্ব কী জেনে নিন।

 

সুরক্ষা: লিফ্‌টে আয়না রাখার পিছনে মূল কারণ সুরক্ষা। আপনার পাশের বা পিছনের ব্যক্তি কী করছেন মুখ ঘুরিয়ে তা দেখা আপনার পক্ষে সম্ভব নয়। কিন্তু আয়না থাকলে খুব সহজেই তা জানতে পারবেন। প্রথম দিকে লিফ্‌ট থাকত অভিজাতদের বাড়ি এবং বিলাসবহুল হোটেলেই। সেখানে তাদের প্রাণ সংশয় থাকত। সেই ভয় কাটাতে আয়না লাগানো হয়।

আয়না থাকলে হুইলচেয়ার ব্যবহারকারীদেরও খুব সাহায্য হয়। লিফ্‌টের ভিতরে এগিয়ে আসতে বা পিছিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন হলে, আয়না দেখে খুব সহজেই তাঁরা পিছনে কতটা জায়গা আছে তা বুঝতে পারেন।

আরও পড়ুন: খাই খাই ভাব কী করে কমাবেন

ক্লসট্রোফোবিয়া: ছোট এবং বদ্ধ স্থানে ভয়, অনেকেরই এই ফোবিয়া আছে। যার জন্য তাঁরা লিফ্‌টে উঠতে ভয় পান। এই ভয় কাটাতে কাজ করে আয়না। আয়না লাগানো থাকলে লিফ্‌টে অনেকটাই জায়গা আছে মনে হয়। ভিতরে আটকা পড়ার ভয়টাও অনেকটা কমে আসে।

একঘেয়েমি: যাঁদের অফিস বহুতলের অনেকটা উপরে, অনেকটা সময় তাঁদের লিফ্‌টে কাটাতে হয়। সেই সময়টা যদিও এমন বেশি কিছু নয়। তা সত্ত্বেও ওই সময়টুকুই তাঁদের কাছে লিফ্‌টে থাকাটা বিরক্তির হয়ে দাঁড়ায়। কারণ ভিতরে চুপ করে দাঁড়িয়ে থাকা ছাড়া আর করার কিছুই থাকে না। আর এই একঘেয়েমি কাটাতে আয়নার তুলনা হয় না। নিজেকে দেখতে দেখতেই কখন যে গন্তব্য ফ্লোরে পৌঁছে যাবেন টের পাবেন না।