২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
পুজোর প্রতি আমাদের প্রত্যেকেরই এক অদম্য ভালবাসা রয়েছে। কিছু না কিছু গল্প রয়েছে।
cooking

ভোজনরসিকদের প্রেম জমে ফরচুন পেট পুজোর সঙ্গে

সেই ভালবাসা, সেই গল্পকে স্বীকৃতি দিতেই ফরচুন ফুডস পঞ্চমবার তাদের ফিল্ম রিলিজ করল। যেখানে উঠে এসেছে পুজোর সময়ে তৈরি হওয়া এক প্রেমের গল্প।

ফরচুন ফুডস এই নতুন নিবেদন

ফরচুন ফুডস এই নতুন নিবেদন

বিজ্ঞাপন প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১২ অক্টোবর ২০২১ ০৯:৪৫
Share: Save:

বাঙালির সব থেকে বড় উৎসব - দুর্গোৎসব। সেই প্রথম দিন থেকেই বাংলা ও বাঙালির সাংস্কৃতিক ভিত্তি হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে পুজো। শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে এই ঐতিহ্যই চলে আসছে। এবং তরুণ প্রজন্মের হাত ধরে বিকশিত হচ্ছে এই উৎসব।

আমরা প্রত্যেকেই এখনও অতিমারির মধ্যে দিন কাটাচ্ছি। অন্যান্য বছরের মতো এই বছরেও অনেকগুলি বিধি নিষেধ রয়েছে পুজোয়। কিন্তু পুজোর প্রতি বাঙালির যে আবেগ, তাকে কিন্তু দমিয়ে রাখা বেশ কঠিন। বলা যায়, পুজোর প্রতি আমাদের প্রত্যেকেরই এক অদম্য ভালবাসা রয়েছে। কিছু না কিছু গল্প রয়েছে।

সেই ভালবাসা, সেই গল্পকে স্বীকৃতি দিতেই ফরচুন ফুডস পঞ্চমবার তাদের ফিল্ম রিলিজ করল। যেখানে উঠে এসেছে পুজোর সময়ে তৈরি হওয়া এক প্রেমের গল্প।

গল্পটি শুরু হচ্ছে ফিল্মের নায়ককে দিয়ে, যিনি ভোজনরসিকও বটে! যিনি তাঁর পৈত্রিক বাড়িতে দিয়ে পুজোর আনন্দে মেতে ওঠেন। পুজোর খাবারের গন্ধে নিজেকে ভাসিয়ে দেন। কিন্তু এ সবের মধ্যেও খাওয়ারের তত্ত্বাবধানকারী এক মহিলার প্রেমে পড়েন তিনি। তারপর... এই মিষ্টি প্রেমের গল্পই উঠে এসেছে ফরচুনের ফিল্মে। ফিল্মটি দেখুন -

বাঙালির সব থেকে বড় উৎসব - দুর্গোৎসব। সেই প্রথম দিন থেকেই বাংলা ও বাঙালির সাংস্কৃতিক ভিত্তি হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে পুজো। শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে এই ঐতিহ্যই চলে আসছে। এবং তরুণ প্রজন্মের হাত ধরে বিকশিত হচ্ছে এই উৎসব।

আমরা প্রত্যেকেই এখনও অতিমারির মধ্যে দিন কাটাচ্ছি। অন্যান্য বছরের মতো এই বছরেও অনেকগুলি বিধি নিষেধ রয়েছে পুজোয়। কিন্তু পুজোর প্রতি বাঙালির যে আবেগ, তাকে কিন্তু দমিয়ে রাখা বেশ কঠিন। বলা যায়, পুজোর প্রতি আমাদের প্রত্যেকেরই এক অদম্য ভালবাসা রয়েছে। কিছু না কিছু গল্প রয়েছে।

সেই ভালবাসা, সেই গল্পকে স্বীকৃতি দিতেই ফরচুন ফুডস পঞ্চমবার তাদের ফিল্ম রিলিজ করল। যেখানে উঠে এসেছে পুজোর সময়ে তৈরি হওয়া এক প্রেমের গল্প।

গল্পটি শুরু হচ্ছে ফিল্মের নায়ককে দিয়ে, যিনি ভোজনরসিকও বটে! যিনি পুজোর সময়ে তাঁর বন্ধুর পৈত্রিক বাড়িতে দিয়ে পুজোর আনন্দে মেতে ওঠেন। পুজোর খাবারের গন্ধে নিজেকে ভাসিয়ে দেন। কিন্তু এ সবের মধ্যেও খাওয়ারের তত্ত্বাবধানকারী এক মহিলার প্রেমে পড়েন তিনি। তারপর... এই মিষ্টি প্রেমের গল্পই উঠে এসেছে ফরচুনের ফিল্মে। ফিল্মটি দেখুন -

ফরচুনের পুজোর শুভেচ্ছা

বিগত ৫ বছর ধরে ফরচুন পেট পুজো ফিল্মের মাধ্যমে আমাদের পুজোর শুভেচ্ছা জানাচ্ছে। এবং প্রত্যেক বছরই এক অসাধারণ অভিজ্ঞতার সাক্ষী রাখছে আমাদের। এই বছরও ফরচুনের এই প্রেমের গল্প নস্টালজিয়ায় মাখা আমাদের পুরনো স্মৃতিগুলোকে আরও চাঙ্গা করবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:

Share this article

CLOSE