• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কখন বুঝবেন আলু এ বার ফেলে দিতে হবে?

potatoes
ছবি: সংগৃহীত।

আমিষ বা নিরামিষ, বেশির ভাগ রান্নাতেই মূল সবজি হিসেবে ব্যবহৃত হয় আলু। দেশের প্রায় সব প্রদেশেই প্রতি দিনের রান্নায় প্রয়োজন হয় আলু। অধিকাংশ বাড়িতেই তাই এক সঙ্গে অনেক আলু কিনে রেখে দেওয়াই দস্তুর। কারণ, আলু তাড়াতাড়ি নষ্টও হয় না। ঠিক কত দিন আলু রেখে খাওয়া যায়? কী ভাবে বুঝবেন আলু পচে গিয়েছে কিনা?

যদি আলু কুঁকড়ে যায়

সাধারণত আমরা এক সঙ্গে বেশি করে আলু কিনি এবং তা অনেক দিন ধরে খাই। তবে বেশি দিন রেখে দিলে আলু শরীরের পক্ষে বিষাক্ত হয়ে উঠতে পারে। অনেক দিন রান্না না করে ফেলে রাখলে আলু কুঁকড়ে গিয়ে নরম হয়ে যায়। এই আলু খাওয়া উচিত না।

আরও পড়ুন: ব্রেড নয়, রোগা হতে ভরসা রাখুন হাতে গড়া রুটিতে

 

আলুর গাছ বেরিয়ে গেলে

অনেকেই মনে করেন গাছ বেরিয়ে গেলে ক্ষতি কী? আলুর গাছে সোলেইন ও ক্যাকোনিনের মাত্রা বেশি থাকে। যা দু’ধরনের গ্লাইকালয়েডস পয়জন। এই গ্লাইকালয়েডস আমাদের স্নায়ুতন্ত্রের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে। যদি আলু রাসায়নিক পদ্ধতিতে চাষ না করা হয় তা হলে বেশি তাড়াতাড়ি গাছ গজায়। যদি দেখেন গাছ গজালেও আলু শক্ত রয়েছে তা হলে গাছ কেটে ফেলে দিয়ে বাকি আলু খাওয়া যেতেই পারে। কিন্তু যদি গাছ গজানোর সঙ্গে সঙ্গে আলুও নরম হয়ে যায় তা হলে পুরো আলু ফেলে দেওয়াই ভাল।

 

আরও পড়ুন: স্যুপ, স্যালাড নয়, ডিনারে খান ডাল-ভাত, বলছেন রুজুতা

আলু যখন সবুজ রং ধরে

অনেক দিন আলু রেখে দিলে আলোর সঙ্গে বিক্রিয়ায় আলুর মধ্যে গ্লাইকালয়েডসের মাত্রা বেড়ে যায়। এতে আলু সবুজ রং ধারণ করে। এই অবস্থায় আলু পুরোটা খারাপ হয় না। সবুজ রং ধরা অংশ ফেলে বাকিটা খাওয়া যায়।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন