Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

এই কারণগুলোর জন্য রাতে তরমুজ না খাওয়াই ভাল

নিজস্ব প্রতিবেদন
১১ এপ্রিল ২০১৭ ১৪:৩৮

গরম মানেই লাল, মিষ্টি তরমুজের সময়। এই সময় তরমুজ খেতে যেমন ভাল লাগে, তেমনই হার্ট, কিডনি সুস্থ রাখতে, শরীর ঠান্ডা রেখে হিট স্ট্রোকেরও ঝুঁকি কমায় তরমুজ। তবে তরমুজ বেশি খেলে বা ভুল সময় খেলে কিন্তু হিতে বিপরীত ফলও হতে পারে। শরীর ঠান্ডা রাখে বলে অনেকেই রাতে তরমুজ খেয়ে অসুস্থও হয়ে পড়েন। জেনে নিন কেন রাতে তরমুজ খাওয়া উচিত নয়।

১। তরমুজ সহজে হজম হয় না, বা হজমে সাহায্য করে না। তাই রাতে তরমুজ খেলে ইরিটেবল বাওয়েল সিন্ড্রোম হতে পারে বা পর দিন সকালে পেট খারাপ হয়ে যেতে পারে। রাতে যে হেতু আমাদের পরিপাকক্রিয়া ধীর গতিতে হয়, তাই মিষ্টি ও অ্যাসিডিক খাবার রাতে না খাওয়াই ভাল।

২। তরমুজের মধ্যে প্রচুর পরিমাণ ন্যাচারাল সুগার থাকে। ফলে রাতে তরমুজ খেলে ওজন বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

Advertisement

আরও পড়ুন: খাওয়ার পরেই এই ৪ কাজ ভুলেও করবেন না

৩। তরমুজের মধ্যে প্রচুর পরিমাণ জল থাকার কারণে রাতে বার বার প্রস্রাব পেতে পারে। ফলে ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে পর দিন ক্লান্ত লাগতে পারে।

৪। আয়ুর্বেদেও রাতে কোনও ফল বা তরমুজ খেতে বার‌ণ করা হয়েছে। রাতে ফল খেলে ডায়েরিয়া, এমনকী কোনও কোনও ক্ষেত্রে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা হতে পারে।

চিকিত্সকরা জানাচ্ছেন, সকাল বা বিকেলের দিকেই তরমুজ খাওয়ার আদর্শ সময়। সেই সঙ্গেই অতিরিক্ত তরমুজ খাওয়ার আগে কিছু ক্ষণ জলে ভিজিয়ে রাখুন। এর ফলে তরমুজ থেকে শরীর খারাপ হওয়ার ঝুঁকি কমে। জল থেকে তুলে তরমুজ টাটকা খাওয়াই ভাল। অনেকেই তরমুজ কেটে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা ঠান্ডা খেতে চান। গরমে খেতে ভাল লাগলেও ফ্রিজে রাখা তরমুজ থেকে অ্যাসিডিটি হতে পারে।

আরও পড়ুন

Advertisement