• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সংবিধান ফেরালেন মোদী, দাবি কংগ্রেসের

Narendra Modi
—ফাইল চিত্র।

Advertisement

প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে অনলাইনে সংবিধানের কপি পাঠিয়েছিল কংগ্রেস। রাহুল গাঁধীর দল আজ টুইট করে জানাল, সেই কপি ফেরত এসেছে। এর পরেই কংগ্রেসের খোঁচা, মোদীজি সংবিধান নিয়ে আগ্রহী নন। বিজেপির পাল্টা, কংগ্রেস ঠিক ঠিকানায় পাঠিয়ে ছিল তো?

কয়েক দিন আগেই দেশবাসীর কাছে কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাঁধী সংবিধান রক্ষার আহ্বান জানিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করে বলেছিলেন, ‘‘ধর্মের ভিত্তিতে দেশ ভাগের গভীর চক্রান্ত হচ্ছে।’’ প্রজাতন্ত্র দিবসে কংগ্রেস সনিয়া, রাহুল, প্রিয়ঙ্কা গাঁধী বঢরা, মনমোহন সিংহদের সংবিধানের প্রস্তাবনা পাঠের ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেছে। এর সঙ্গেই প্রধানমন্ত্রীকে পাঠানো হয়েছিল সংবিধানের একটি কপিও। তা নিয়ে আজ কংগ্রেসের টুইট, ‘‘আমরা চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু মোদীজি সংবিধানে বিন্দুমাত্র আগ্রহী নন। এখন কী আর করার?’’ নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ জুটি সংবিধান মানছেন না, লাগাতার এই অভিযোগ করছেন কংগ্রেস নেতারা। সনিয়া, রাহুলদের অভিযোগ, বিভাজনের রাজনীতি করছে দেশের প্রধান শাসক দল। তাই অন্য বিরোধী দলগুলির সঙ্গে গত কাল সংবিধানের প্রস্তাবনা পাঠ করা হয়েছে গোটা দেশে।

কংগ্রেসের অভিযোগকে তেমন আমল দিচ্ছে না বিজেপি। তারা অবশ্য বলছে, ‘‘কংগ্রেস আসলে প্রধানমন্ত্রীকে সংবিধান পাঠিয়ে সস্তা রাজনীতি করতে চেয়েছে।’’ কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেন, ‘‘যাঁরা কথায় কথায় সংবিধানের দোহাই দিচ্ছেন, তাঁরা সংবিধানটি ভাল করে পড়ুন। দেখবেন রাজেন্দ্র প্রসাদ, জওহরলাল নেহরু, সর্দার পটেলদের স্বাক্ষর করা সংবিধানে রাম-হনুমান, কৃষ্ণ-অর্জুনের প্রচ্ছদ আছে। আকবরের আছে, কিন্তু বাবর-ঔরঙ্গজেবের নেই।’’ তাঁর তির্যক মন্তব্য, ‘‘আজকের দিনে সংবিধান তৈরি হলে তো শাহিন বাগ বলত, হিন্দুরাষ্ট্র তৈরির চেষ্টা হচ্ছে!’’

আরও পড়ুনরোগীর ছেলে বন্ধক! বদলে দিল ডাক্তারকে

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন