ভারতের সমরাস্ত্রের ভাণ্ডারে আরও একটি শক্তিশালী একটি অস্ত্র যোগ হতে চলেছে। শুক্রবার ভারত ‘কে-৪’ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করতে চলেছে। এই পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্রটি জলের তলায় একটি সাবমেরিন থেকে ছোড়া হবে। এর রেঞ্জ প্রায় সাড়ে তিন হাজার কিলোমিটার।

দেশীয় প্রযুক্তিতে ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ডিআরডিও) এই কে-৪ পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করেছে। শুক্রবার ক্ষেপণাস্ত্রটি অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনম উপকূলে আরিহন্ত সাবমেরিন থেকে নিক্ষেপ করা হবে। ভূবনেশ্বরে এক সরকারি সূত্রে এ খবর জানা গিয়েছে।

কে-৪ ছাড়াও ভারতের হাতে আরও একটি ক্ষেপণাস্ত্র আছে যেটি জলের তলা থেকে ছোড়া যায়। সেটি হল ৭০০ কিলোমিটার রেঞ্জের বিও-৫।

আরও পড়ুন: পুণের ক্যাফেতে মহিলাদের শৌচালয়ে ক্যামেরা, ছবি ভাইরাল হল সোশ্যাল মিডিয়ায়

শুক্রবার ক্ষেপণাস্ত্রটি পূর্ণ ক্ষমতার সঙ্গে ছোড়া হবে নাকি স্বল্প দূরত্বে নিক্ষেপ করা হবে তা ডিআরডিও পরিষ্কার করে জানায়নি। তবে ভারতের তরফে দূর পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সতর্কবার্তা ইতিমধ্যেই জারি করে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন: দম্পতির ব্যক্তিগত মুহূর্তের শব্দ রেকর্ড যুবকের, ঘটনা ধরা পড়ল হোটেলের সিসি ক্যামেরায়

গত মাসেই এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করার কথা থাকলেও পরে তা পিছিয়ে দেওয়া হয়। সরকারের তরফে জানানো হয়েছে জলের তলা থেকে ক্ষেপণাস্ত্রটি ছোড়ার পরীক্ষা সফল হলে তবেই এটি দেশের অস্ত্রভাণ্ডারে যোগ করা হবে। ডিআরডিও আগামী কয়েক সপ্তাহে অগ্নি-৩ ও ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্রও পরীক্ষার পরিকল্পনা করেছে।