জিতলে ২২ লক্ষ চাকরি: রাহুল
দরিদ্র পরিবার-পিছু বছরে ৭২ হাজার টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি আগেই দিয়েছেন রাহুল। আজ ফের বললেন সে কথা।
rahul

রাহুল গাঁধী। ছবি: পিটিআই।

ফের ‘ন্যায়’ অস্ত্রে শান রাহুল গাঁধীর। রাজস্থানের দুঙ্গারপুরে দলীয় প্রার্থীর হয়ে প্রচারে নরেন্দ্র মোদী সরকারের ‘বঞ্চনা’-র বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল আজ ফের বললেন— ‘অব ন্যায় হোগা।’ কথা দিলেন, কংগ্রেস ক্ষমতায় এলে প্রথম বছরেই ২২ লক্ষের সরকারি চাকরি হবে। আর পঞ্চায়েত স্তরে ১০ লক্ষ।

দরিদ্র পরিবার-পিছু বছরে ৭২ হাজার টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি আগেই দিয়েছেন রাহুল। আজ ফের বললেন সে কথা। কিন্তু এত টাকা আসবে কোথা থেকে? জনজাতি অধ্যুষিত সভায় রাহুল বললেন, ‘‘অনিল অম্বানীর মতো চোরেদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে কয়েক লক্ষ কোটি টাকা ঢুকিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। আমি এ বার সেখান থেকে টাকা এনেই আপনাদের দেব।’’ তাঁর দাবি, বিজেপি জমানাতেই সমাজের পিছিয়ে পড়া, খেটে খাওয়া এবং ছোট-মাঝারি ব্যবসায়ীদের ১ লক্ষ কোটি টাকা হাতিয়ে ফেরার হয়েছেন অন্তত ১৫ জন ব্যবসায়ী।

মঞ্চের সামনে থাকা জনজাতির ভিড় লক্ষ্য করেই তিনি প্রশ্ন ছুড়ে দেন, ‘‘ঋণখেলাপিদের বিরুদ্ধে কিছুই করা হবে না। অথচ চাষিরা ঋণ শোধ করতে না পারলেই জেল! এটা কেমন বিচার?’’ কৃষিঋণ মকুবের পাশাপাশি এই সংক্রান্ত আইনে বদল আনার কথাও বললেন রাহুল। প্রতিশ্রুতি দিলেন, কংগ্রেস ক্ষমতায় এলে চাষিদের জন্য পৃথক বাজেট হবে। আর গ্রাম-গঞ্জের কেউ নতুন ব্যবসায় নামলে তিন বছর কারও অনুমতি নিতে হবে না। রাহুলের দাবি, বছরে দু’কোটি সরকারি চাকরি কিংবা প্রত্যেকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা দেওয়ার যে কথা বলেছিলেন মোদী, তা ভাঁওতা।

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯                                  

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত