পুলওয়ামা নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্ক বাধিয়েছিলেন আগেই। এ বার বায়ুসেনার অভিযান নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন পঞ্জাবের মন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা নভজ্যোৎ সিংহ সিধু। তাঁর কথায়, ‘‘আদৌ শতাধিক জঙ্গি নিকেশ করা গিয়েছে তো? নাকি গাছ উপড়ে ফিরে এসেছে বায়ুসেনা। ভোটের আগে সেটাকেই জঙ্গি অভিযান বলে চালানো হচ্ছে?’’

পুলওয়ামা হামলার ১২দিন পর পাকিস্তানে ঢুকে প্রত্যাঘাত করেছে ভারত। পাক অধিকৃত কাশ্মীর, বালাকোট এবং চাকোটিতে একাধিক জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবির ধ্বংস করেছে। কিন্তু তাতে কতজন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে, তা নির্দিষ্ট ভাবে জানা যায়নি এখনও পর্যন্ত। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে কখনও শোনা গিয়েছে বায়ুসেনার অভিযানে ৪০০ জঙ্গি মারা গিয়েছে। তো কখনও আবার সংখ্যাটা এসে ঠেকেছে ৩৫-এ। বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ আবার ২৫০-র বেশি জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে বলে রবিবার দাবি করেন। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এখনও পর্যন্ত তা নিশ্চিত করা হয়নি।

অন্যদিকে ভারতীয় বায়ুসেনা ফাঁকা জায়গায় বোমা ফেলে গিয়েছে, কোনও প্রাণহানি হয়নি বলে দাবি করেছে পাকসরকার। তাতে নিহত জঙ্গির সংখ্যা নিয়ে ধন্দ ক্রমশ বেড়েই চলেছে। এমন পরিস্থিতিতে মোদী সরকারের সমালোচনায় সরব হয়েছে বিরোধী শিবির। জঙ্গি অভিযান নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন অনেকেই। সোমবার সকালে তাতে যোগ দেন নভজ্যোৎ সিংহ সিধুও। নিজের টুইটার হ্যান্ডলে মোদী সরকারকে ব্যঙ্গ করে তিনি লেখেন, ‘৩০০ জঙ্গি মারা গিয়েছে, এটা সত্যি না মিথ্যে? যদি তা না হয়, তাহলে জঙ্গি অভিযান চালানোর উদ্দেশ্য কী ছিল? জঙ্গি নিকেশ করতে গিয়েছিলেন নাকি গাছ ওপড়াতে? নাকি সবটাই নির্বাচনী ভাঁওতা? বহির্শত্রু দমনের নামে সাধারণ মানুষকে বোকা বানানো হচ্ছে। সেনাবাহিনীকে নিয়ে এই রাজনীতি বন্ধ হোক।’ বায়ুসেনার অভিযান নিয়ে হাঁকডাক করায় মোদী সরকাকে বিদ্রূপও করেন সিধু। হিন্দিতে লেখেন, ‘উঁচি দুকান, ফিকা পকওয়ান।’তাঁর এই মন্তব্য নিয়ে ইতিমধ্যেই বিতর্ক শুরু হয়েছে। টুইটারে তাঁর বিরুদ্ধে তোপ দাগতে শুরু করেছেন নেটিজেনরা।

সিধুর টুইট।

আরও পড়ুন: আমরা লক্ষ্যে আঘাত করেছি, মৃতের সংখ্যা জানাতে পারবে সরকার, বললেন বায়ু সেনা প্রধান​

তবে সিধু একা নন, পাকিস্তানে বায়ুসেনার অভিযানে কতজন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে, সরকারকে তার হিসাব দিতে হবে বলে বলে দাবি তুলেছেন বিজেপি বিরোধী শিবিরের অনেকেই। মোদীর নাম করে কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল বলেন, ‘‘আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম পাকিস্তানের সমালোচনা করলে খুশি হন। অথচ তারাই বলছে বালাকোটে কোনও প্রাণহানি ঘটেনি। তাহলে কি আন্তর্জাতিক মহলকেও এখন পাকিস্তানের সমর্থক বলবেন? প্রধানমন্ত্রীকে এর জবাব দিতেই হবে।’’ বিভিন্ন সভায় শতাধিক জঙ্গি মৃত্যুর হয়েছে বলে বড়াই করতে দেখা গিয়েছে একাধিক বিজেপি নেতাকে। তার তীব্র সমালোচনা করেছেন তৃণমূল-কংগ্রেসের জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েন। তাঁর কথায়, ‘‘পাকিস্তানে ঢুকে বোমাবর্ষণ করেছে ভারতীয় বায়ুসেনা। তাই কৃতিত্ব নেওয়া বন্ধ করুন বিজেপি নেতারা।’’

ভারতীয় বায়ুসেনা সম্পর্কে এই তথ্যগুলি জানতেন? 

আরও পড়ুন: আমি নোবেল শান্তি পুরস্কারের যোগ্য নই, বললেন ইমরান​

রাজনৈতিক বিতর্কের মধ্যেই এ দিন সকালে সাংবাদিক বৈঠক করেন বায়ুসেনা প্রধান বীরেন্দ্র সিংহ ধানোয়া। নিশানা লক্ষ্য করে বোমা ছোড়া হয়েছে, তবে কত জন মারা গিয়েছে তার হিসাব দেওয়া সম্ভব নয় বলে জানান তিনি।

(কী বললেন প্রধানমন্ত্রী, কী বলছে সংসদ- দেশের রাজধানীর খবর, রাজনীতির খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।)