ন্যুড পার্টির পোস্টার ঘিরে হুলস্থুল গোয়ায়। এ ধরনের কোনও পার্টি হতে দেবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সবন্ত। বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করে দিয়েছে পুলিশ। ঘটনায় যুক্ত এক সন্দেহভাজনের হদিশ মিলেছে। তবে এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি।

সোমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টার ছড়িয়ে পড়ে। তাতে উত্তর গোয়ার পারনেম শহরের মোরজিম-অশ্বেম এবং গাওদেওয়াড়া রোডের উল্লেখ করে বলা হয়, একটি প্রাইভেট ন্যুড পার্টির আয়োজন হতে চলেছে। ১০-১৫ জন বিদেশি তাতে আমন্ত্রিত। থাকবেন কমপক্ষে ১০ ভারতীয় তরুণীও। মিলবে অবাধ সঙ্গমের সুযোগ। যদিও কবে, কোথায় ওই পার্টির আয়োজন হবে, তা নির্দিষ্ট করে জানানো হয়নি।

পোস্টারটি চোখে পড়তেই শোরগোল পড়ে যায়। কোনও ভাবেই এই পার্টি হতে দেওয়া যাবে না বলে জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সবন্ত। রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী মনোহর অজগাঁওকর বলেন, ‘‘গোয়ায় এ সব চলবে না।’’ নড়েচড়ে বসে গোয়ার পুলিশ প্রশাসন। শুরু হয় তদন্ত। তাতেই সন্দেহভাজন এক ব্যক্তির হদিশ মেলে।

আরও পড়ুন: চাঁদে হাঁটছেন মহাকাশচারী আর পাশে স্কুটার থামিয়ে দেখছেন সাধারণ মানুষ​

তবে সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তি কে বা তিনি কোথায় থাকেন, তা নিয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেনি পুলিশ। এই ধরনের কোনও পার্টির খবর পেলে অবিলম্বে পুলিশকে খবর দিতে সাধারণ মানুষকে আর্জি জানিয়েছেন মনোহর অজগাঁওকর।

আরও পড়ুন: ভারতীয়দের কারি রাইস খাওয়াতে এ দেশে আসছে জাপানি রেস্তরাঁ​

দেশ-বিদেশের পর্যটকদের কাছে গোয়া বরাবরই জনপ্রিয়। কিন্তু এ বছরের শুরুতে উদ্দাম আচরণে লাগাম টানতে শুরু করে রাজ্য সরকার। সমুদ্র সৈকতে মদ্যপানও নিষিদ্ধ করা হয়। নিয়ম ভাঙলে ২ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা এবং তিন মাস পর্যন্ত জেল হতে পারে।