স্কুলের পঠনপাঠন মানেই এখনও প্রায় সেই গতে বাঁধা সিলেবাস। কমিকসে যত মনোযোগই থাক, বেশি মনোনিবেশ দেখলেই বাধা দেবে বড়রা। কারণ ওটা সিলেবাসের বাইরে। এ বার বোধহয় ছবিটা বদলাতে চলেছে। বিভিন্ন সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যম বলছে, অনেকটা পাল্টে যাচ্ছে ‘আইসিএসই’ পাঠক্রম। ‘টিনটিন’ থেকে ‘হ্যারি পটার’, ‘ফেলুদা’ থেকে ‘হোমস’ থাকবে নতুন সিলেবাসে।

ক্লাস থ্রি থেকে ক্লাস এইট পর্যন্ত পড়ানো হবে ‘অমর চিত্র কথা’, ‘অ্যাস্টেরিক্স’, এবং স্পিগেলম্যানসের কার্টুন ‘মস’।

এখানেই থেমে নয়। থাকবে আগাথা ক্রিস্টির গোয়েন্দা গল্প ‘হারকিউলি পৈরট’ এবং কোনান ডয়েলের ‘শার্লক হোমস’। সত্যজিতের ‘ফেলু মিত্তির’ও বাদ যায়নি। সিনে পর্দার ‘হবিট’ও ধরা পড়বে বইতে।

আর একটু বড়দের পাঠক্রমে ‘আত্মজীবনী’ থাকবে। থাকবে ‘ডায়েরি অব আনা ফ্র্যাঙ্ক’ এবং ‘আই অ্যাম মালালা’র মতো বই।

এক্কেবারে খুদে পড়ুয়াদের কথাও মাথায় রেখেছে বোর্ড। ক্লাস ওয়ান-টুর পাঠ্যসূচিতে থাকছে ‘নডি’ এবং তাঁর কোং।

আগামী শিক্ষাবর্ষ, অর্থাত্ ২০১৭-১৮ থেকেই সম্ভবত চালু হয়ে যাবে একটু অন্য রকম এই সিলেবাসে পড়াশোনা।

শিশু বা কিশোর কিশোরীদের পছন্দসই বিষয়গুলো ঢুকলে, স্কুলের সিলেবাস তাদের কাছে আকর্ষণীয় হবে বলেই মনে করছেন শিক্ষাবিদদের একটা বড় অংশ।

আরও পড়ুন:
হাতে কাজ নেই? ঘরে বসেই টাকা আয় করুন এই উপায়ে