সিবিএসই দশমের পরীক্ষা দিয়েছিল মেয়ে। অমেঠী লোকসভা কেন্দ্রে সোমবার ছিল তাঁর নিজেরও পরীক্ষা। প্রতিপক্ষ হেভিওয়েট রাহুল গাঁধী। তারই মধ্যে ছেলের দ্বাদশ শ্রেণির ফলের মতো মেয়ের দশম শ্রেণির ফল নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পঞ্চমুখ হয়ে উঠলেন বিজেপি নেত্রী স্মৃতি ইরানি। 

সার্বিক ভাবে দ্বাদশ শ্রেণির মতো এ বার দশম শ্রেণিতেও বাজি মাত করেছে উত্তরপ্রদেশ। দ্বাদশের মতোই দশমে শীর্ষ স্থান অধিকার করেছে ওই রাজ্য। প্রথম হয়েছে উত্তরপ্রদেশের নয়ডার লোটাস ভ্যালি ইনস্টিটিউটের সিদ্ধান্ত পেনগোরিয়া। ৫০০-র মধ্যে সে পেয়েছে ৪৯৯। তার মাত্র একটি নম্বর কাটা গিয়েছে ইংরেজিতে। তার বয়সের ছেলেমেয়েরা সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে উপস্থিত। কিন্তু ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রাম, কোথাও ডিজিটাল উপস্থিতি নেই সিদ্ধান্তের। তার কথায়, ‘‘সোশ্যাল মিডিয়ায় না-থেকেও আমি কিন্তু ভীষণ সামাজিক।’’ পুরোপুরি স্কুলের পড়াশোনার উপরে নির্ভরশীল সিদ্ধান্তের কোনও গৃহশিক্ষক ছিলেন না। ভবিষ্যতে আইনজীবী হতে চায় সে। সিদ্ধান্তের মতোই উজ্জ্বল ফল করেছে আরও ১২ জন। এবং তাদের মধ্যে আট জনই উত্তরপ্রদেশের।

উজ্জ্বল ফল করেছে পশ্চিমবঙ্গও। এ রাজ্যে সব চেয়ে বেশি নম্বর পেয়েছে (৪৯৭) মালদহের উষা মার্টিন স্কুলের সুমিতা লাইসা। বাংলা থেকে ৪৯৬ পেয়েছে চার জন। তারা হল সাউথ পয়েন্ট স্কুলের সূচনা হালদার, আসানসোলের কন্যাপুর ডিএভি পাবলিক স্কুলের ঈশিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, বর্ধমানের বার্নপুর রিভারসাইড স্কুলের রিচা গুপ্ত এবং কলকাতার খালসা মডেল সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলের সৌম্যদীপ দাস। 

স্মৃতির ছেলে জোহর কয়েক দিন আগে সিবিএসই-র দ্বাদশ শ্রেণিতে ৯২ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন। নিজেই সোশ্যাল মাধ্যমে তা জানিয়েছিলেন বিজেপি নেত্রী। এ দিন সিবিএসই বোর্ডের দশম শ্রেণির ফল ঘোষণার কিছু ক্ষণ পরেই স্মৃতি সোশ্যাল মিডিয়ায় মেয়ের সঙ্গে ছবি শেয়ার করে জানান, নানাবিধ প্রতিকূলতার সঙ্গে লড়াই করেও মেয়ে জ়োইশ ৮২ শতাংশ নম্বর পেয়েছে। 

সব মিলিয়ে গোটা দেশে প্রায় ১৮ লক্ষ পড়ুয়া এ বার সিবিএসই-র দশম শ্রেণির পরীক্ষায় বসেছিল। সিবিএসই সূত্রের খবর, সব মিলিয়ে গোটা দেশে পাশের হার প্রায় ৯১.১ শতাংশ। যা গত বারের চেয়ে প্রায় ৪.৪০ শতাংশ বেশি। সামগ্রিক ভাবে ভাল ফল করেছে অবশ্য ছাত্রীরাই। তাদের ক্ষেত্রে পাশের হার ৯২.৪৫ শতাংশ। ‘রিজিয়ন’-ভিত্তিক ফলের ক্ষেত্রে দ্বাদশ শ্রেণির মতোই ভাল ফল করেছে তিরুঅনন্তপুরম। গত বছর সেখানে পাশের হার ছিল ৯৯.৬০ শতাংশ। এ বার তা বেড়ে হয়েছে ৯৯.৮৫ শতাংশ।

সিবিএসই বোর্ডের দশম শ্রেণির পরীক্ষায় সফল ছাত্রছাত্রীদের টুইটারে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর।