তাড়াহুড়োর সময় অনেকেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে, নিয়ম ভেঙে রেল লাইন পারাপার করেন বা ট্রেনে দরজার কাছে ঝুলতে ঝুলতে যাতায়াত করেন। এমন দৃশ্য ব্যস্ত সময়ে বহু স্টেশনেই দেখা যায়। কিন্তু চেন্নাইয়ের একটি স্টেশনে যা দেখা গেল তা মনে হয় আর কোথাও দেখা যায়নি।

চেন্নাইয়ের পার্ক টাউন স্টেশনের একটি ভিডিয়ো সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, যখনই কোনও যাত্রী ভিড় ট্রেনে দরজায় ঝুলতে ঝুলতে যাচ্ছেন বা ওভারব্রিজ ব্যবহার না করে লাইন পারাপার করছেন তাদের ঘেউ ঘেউ করে সতর্ক করছে সে। দৌড়ে যাচ্ছে চলন্ত ট্রেনের দিকে ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করা যাত্রীদের সতর্ক করতে।

বছর দু’য়েক আগে পার্ক টাউন স্টেশনে এই কুকুরটিকে ছেড়ে দিয়ে যান তার মালিক। তখন থেকেই কুকুরটি এই স্টেশনেই রয়েছে। কিছুদিন পর থেকে সে এভাবে মানুষকে সতর্ক করতে শুরু করে। স্টেশনে কর্মরত আরপিএফ কর্মী ও দোকানদারদের তার এই গুণ চোখে পড়ে। সবাই তাকে পছন্দ করতে শুরু করেন। সময় মতো খেতে দেওয়া, যত্ন নেওয়াও শুরু হয়। তার একটি নামও দিয়েছেন তাঁরা, চিন্নাপন্নু।

আরও পড়ুন: ১০ বছর অজ্ঞাতবাসে থাকার পর সামনে এল ১০ ফুটের পাইথন!

চিন্নাপন্নু এখন রোজ ‘নিয়ম’ করে নিয়মভঙ্গকারী মানুষদের সতর্ক করে। ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, সে এক আরপিএফ কর্মীর সঙ্গে ঘুরছে, ‘নিজের দায়িত্ব’ পালন করছে। সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, চিন্নাপন্নু শুধু খাকি উর্দিধারীদের সঙ্গেই থাকে, তাদের সঙ্গেই ঘোরে। স্টেশনে যখন যে আরপিএফ কর্মীরা দায়িত্বে থাকেন, তাঁদের সঙ্গেই কাজ করে চিন্নাপন্নু।

আরও পড়ুন: ঘণ্টায় ২১৭ কিমি বেগে ছুটছে জেসিবি-র ট্র্যাক্টর! ভাইরাল গতির ভিডিয়ো

ভিডিয়োটি প্রথমে একটি সর্বভারতীয় সংবাদপত্র প্রকাশ করে। ১৭ নভেম্বর রেলমন্ত্রকের টুইটার হ্যান্ডলে সেটি আপলোড হয়। ইতিমধ্যেই চিন্নাপন্নুর এই ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। রেলমন্ত্রকের টুইটার হ্যান্ডলে পোস্ট হওয়া ভিডিয়োটি এখনও পর্যন্ত দু’লক্ষ ২০ হাজারের বেশি বার দেখা হয়েছে।

দেখুন সেই ভিডিয়ো: