শুক্রবার ১৩ বছর পর ফের মাইক্রো মুন বা ক্ষুদ্রতম চাঁদ। এর আগে দেখা গিয়েছিল ২০০৬ সালের জানুয়ারি মাসে। তারপর এই শুক্রবার পূর্ণিমার রাতেই চাঁদকে সব থেকে ছোট দেখিয়েছে। বিজ্ঞানীদের মতে মাইক্রো মুনের ক্ষেত্রে চাঁদ ১৪ থেকে ৩০ শতাংশ পর্যন্ত ছোট দেখায়। 

উপবৃত্তাকার কক্ষপথের জন্য চাঁদ কখনও পৃথিবীর সামনে আসে, কখনও দূরে চলে যায়। সেই মতো শুক্রবার ১৩ সেপ্টেম্বর চাঁদ পৃথিবী থেকে ছিল দূরতম স্থানে। পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব দু’লক্ষ ৫১ হাজার ৬৫৫ মাইল হলেই মাইক্রো ধরা হয়। কিন্তু এবার তার থেকেও ৮১৬ মাইল দূরে ছিল চাঁদ। আর সুপার মুনের ক্ষেত্রে পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্ব হয় ২০৩৯ মাইল বা তার থেকে কম।

কলকাতায় পজিশনাল অ্যাস্ট্রনমি সেন্টারের ডিরেক্টর সঞ্জীব সেন জানিয়েছেন, এ বার পূর্ণিমা শুরু হয়েছে ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল ৭টা ৩৬ মিনিটে। আর পূর্ণিমা ছাড়বে ১৪ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টা ৩ মিনিটে। ফলে এই সময়ের মধ্যে চাঁদকে সব থেকে ছোট দেখাবে। ১৩ বছর পর চাঁদকে এতটা ছোট রূপে দেখতে চাইলে শুক্রবার সন্ধ্যা থেকেই আকাশের দিকে নজর রাখতে হবে।

আরও পড়ুন : ইরাকের ‘হোটেল দ্বীপে’ বোমা ফেলে ২৫ আইএস জঙ্গিকে খতম করল মার্কিন বায়ুসেনা

আরও পড়ুন : মেয়ের সঙ্গে রফির ‘তেরে মেরে প্যার কে…’ গাইলেন রানু মণ্ডল

পরের মাইক্রো মুন দেখতে গেলে অপেক্ষা করতে হবে ২০৩৩ সালের মে মাস পর্যন্ত। ওই সময় চাঁদ আবার পৃথিবী থেকে সব থেকে দূরে চলে যাবে।