Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

চিত্র সংবাদ

Bollywood industry: সুশান্ত-করিনাদের বদলে অর্জুন-অমিশা! তারকাদের ছেড়ে যাওয়া চরিত্রে ফিল্মের ‘মোক্ষলাভ’

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৪ মে ২০২২ ১৪:৩৪
বলিউড সিনেমা জগৎ নিয়ে বিতর্ক, সমালোচনা নতুন কিছু নয়। বলিউড তারকাদের ব্যক্তিগত সম্পর্কের টানাপড়েন কখনও কখনও তাঁদের পেশাগত জীবনেও প্রভাব ফেলে।

প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর পর বলিউডের ছবিতে কাজ না পাওয়া নিয়ে পরিচালক ও অন্যান্য তারকার দিকে সন্দেহের তির ছোড়া হয়। প্রশ্ন ওঠে, বলিউডে স্বজনপোষণ নিয়েও।
Advertisement
প্রকাশ্যে এসেছিল, ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দের কারণে অনেকেই এক সঙ্গে কাজ করতে চাইতেন না। কিন্তু এ ঘটনা পুরোপুরি সত্যও নয়।

অনেক সময় দেখা গিয়েছে, দু’টি ছবির শ্যুটিংয়ের সময়ের সঙ্গে তাল মেলানো তাঁদের পক্ষে সম্ভব হয়ে ওঠে না। এ ছাড়াও দু’টো ছবিতে ভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করার কারণে তাঁদের শারীরিক দিকেও বদল আনতে হয়।
Advertisement
এই কারণে বলিউড তারকারা কখনও একটি ছবির কাজ শুরু করে দেওয়ার পর মাঝপথে কাজ ছেড়ে দেন এবং ওই চরিত্রে অভিনয় করেন অন্য অভিনেতা-অভিনেত্রীরা।

এমনই এক ঘটনা ঘটে ‘মণিকর্ণিকা’ সিনেমা শ্যুট করার সময়। ‘সদাশিব’-এর চরিত্রে অভিনয় করতে শুরু করেছিলেন অভিনেতা সোনু সুদ। কিন্তু একই সঙ্গে তিনি ‘সিম্বা’ ছবিতেও অভিনয় করছিলেন, যেখানে তাঁকে লম্বা দাড়ি রাখতে হত। ‘মণিকর্ণিকা’য় এক যোদ্ধার ভূমিকায় অভিনয় করলে সেই মুখের আদল মানাত না।

তাই তিনি আর ‘মণিকর্ণিকা’ ছবিতে তাঁর কাজ শেষ করতে পারেননি। তবে কঙ্গনা রানাউতের ধারণা, যেহেতু এই ছবির পরিচালক এক জন মহিলা, তাই সোনু আর অভিনয় করতে চাননি। এই প্রসঙ্গে সোনু বলেছেন, ‘‘কঙ্গনা আমার খুব ভাল বন্ধু। ওঁর বিরুদ্ধে আমার কোনও অভিযোগ নেই। ‘মণিকর্ণিকা’ ছবিটি আমার খুব কাছের। আমি এই ছবির সঙ্গে জড়িত সকলের উদ্দেশে শুভ কামনা জানাই।’’

সাইনা নেহওয়ালের আত্মজীবনীমূলক ছবিতে মূল চরিত্রে অভিনয় করার কথা ছিল শ্রদ্ধা কপূরের। ছবির শ্যুটিংও শুরু করে দিয়েছিলেন তিনি। এমনকি, পোস্টারেও তাঁকে দেখা গিয়েছিল। কিন্তু পরবর্তী কালে পরিণীতি চোপড়া সাইনার চরিত্রে অভিনয় করেন।

‘চলতে চলতে’ ছবিতে শাহরুখ খানের বিপরীতে অভিনয় করার কথা ছিল ঐশ্বর্যা রাই বচ্চনের। কিন্তু পরে রানি মুখোপাধ্যায়কে এই চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায়।

ঐশ্বর্যা ছাড়াও এই পরিস্থিতির শিকার হন করিনা কপূর খান। ‘কহো না প্যার হ্যায়’ ছবির মাধ্যমেই তিনি বলিউড সিনেমা জগতে প্রথম পা রাখতেন। হৃতিক রোশনের সঙ্গে সিনেমা সংক্রান্ত বেশ কিছু ফটোশ্যুটও করে ফেলেছিলেন। তবে ছবির শ্যুটিং আর শুরু হয়নি। করিনার বদলে অমিশা পটেল সেই চরিত্রে অভিনয় করেন। অন্য দিকে, অভিষেক বচ্চনের বিপরীতে ‘রিফিউজি’ ছবিতে করিনা প্রথম অভিনয় করেন।

চেতন ভগতের উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে ‘হাফ গার্লফ্রেন্ড’ ছবিটি মুক্তি পায়। জানা যায়, সুশান্ত সিংহ রাজপুতকে মুখ্য চরিত্র হিসাবে বেছে নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ‘রবতা’ ছবিতে পুরোদমে কাজ শুরু করে দেওয়ার পর আর সময় পাননি তিনি। তাই অর্জুন কপূর পরে সেই চরিত্রে অভিনয় করেন।

‘রবতা’ ছবিতে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের বিপরীতে আলিয়া ভট্ট অভিনয় করবেন বলে শোনা গিয়েছিল। কিন্তু কানাঘুষো শোনা যায়, কর্ণ জোহরের পরিচালনায় একটি ছবিতে অভিনয় করবেন বলে তাঁর বদলে কৃতি শ্যাননকে মুখ্য চরিত্রে নেওয়া হয়।

কার্তিক আরিয়ান অভিনীত ‘ভুলভুলাইয়া ২’ ছবিটি সম্প্রতি মুক্তি পেয়ে সাফল্যের শিখরে পৌঁছেছে। অন্য দিকে, ধর্ম প্রোডাকশন্স প্রযোজনা সংস্থা ঘোষণা করে, ‘দোস্তানা ২’ ছবি থেকে কার্তিককে বাদ দেওয়া হয়েছে।

তবে সমস্ত সমালোচনা-কানাঘুষো উপেক্ষা করে বলিউড তারকা, পরিচালক, প্রযোজক সকলের একটিই লক্ষ্য— দর্শকদের মনোরঞ্জন। তার জন্য যেটা সঠিক বলে মনে হয়, সেটাই করেন তাঁরা।