Advertisement
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Iran Hijab Row

মহিলাদের বুক-যৌনাঙ্গ লক্ষ্য করে গুলি! ইরানে অভিযোগ ছেলেদের নিতম্বে গুলি চালানোর

হিজাব-বিরোধী বিক্ষোভ চলার সময়, নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে এত দিন লাঠিসোঁটা নিয়ে মহিলাদের উপর চড়াও হওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। এ বার সরাসরি মহিলাদের উপর গুলি চালিয়ে হামলার অভিযোগ।

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন ও তেহরান শেষ আপডেট: ০৯ ডিসেম্বর ২০২২ ১৬:০৯
Share: Save:
০১ ১৫
নতুন করে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে ইরানে। হিজাব-বিরোধী বিক্ষোভ চলাকালীন মহিলা বিক্ষোভকারীদের চোখ-মুখ-বুক এমনকি যৌনাঙ্গ লক্ষ্য করে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠল সে দেশের নিরাপত্তারক্ষীদের বিরুদ্ধে।

নতুন করে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে ইরানে। হিজাব-বিরোধী বিক্ষোভ চলাকালীন মহিলা বিক্ষোভকারীদের চোখ-মুখ-বুক এমনকি যৌনাঙ্গ লক্ষ্য করে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠল সে দেশের নিরাপত্তারক্ষীদের বিরুদ্ধে।

ফাইল চিত্র।

০২ ১৫
পাখি মারার বন্দুক দিয়ে খুব কাছ থেকে নিরস্ত্র মহিলাদের উপর গুলি চালানো হয় বলে অভিযোগ। গুলি চালানোর অভিযোগ রয়েছে পুরুষদের পায়ে, নিতম্বে এবং পিঠেও।

পাখি মারার বন্দুক দিয়ে খুব কাছ থেকে নিরস্ত্র মহিলাদের উপর গুলি চালানো হয় বলে অভিযোগ। গুলি চালানোর অভিযোগ রয়েছে পুরুষদের পায়ে, নিতম্বে এবং পিঠেও।

ফাইল চিত্র।

০৩ ১৫
সংবাদমাধ্যম ‘দ্য গার্ডিয়ান’-এর প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। একই কথা স্বীকার করে নিয়েছেন আহত মহিলাদের শুশ্রূষা করা চিকিৎসকরাও।

সংবাদমাধ্যম ‘দ্য গার্ডিয়ান’-এর প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। একই কথা স্বীকার করে নিয়েছেন আহত মহিলাদের শুশ্রূষা করা চিকিৎসকরাও।

ফাইল চিত্র।

০৪ ১৫
হিজাব-বিরোধী বিক্ষোভ চলার সময়, নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে এত দিন লাঠিসোঁটা নিয়ে মহিলাদের উপর চড়াও হওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। এ বার সরাসরি মহিলাদের উপর গুলি চালিয়ে হামলার অভিযোগ।

হিজাব-বিরোধী বিক্ষোভ চলার সময়, নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে এত দিন লাঠিসোঁটা নিয়ে মহিলাদের উপর চড়াও হওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। এ বার সরাসরি মহিলাদের উপর গুলি চালিয়ে হামলার অভিযোগ।

ফাইল চিত্র।

০৫ ১৫
‘দ্য গার্ডিয়ান’-এর তরফে প্রকাশ্যে আনা ছবিগুলিতে দেখা গিয়েছে কয়েক ডজন ছোট গুলি বিক্ষোভকারী মহিলাদের শরীরে ঢুকেছে। সেই ক্ষতস্থান থেকে গল গল করে বেরিয়ে আসছে রক্ত।

‘দ্য গার্ডিয়ান’-এর তরফে প্রকাশ্যে আনা ছবিগুলিতে দেখা গিয়েছে কয়েক ডজন ছোট গুলি বিক্ষোভকারী মহিলাদের শরীরে ঢুকেছে। সেই ক্ষতস্থান থেকে গল গল করে বেরিয়ে আসছে রক্ত।

ফাইল চিত্র।

০৬ ১৫
এক জন চিকিৎসক জানান, ‘‘আমি বছর ২০-এর এক মহিলার চিকিত্সা করেছি, যাঁর যৌনাঙ্গে দু’টি গুলি লেগেছিল। তাঁর উরুতে আরও দশটি গুলি করা হয়েছিল।

এক জন চিকিৎসক জানান, ‘‘আমি বছর ২০-এর এক মহিলার চিকিত্সা করেছি, যাঁর যৌনাঙ্গে দু’টি গুলি লেগেছিল। তাঁর উরুতে আরও দশটি গুলি করা হয়েছিল।

ফাইল চিত্র।

০৭ ১৫
এই ১০টি গুলি সহজে বার করা গেলেও যৌনাঙ্গে লাগা গুলি বার করতে বেশ বেগ পেতে হয়েছিল। কারণ মূত্রনালি এবং যোনিপথের মাঝে গিয়ে ওই গুলি দু’টি আটকায়।’’

এই ১০টি গুলি সহজে বার করা গেলেও যৌনাঙ্গে লাগা গুলি বার করতে বেশ বেগ পেতে হয়েছিল। কারণ মূত্রনালি এবং যোনিপথের মাঝে গিয়ে ওই গুলি দু’টি আটকায়।’’

ফাইল চিত্র।

০৮ ১৫
প্রসঙ্গত, গত ১৬ সেপ্টেম্বর নীতি পুলিশের কবলে মাহশা আমিনির মৃত্যুর ঘটনার পরেই প্রতিবাদে গর্জে ওঠেন ইরানের জনগণ।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ সেপ্টেম্বর নীতি পুলিশের কবলে মাহশা আমিনির মৃত্যুর ঘটনার পরেই প্রতিবাদে গর্জে ওঠেন ইরানের জনগণ।

ফাইল চিত্র।

০৯ ১৫
দেশ জুড়ে হিজাব পরার বিরুদ্ধে প্রকাশ্য রাস্তায় হিজাব পুড়িয়ে, মাথার চুল কেটে ফেলে, শাসকদলের নেতাদের ছবি পুড়িয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা।

দেশ জুড়ে হিজাব পরার বিরুদ্ধে প্রকাশ্য রাস্তায় হিজাব পুড়িয়ে, মাথার চুল কেটে ফেলে, শাসকদলের নেতাদের ছবি পুড়িয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা।

ফাইল চিত্র।

১০ ১৫
প্রশাসনের কড়া বলপ্রয়োগের ফলেও থামানো যাচ্ছে না বিক্ষোভ। সেই সঙ্গে গান, নাচ ও কবিতার মাধ্যমে নিজেদের প্রকাশ করে চলেছেন তাঁরা।

প্রশাসনের কড়া বলপ্রয়োগের ফলেও থামানো যাচ্ছে না বিক্ষোভ। সেই সঙ্গে গান, নাচ ও কবিতার মাধ্যমে নিজেদের প্রকাশ করে চলেছেন তাঁরা।

ফাইল চিত্র।

১১ ১৫
যদিও বিক্ষোভকারীদের দমাতে ধীরে ধীরে আরও কড়া পদক্ষেপ করছে প্রশাসন। কিছু দিন আগেই এক বিক্ষোভকারীকে গুলি করে খুন করার অভিযোগ ওঠে নিরাপত্তারক্ষীদের বিরুদ্ধে।

যদিও বিক্ষোভকারীদের দমাতে ধীরে ধীরে আরও কড়া পদক্ষেপ করছে প্রশাসন। কিছু দিন আগেই এক বিক্ষোভকারীকে গুলি করে খুন করার অভিযোগ ওঠে নিরাপত্তারক্ষীদের বিরুদ্ধে।

ফাইল চিত্র।

১২ ১৫
এর পর সরকার-বিরোধী বিক্ষোভে যোগ দেওয়ার শাস্তি হিসাবে বৃহস্পতিবার ২৩ বছর বয়সি যুবক মহসিন শেকারিকে ফাঁসি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে তেহরান প্রশাসন। তার পর থেকে আরও উন্মত্ত হয়েছে জনগণ। বিক্ষোভ হয়েছে লাগামছাড়া।

এর পর সরকার-বিরোধী বিক্ষোভে যোগ দেওয়ার শাস্তি হিসাবে বৃহস্পতিবার ২৩ বছর বয়সি যুবক মহসিন শেকারিকে ফাঁসি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে তেহরান প্রশাসন। তার পর থেকে আরও উন্মত্ত হয়েছে জনগণ। বিক্ষোভ হয়েছে লাগামছাড়া।

ফাইল চিত্র।

১৩ ১৫
সরকার-বিরোধী বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার ‘অপরাধে’ বৃহস্পতিবার ২৩ বছর বয়সি যুবক মহসিন শেকারিকে ফাঁসি দেওয়া হয়েছে বলে জানায় তেহরান প্রশাসন। সে দেশে সরকার বিরোধী বিক্ষোভে অংশ নিয়ে গ্রেফতার হয়েছিলেন ওই যুবক। এই ঘটনার জেরে সে দেশে বিক্ষোভের আঁচ আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা।

সরকার-বিরোধী বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার ‘অপরাধে’ বৃহস্পতিবার ২৩ বছর বয়সি যুবক মহসিন শেকারিকে ফাঁসি দেওয়া হয়েছে বলে জানায় তেহরান প্রশাসন। সে দেশে সরকার বিরোধী বিক্ষোভে অংশ নিয়ে গ্রেফতার হয়েছিলেন ওই যুবক। এই ঘটনার জেরে সে দেশে বিক্ষোভের আঁচ আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা।

ফাইল চিত্র।

১৪ ১৫
রাজধানী তেহরান-সহ সে দেশের কয়েকটি শহরে বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে শুরু হয়ে বিক্ষোভকারীদের সমাবেশ। তেহরানের সাত্তার খান স্ট্রিটে রাস্তা অবরোধ শুরু হয়েছে। পুলিশের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে।

রাজধানী তেহরান-সহ সে দেশের কয়েকটি শহরে বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে শুরু হয়ে বিক্ষোভকারীদের সমাবেশ। তেহরানের সাত্তার খান স্ট্রিটে রাস্তা অবরোধ শুরু হয়েছে। পুলিশের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে।

ফাইল চিত্র।

১৫ ১৫
এর পর ধীরে ধীরে সেই হিজাব-বিরোধী বিক্ষোভ সে দেশের প্রধান ধর্মীয় নেতা আয়াতোল্লা আলি খোমেইনির তিন দশকের ‘স্বৈরাচারী’ শাসনের অবসান চেয়ে আন্দোলনে পরিণত হয়। তাতে অংশ নেন পুরুষেরাও। মহসিনও সে দলে ছিলেন বলে ইরানের দাবি। এখনও বেশ কিছু বিক্ষোভকারী পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন। তাঁদেরও মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হতে পারে বলে আশঙ্কা ইরানের মানবাধিকার আন্দোলনকারীদের।

এর পর ধীরে ধীরে সেই হিজাব-বিরোধী বিক্ষোভ সে দেশের প্রধান ধর্মীয় নেতা আয়াতোল্লা আলি খোমেইনির তিন দশকের ‘স্বৈরাচারী’ শাসনের অবসান চেয়ে আন্দোলনে পরিণত হয়। তাতে অংশ নেন পুরুষেরাও। মহসিনও সে দলে ছিলেন বলে ইরানের দাবি। এখনও বেশ কিছু বিক্ষোভকারী পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন। তাঁদেরও মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হতে পারে বলে আশঙ্কা ইরানের মানবাধিকার আন্দোলনকারীদের।

ফাইল চিত্র।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
আরও গ্যালারি

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.