Advertisement
১৯ মে ২০২৪
Adult Star Killing

বিদেশেও শ্রদ্ধাকাণ্ড! প্রেমিকার দেহ টুকরো করে প্রাক্তন বলছেন, ‘ভুল করে মেরে ফেলেছি’

ইতালির মিলানে শ্রদ্ধা ওয়ালকর হত্যাকাণ্ডের ছায়া! প্রাপ্তবয়স্ক তারকা তথা লাস্যময়ী ‘ন্যুড’ মডেল ক্যারল মাল্টেসি (২৬)-কে খুন করে দেহ টুকরো টুকরো করার অভিযোগ উঠল প্রাক্তন প্রেমিক ডেভিডের বিরুদ্ধে।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৭ ডিসেম্বর ২০২২ ০৯:৪০
Share: Save:
০১ ২৩
ইতালির মিলানেও শ্রদ্ধা ওয়ালকর হত্যাকাণ্ডের ছায়া! প্রাপ্তবয়স্ক তারকা তথা লাস্যময়ী ‘ন্যুড’ মডেল ক্যারল মাল্টেসি (২৬)-কে খুন করে দেহ টুকরো টুকরো করার অভিযোগ উঠল প্রাক্তন প্রেমিকের বিরুদ্ধে। পুলিশ ইতিমধ্যেই ক্যারলের প্রাক্তন প্রেমিক ডেভিড ফন্টানাকে গ্রেফতার করেছে।

ইতালির মিলানেও শ্রদ্ধা ওয়ালকর হত্যাকাণ্ডের ছায়া! প্রাপ্তবয়স্ক তারকা তথা লাস্যময়ী ‘ন্যুড’ মডেল ক্যারল মাল্টেসি (২৬)-কে খুন করে দেহ টুকরো টুকরো করার অভিযোগ উঠল প্রাক্তন প্রেমিকের বিরুদ্ধে। পুলিশ ইতিমধ্যেই ক্যারলের প্রাক্তন প্রেমিক ডেভিড ফন্টানাকে গ্রেফতার করেছে।

০২ ২৩
ক্যারল একটি ওয়েবসাইটে নিজের খোলামেলা ভিডিয়ো পোস্ট করে আয় করতেন। চলতি বছরের ১১ জানুয়ারি ক্যারলের গুণমুগ্ধ দর্শকেরা অধীর আগ্রহে তাঁর অনলাইন আসার অপেক্ষা করছিলেন।

ক্যারল একটি ওয়েবসাইটে নিজের খোলামেলা ভিডিয়ো পোস্ট করে আয় করতেন। চলতি বছরের ১১ জানুয়ারি ক্যারলের গুণমুগ্ধ দর্শকেরা অধীর আগ্রহে তাঁর অনলাইন আসার অপেক্ষা করছিলেন।

০৩ ২৩
ক্যারল অনলাইনে এলেন। কিন্তু তাঁকে দেখে হতবাক দর্শকেরা। কারণ দর্শকেরা দেখলেন, ক্যারলের হাত-পা পিছমোড়া করে বাধা। মুখেও শক্ত করে বাধা রয়েছে টেপ। মাথার উপর রাখা রয়েছে ব্যাগ।

ক্যারল অনলাইনে এলেন। কিন্তু তাঁকে দেখে হতবাক দর্শকেরা। কারণ দর্শকেরা দেখলেন, ক্যারলের হাত-পা পিছমোড়া করে বাধা। মুখেও শক্ত করে বাধা রয়েছে টেপ। মাথার উপর রাখা রয়েছে ব্যাগ।

০৪ ২৩
আর ক্যারলের ঠিক পিছনেই দাঁড়িয়ে ছিলেন ডেভিড। পুরো ঘটনা নিজের ফোনে রেকর্ড করছিলেন। কিছু ক্ষণ পরই ডেভিড দর্শকদের জন্য ভিডিয়ো বন্ধ করে দেন।

আর ক্যারলের ঠিক পিছনেই দাঁড়িয়ে ছিলেন ডেভিড। পুরো ঘটনা নিজের ফোনে রেকর্ড করছিলেন। কিছু ক্ষণ পরই ডেভিড দর্শকদের জন্য ভিডিয়ো বন্ধ করে দেন।

০৫ ২৩
সংবাদমাধ্যম ‘ইল জিওর্নো’র প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভিডিয়ো শুট করার পর ক্যারলকে হাতুড়ির বার বার আঘাতে খুন করেন ডেভিড।

সংবাদমাধ্যম ‘ইল জিওর্নো’র প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভিডিয়ো শুট করার পর ক্যারলকে হাতুড়ির বার বার আঘাতে খুন করেন ডেভিড।

০৬ ২৩
ডেভিড আদালতে জানান, তিনিই ক্যারলকে একসঙ্গে ভিডিয়ো করার অনুরোধ করেন এবং অনেক টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

ডেভিড আদালতে জানান, তিনিই ক্যারলকে একসঙ্গে ভিডিয়ো করার অনুরোধ করেন এবং অনেক টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

০৭ ২৩
কথা ছিল দর্শকদের জন্য ওই দৃশ্য রোমাঞ্চকর করে তুলতে বাঁধা অবস্থায় ক্যারলের উরুতে এবং পেটে কয়েকটি টোকা দেওয়ার কথা ছিল ডেভিডের। কিন্তু তার বদলে হাতুড়ি নিয়ে ক্যারলের মাথায় আঘাত করতে শুরু করেন ডেভিড। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ক্যারলের। আদালতে বিচার চলাকালীন ডেভিড নিজেই এই কথা স্বীকার করেন।

কথা ছিল দর্শকদের জন্য ওই দৃশ্য রোমাঞ্চকর করে তুলতে বাঁধা অবস্থায় ক্যারলের উরুতে এবং পেটে কয়েকটি টোকা দেওয়ার কথা ছিল ডেভিডের। কিন্তু তার বদলে হাতুড়ি নিয়ে ক্যারলের মাথায় আঘাত করতে শুরু করেন ডেভিড। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ক্যারলের। আদালতে বিচার চলাকালীন ডেভিড নিজেই এই কথা স্বীকার করেন।

০৮ ২৩
আদালতে ডেভিড বলেন, ‘‘আঘাত করার সময় আমি ওর (ক্যারলের) মুখ দেখিনি, কারণ মুখ ঢাকা দিয়ে দিয়েছিলাম। ঢাকা তুলে বুঝতে পারি যে আমি ওকে মেরে ফেলেছি।’’

আদালতে ডেভিড বলেন, ‘‘আঘাত করার সময় আমি ওর (ক্যারলের) মুখ দেখিনি, কারণ মুখ ঢাকা দিয়ে দিয়েছিলাম। ঢাকা তুলে বুঝতে পারি যে আমি ওকে মেরে ফেলেছি।’’

০৯ ২৩
ডেভিড এ-ও স্বীকার করেন যে, তিনি একটি জাপানি ছুরি দিয়ে ক্যারলের গলা কেটে ফেলেন।

ডেভিড এ-ও স্বীকার করেন যে, তিনি একটি জাপানি ছুরি দিয়ে ক্যারলের গলা কেটে ফেলেন।

১০ ২৩
 ডেভিড জানান, মৃত্যু নিশ্চিত করতেই তিনি ক্যারলের গলা কেটে ফেলেন। তাঁর কথায়, ‘‘আমি ওর ব্যথা দূর করতে চেয়েছিলাম।’’

ডেভিড জানান, মৃত্যু নিশ্চিত করতেই তিনি ক্যারলের গলা কেটে ফেলেন। তাঁর কথায়, ‘‘আমি ওর ব্যথা দূর করতে চেয়েছিলাম।’’

১১ ২৩
তবে খুনের পর সঙ্গে সঙ্গেই ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন ডেভিড। তাই তিনি ক্যারলের মোবাইল ফোন থেকে তাঁর বর্তমান প্রেমিক সালভাতোরকে মেসেজ করেছিলেন।

তবে খুনের পর সঙ্গে সঙ্গেই ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন ডেভিড। তাই তিনি ক্যারলের মোবাইল ফোন থেকে তাঁর বর্তমান প্রেমিক সালভাতোরকে মেসেজ করেছিলেন।

১২ ২৩
ক্যারল বেঁচে আছেন এবং কেউ যাতে তাড়াতাড়ি তাঁর খোঁজ না করেন, সেই উদ্দেশ্যেই ডেভিড ওই মেসেজ করেছিলেন।

ক্যারল বেঁচে আছেন এবং কেউ যাতে তাড়াতাড়ি তাঁর খোঁজ না করেন, সেই উদ্দেশ্যেই ডেভিড ওই মেসেজ করেছিলেন।

১৩ ২৩
এর পর ক্যারলের দেহ টুকরো টুকরো করতে শুরু করেন ডেভিড।

এর পর ক্যারলের দেহ টুকরো টুকরো করতে শুরু করেন ডেভিড।

১৪ ২৩
ক্যারলের টুকরো করা দেহ ইতালির ব্রেসিয়ার কাছে বোর্নোতে ফেলে দিয়ে আসা হয়।

ক্যারলের টুকরো করা দেহ ইতালির ব্রেসিয়ার কাছে বোর্নোতে ফেলে দিয়ে আসা হয়।

১৫ ২৩
 আদালতে ডেভিড বলেন, ‘‘ক্যারলের দেহ টুকরো টুকরো করতে একটি বৈদ্যুতিক করাত ব্যবহার করেছিলাম। দেহ টুকরো টুকরো করতে ৩ দিন সময় লেগেছিল।’’

আদালতে ডেভিড বলেন, ‘‘ক্যারলের দেহ টুকরো টুকরো করতে একটি বৈদ্যুতিক করাত ব্যবহার করেছিলাম। দেহ টুকরো টুকরো করতে ৩ দিন সময় লেগেছিল।’’

১৬ ২৩
তবে আদালতে ডেভিডের দাবি, ক্যারলের খুন মোটেও পূর্বপরিকল্পিত ছিল না। নিজের কর্মকাণ্ডে তিনি অনুতপ্ত বলেও ডেভিড জানান।

তবে আদালতে ডেভিডের দাবি, ক্যারলের খুন মোটেও পূর্বপরিকল্পিত ছিল না। নিজের কর্মকাণ্ডে তিনি অনুতপ্ত বলেও ডেভিড জানান।

১৭ ২৩
বলেন, ‘‘ক্যারলকে বাঁচিয়ে আনতে আমি নিজেই মরে যাব। আমি কিছুই পূর্বপরিকল্পনা থেকে করিনি। আমি নিজের ভুল শোধরাতে চাই। আর নিজের ভুল শোধরাতে  আমি সারা জীবন জেলে থাকতে চাই।’’

বলেন, ‘‘ক্যারলকে বাঁচিয়ে আনতে আমি নিজেই মরে যাব। আমি কিছুই পূর্বপরিকল্পনা থেকে করিনি। আমি নিজের ভুল শোধরাতে চাই। আর নিজের ভুল শোধরাতে আমি সারা জীবন জেলে থাকতে চাই।’’

১৮ ২৩
ডেভিডের দাবি অনুযায়ী, খুন পূর্বপরিকল্পিত না হলেও সরকারি আইনজীবীর দাবি, ক্যারলকে যে ভাবে বেঁধে রাখা হয়েছিল, তাতে মনে হচ্ছে যে পুরোটাই পূর্বপরিকল্পিত। খুব ভেবেচিন্তে ঠান্ডা মাথায় এই খুন করা হয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন।

ডেভিডের দাবি অনুযায়ী, খুন পূর্বপরিকল্পিত না হলেও সরকারি আইনজীবীর দাবি, ক্যারলকে যে ভাবে বেঁধে রাখা হয়েছিল, তাতে মনে হচ্ছে যে পুরোটাই পূর্বপরিকল্পিত। খুব ভেবেচিন্তে ঠান্ডা মাথায় এই খুন করা হয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন।

১৯ ২৩
ক্যারলকে খুনের পর ডেভিড তাঁর ক্রেডিট কার্ড দিয়ে কেনাকাটা করেছিলেন বলেও দাবি করেন সরকারি আইনজীবী।

ক্যারলকে খুনের পর ডেভিড তাঁর ক্রেডিট কার্ড দিয়ে কেনাকাটা করেছিলেন বলেও দাবি করেন সরকারি আইনজীবী।

২০ ২৩
বর্তমানে জেল হেফাজতে রয়েছেন ডেভিড। তাঁর মামলা এখনও বিচারাধীন।

বর্তমানে জেল হেফাজতে রয়েছেন ডেভিড। তাঁর মামলা এখনও বিচারাধীন।

২১ ২৩
১৮ মে দক্ষিণ দিল্লির মেহরৌলি এলাকার ছতরপুরের একটি ভাড়াটে ফ্ল্যাটে ২৭ বছরের শ্রদ্ধাকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠেছে তাঁর লিভ-ইন সঙ্গী আফতাবের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, খুনের পর শ্রদ্ধার দেহ ৩৫ টুকরো করেন তিনি।

১৮ মে দক্ষিণ দিল্লির মেহরৌলি এলাকার ছতরপুরের একটি ভাড়াটে ফ্ল্যাটে ২৭ বছরের শ্রদ্ধাকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠেছে তাঁর লিভ-ইন সঙ্গী আফতাবের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, খুনের পর শ্রদ্ধার দেহ ৩৫ টুকরো করেন তিনি।

২২ ২৩
এর পর সেই টুকরোগুলি ভরে রাখার জন্য একটি ৩০০ লিটার ফ্রিজ়ও কেনেন তিনি। খুনের পর আঠেরো রাত ধরে ছতরপুর পাহাড়ির জঙ্গলে ওই টুকরোগুলি ফেলতে যেতেন আফতাব। এ সবই আফতাব তদন্তকারীদের কাছে স্বীকার করেছেন বলে দাবি। যদিও এই স্বীকারোক্তির পক্ষে প্রমাণ জোগাড় করছেন তদন্তকারীরা।

এর পর সেই টুকরোগুলি ভরে রাখার জন্য একটি ৩০০ লিটার ফ্রিজ়ও কেনেন তিনি। খুনের পর আঠেরো রাত ধরে ছতরপুর পাহাড়ির জঙ্গলে ওই টুকরোগুলি ফেলতে যেতেন আফতাব। এ সবই আফতাব তদন্তকারীদের কাছে স্বীকার করেছেন বলে দাবি। যদিও এই স্বীকারোক্তির পক্ষে প্রমাণ জোগাড় করছেন তদন্তকারীরা।

২৩ ২৩
শ্রদ্ধাকে খুনের অভিযোগে ১২ নভেম্বর আফতাবকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশ। প্রথমে ৫ দিনের পুলিশি হেফাজতে পাঠানো হয়েছিল আফতাবকে। ১৭ নভেম্বর তা বাড়িয়ে আরও ৫ দিন করে আদালত। এর পর থেকে বিচারকের নির্দেশে তাঁকে জেল হেফাজতে রাখা হয়েছে। সম্প্রতি আরও ১৪ দিনের জন্য আফতাবের জেল হেফাজতের মেয়াদ বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ইতিমধ্যেই আফতাবের পলিগ্রাফ এবং নার্কো অ্যানাসিলিস পরীক্ষা করানো হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

শ্রদ্ধাকে খুনের অভিযোগে ১২ নভেম্বর আফতাবকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশ। প্রথমে ৫ দিনের পুলিশি হেফাজতে পাঠানো হয়েছিল আফতাবকে। ১৭ নভেম্বর তা বাড়িয়ে আরও ৫ দিন করে আদালত। এর পর থেকে বিচারকের নির্দেশে তাঁকে জেল হেফাজতে রাখা হয়েছে। সম্প্রতি আরও ১৪ দিনের জন্য আফতাবের জেল হেফাজতের মেয়াদ বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ইতিমধ্যেই আফতাবের পলিগ্রাফ এবং নার্কো অ্যানাসিলিস পরীক্ষা করানো হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE