Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

জিকার প্রতিষেধক তৈরি! দাবি ভারতীয় ওষুধ সংস্থার

জিকা ভাইরাসের প্রথম প্রতিষেধক কি বাজারে এসেই গেল? এমনটাই দাবি করেছে হায়দরাবাদের একটি ওষুধ সংস্থা ‘ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড’। তাদে

সংবাদ সংস্থা
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ ১৭:১৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

জিকা ভাইরাসের প্রথম প্রতিষেধক কি বাজারে এসেই গেল?

এমনটাই দাবি করেছে হায়দরাবাদের একটি ওষুধ সংস্থা ‘ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড’।

তাদের দাবি, তারাই বিশ্বের প্রথম কোনও ওষুধ সংস্থা, যারা জিকা ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কার করেছে। আর তার পেটেন্ট পাওয়ার জন্য নয় মাস আগেই তারা আবেদন জানিয়েছিল।

Advertisement

একেবারে হালে আমেরিকা ও লাতিন আমেরিকার ২০টি দেশে জিকা ভাইরাস কার্যত, মহামারী হয়ে দেখা দিয়েছে। আর তা ছড়িয়ে পড়ছে অত্যন্ত দ্রুত হারে। দেখা গিয়েছে, গর্ভাবস্থায় থাকা কেউ যদি ওই ভাইরাসে আক্রান্ত হন, তা হলে তা তাঁর ভ্রুণেও সংক্রামিত হয়। মার্কিন মুলুকের টেক্সাসে ওই জিকা ভাইরাস যৌন সংসর্গের মাধ্যমেও সংক্রামিত হতে দেখা গিয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) এ ব্যাপারে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করার পর সারা বিশ্বের ওষুধ সংস্থাগুলো যখন তার প্রতিষেধক আবিষ্কারের জন্য জরুরি ভিত্তিতে গবেষণা শুরু করে দিয়েছে, তখন হায়দরাবাদের ওষুধ সংস্থার এই দাবি স্বাভাবিক ভাবেই আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

হায়দরাবাদের ওই ওষুধ সংস্থা ‘ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড’-এর চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর কৃষ্ণা এলা বলেছেন, ‘‘সম্ভবত আমরাই বিশ্বের প্রথম কোনও ওষুধ সংস্থা, যারা নয় মাস আগেই ওই সদ্য বানানো প্রতিষেধকের পেটেন্টের জন্য আবেদন জানিয়েছি। আমরা সরকারি ভাবেই বিদেশ থেকে ওই ভাইরাস আনিয়ে তার প্রতিষেধক বানিয়ে ফেলেছিলাম। তখনও গোটা বিশ্বে ওই ভাইরাস এতটা ভয়াবহ হয়ে ওঠেনি।’’

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চের (আইসিএমআর) ডিরেক্টর জেনারেল সৌম্য স্বামীনাথন বলেছেন, ‘‘খুব সম্প্রতি ওই প্রতিষেধকের নমুনা আমাদের হাতে এসেছে। আমরা খুব দ্রুত তা পরীক্ষা করে দেখতে চলেছি। সব ঠিকঠাক চললে, জিকা ভাইরাসের প্রতিষেধকই হতে পারে আমাদের একটি আদর্শ ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ পণ্য।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement