শনিবারই ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালে শুরু হওয়ার কথা ছিল সিরিজের তৃতীয় টেস্ট। তার বদলে এদিন ক্রাইস্টচার্চ বিমানবন্দর থেকে দেশে ফেরার বিমান ধরলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। নুর আল মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার পরিপ্রেক্ষিতে বাতিল হয়ে গিয়েছে টেস্ট। 

বিমানবন্দরে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের চেহারায় ধরা পড়ল আতঙ্কের ছাপ। চুপচাপ দেখাল ক্রিকেটারদের। দেশে ফেরার স্বস্তি যতই থাক, চোখের সামনে এই হামলার প্রভাব পড়েছে মনে। হামলার সময় এই মসজিদেই প্রার্থনা করতে আসছিলেন ক্রিকেটাররা। দেড় কিমি দূরের স্টেডিয়াম থেকে অনুশীলন সেরে প্রেস কানফারেন্সের পর রওনা হয়েছিলেন তাঁরা। তাতেই কয়েক মিনিট দেরি হয়েছিল। আর সেই কারণেই প্রাণে বেঁচে যান ক্রিকেটাররা।

ক্রাইস্টচার্চ হামলা নিয়ে এগুলো জানেন কি?

দলের ম্যানেজার খালেদ মাসুদ বলেওছেন যে মসজিদের থেকে মাত্র ৫০ গজ দূরে ছিলেন তাঁরা। মসজিদের ভিতর থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় আহতদের বেরিয়ে আসতে দেখেন তাঁরা। তা দেখে বাসের মধ্যে মাথা নীচু করে শুয়ে পড়েন তাঁরা। তারপর হ্যাগলি পার্ক স্টেডিয়ামে ঢুকে পড়েন তাঁরা। থাকেন ড্রেসিংরুমে। সেখান থেকে টিম হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁদের। দলের সবাই সুরক্ষিত আছেন বলে জানানো হয়। সঙ্গে সঙ্গে টেস্ট বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ক্রিকেটার, সাপোর্ট স্টাফরা অবশ্য দেশে ফেরার জন্য ছটফট করছিলেন। অবশেষে শনিবার তাঁরা ক্রাইস্টচার্চ থেকে দেশে ফেরার উড়ান ধরলেন। আতঙ্কের বাতাবরণ থেকে যা আনছে মুক্তি। 

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে ভারতের চার নম্বরে পন্টিং কাকে দেখতে চান জানেন?

আরও পড়ুন: ‘দেরি করো না’, কোহালিকে কেন বললেন ধো​নি

(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল, টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।)