• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মুম্বইয়ের কাছে হেরে আইপিএল অভিযান শেষ ধোনিদের

Ishan Kishan
দুরন্ত ব্যাটিং ঈশান কিষাণের। ছবি-সোশ্যাল মিডিয়া।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বোলারদের সামনে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ল চেন্নাই সুপার কিংসের ব্যাটিং। ২০ ওভারে তিন বারের চ্যাম্পিয়নরা করে ৯ উইকেটে ১১৪ রান। মুম্বই বোলারদের মধ্যে বোল্ট (৪-১৮), বুমরা (২-২৫) ও রাহুল চহার (২-২২) সফল। রান তাড়া করতে নেমে ১০ উইকেটে ম্যাচ জিতে নিল মুম্বই। ঈশান কিষাণ (৬৮) ও কুইন্টন ডি' কক (৪৬) অপরাজিত থেকে যান। টুর্নামেন্টের ইতিহাসে প্রথম বার ১০ উইকেটে ম্যাচ হারল চেন্নাই।

এ বারের আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল চেন্নাই ও মুম্বই। সেই ম্যাচ জিতেছিল ধোনির দল। শুক্রবার চেন্নাইকে বিধ্বস্ত করল মুম্বই। এ দিন হারের ফলে এ বারের টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকেই গেল চেন্নাই। অঙ্কের হিসেবে আশা বেঁচে  থাকলেও চেন্নাইয়ের পক্ষে প্লে অফে পৌঁছনো আর সম্ভব নয়। প্রতিবার প্লে অফে খেলে চেন্নাই। এ বার আর তা সম্ভব হল না। 

টস জিতে প্রথমে চেন্নাইকে ব্যাট করতে পাঠায় মুম্বই। রোহিত শর্মার জায়গায় এ দিন দলকে নেতৃত্ব দেন কেইরন পোলার্ড। আগের ম্যাচে বাঁ পায়ের হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়েছিলেন রোহিত। এখন রোহিত আগের থেকে অনেকটাই সুস্থ। কিন্তু টিম ম্যানেজমেন্ট তাঁকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে চায়নি। তাই মুম্বইকে নেতৃত্ব দেন পোলার্ড। রোহিতের জায়গায় প্রথম একাদশে জায়গা পান সৌরভ তিওয়ারি।

এ দিন প্রথম একাদশে একাধিক পরিবর্তন আনে চেন্নাই। শেন ওয়াটসন, কেদার যাদব, পীযূষ চাওলাকে দলের বাইরে রেখে নামে চেন্নাই। ইমরান তাহির, রুতুরাজ গায়কোয়াড় ও নারায়ণ জগদিসানকে সুযোগ দেওয়া হয়। দলে একাধিক পরিবর্তন এনেও সুবিধা করতে পারল না চেন্নাই। ব্যাটসম্যানদের মধ্যে একা লড়লেন স্যাম কারেন। শেষ পর্যন্ত তিনি ৫২ রানে আউট হন বোল্টের বলে। কারেন রান পাওয়ায় চেন্নাই ১১৪ রান করে। তিনি ও ইমরান তাহির ৪৩ রানের পার্টনারশিপ গড়ায় একশো পেরোতে পারল চেন্নাই। 

আরও পড়ুন: হৃদরোগে আক্রান্ত কপিল দেব, অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি হল দিল্লির হাসপাতালে

ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই বিপর্যয় নামে চেন্নাই শিবিরে। প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে রুতুরাজ গায়কোয়াড়কে (০) এলবিডব্লিউ করেন ট্রেন্ট বোল্ট। যশপ্রীত বুমরা তাঁর প্রথম ওভারেই অম্বতি রায়ুডু (২) ও জগদিসানকে (০) পর পর দু' বলে আউট করেন। দ্বিতীয় ওভারেই ব্যাট করতে নামেন ধোনি। চেন্নাই ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দু' প্লেসি রানের মধ্যে ছিলেন। তিনিও (১) ব্যর্থ এদিন। কুইন্টন ডি' ককের হাতে তালুবন্দি হন দু' প্লেসি।

পর পর দল যখন উইকেট হারাচ্ছে, তখন রবীন্দ্র জাদেজা ও ধোনির উপরে দায়িত্ব ছিল ইনিংস গড়ার।কিন্তু দিনটা ছিল মুম্বই বোলারদের। বোল্ট ফের আঘাত হানেন চেন্নাই শিবিরে। তাঁর বলে জাদেজার (৭) ক্যাচ ধরেন ক্রুনাল পাণ্ড্য। পাওয়ারপ্লেতেই পাঁচ উইকেট হারিয়ে প্রবল চাপে ছিল চেন্নাই। ম্যাচের রাশ শুরু থেকেই চলে এসেছিল মুম্বইয়ের হাতে। ধোনিরা কিছুতেই আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি। চেন্নাই সমর্থকরা ধরে নিয়েছিলেন অধিনায়ক হয়তো জ্বলে উঠবেন। ধোনিও ব্যর্থ হন। রাহুল চহারের বলে মাত্র ১৬ রানে আউট হন তিনি।দীপক চহারও (০) শিকার রাহুল চহারের। কুল্টার নাইলের বলে শার্দুল ঠাকুর (১১) ক্যাচ তুলে দেন সূর্যকুমার যাদবের হাতে। স্যাম কারেন একমাত্র রুখে দাঁড়ান মুম্বই বোলারদের বিরুদ্ধে। ইমরান তাহির অপরাজিত থেকে যান ১৩ রানে। এই ম্যাচ জিততে হলে চেন্নাই বোলারদের শুরু থেকেই উইকেট তুলতে হতো। কিন্তু ধোনির বোলাররা সমস্যায় ফেলতে পারেনি মুম্বইকে।ঈশান কিষাণ ও কুইন্টন ডি' ককের দাপটে ১২.২ ওভারে ১১৬ রান করে মুম্বই। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন