বিশ্বকাপের আগেই চোটের লাল চোখ দেখতে হয়েছে কেদার যাদবকে। চোটের জন্য বিশ্বকাপের আগে দুটো ওয়ার্ম আপ গেমে নামতে পারবেন না ভারতের এই অলরাউন্ডার।

একটি দৈনিকে এমনই খবর প্রকাশিত হয়েছে। সেই দৈনিকের রিপোর্ট অনুযায়ী, বিশ্বকাপে ভারতের দ্বিতীয় ম্যাচের আগে পুরোদস্তুর সুস্থ হয়ে উঠতে পারবেন না কেদার। আইপিএল চলাকালীন কাঁধে চোট পেয়েছিলেন তিনি। সামনে বিশ্বকাপ, সেই কারণেই আইপিএলের বাকি ম্যাচে তাঁকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল। শোনা যাচ্ছে, ম্যাচ ফিট হতে এখনও বেশ কয়েক দিন সময় লাগবে এই অলরাউন্ডারের। সুস্থ হয়ে উঠলেও কেদার যাদবকে ফিটনেস পরীক্ষা দিতে হবে। অলরাউন্ডারের ফিটনেসের দিকটা দেখছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের ফিজিও প্যাট্রিক ফারহাত। 

২০১৪ সালের নভেম্বরে অভিষেক ঘটে কেদার যাদবের। চার বছর আগের বিশ্বকাপ দলে জায়গা হয়নি তাঁর। ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঘরোয়া সিরিজে দারুণ ভাবে ফিরে এসেছিলেন কেদার। এ বারই প্রথম বার বিশ্বকাপ দলে ডাক পেয়েছেন তিনি।

আরও খবর: আইপিএলের ফ্লপ একাদশ, হেরোদের এই দলে তিন ভারতীয় বিশ্বকাপার

আরও খবর: বিশ্বকাপ কাঁপাতে ‘ভারতীয় ফর্মুলা’ই ভরসা গেইলের

কিন্তু আইপিএলে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের বিরুদ্ধে কাঁধে চোট পান কেদার। সেই চোটই এখন ভোগাচ্ছে তাঁকে। বিশ্বকাপে ভারতের প্রথম ম্যাচ ৫ জুন। সেই ম্যাচে বিরাট কোহালিদের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। পরের ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৯ জুন। কেদার যাদবই এখন কোহালির চিন্তা বাড়াচ্ছেন। শেষমেশ তিনি যদি পুরোদস্তুর ফিট না হতে পারেন, তা হলে স্ট্যান্ড বাই থেকে বিকল্প খুঁজে নেওয়া হবে। আর সে ক্ষেত্রে দলে সুযোগ পেতে পারেন ঋষভ পন্থ।