• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিরাট স্লেজিং করবেন না! বিশ্বাস হচ্ছে না জনসনের

Virat
চর্চায়: অবসরের পরেও জনসনের ‘বাউন্সার’ কোহালিকে। ফাইল চিত্র

Advertisement

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট থেকে স্লেজিং ও আগ্রাসন উধাও! এও আবার হয় না কি? অনেকে এই প্রশ্ন তুললেও এটাই বাস্তব। বল-বিকৃতি কেলেঙ্কারির পরে স্টিভ স্মিথের দেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে থেকে এই দুটো ব্যাপারই নাকি প্রায় উধাও হয়ে গিয়েছে। যে অস্ট্রেলিয়া এক সময় মাঠে বিপক্ষকে উত্যক্ত করে মারত বলে অভিযোগ উঠেছে বরাবর, সেই অস্ট্রেলিয়া এখন এ সব বাদ দিয়ে শুধু ক্রিকেটে মন দিয়েছে, এটা ভাবাই বেশ কষ্টকর। 

শুক্রবারই অস্ট্রেলিয়ায় রওনা হওয়া ভারতীয় দলের কাছে এটা ভাল খবর হতে পারে। তবে সদ্য যারা অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট দলের এই নতুন রূপ দেখার অভিজ্ঞতা অর্জন করল, সেই দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ফ্যাফ ডুপ্লেসি বলছেন, এই অচেনা অস্ট্রেলিয়াকে দেখে তাঁর কিছুটা হলেও অস্বস্তি হয়েছে। সদ্য তিনটি ওয়ান ডে ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দেওয়া ডুপ্লেসি বলেন, ‘‘অনেক বদলে গিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট। মাঠে বিপক্ষকে উত্যক্ত করার প্রবণতা ওদের আগের চেয়ে অনেক কম।’’ বছরের শুরুতে দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়েই অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা তাদের চরম আগ্রাসী রূপ দেখিয়েছিল বলেই দুই মেজাজের তফাতটা খুব ভাল ভাবে টের পাচ্ছেন ডুপ্লেসি। ব্রিসবেনে সিরিজের একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচে খেলতে নামার আগের দিন। তিনি বলেন, ‘‘ওখানে যা হয়েছিল, তার তুলনায় এখন ওরা অনেক নরম। মাঠে আগের মতো আর বেশি কথা বলে না ওরা। বরং ক্রিকেটের মাধ্যমে নিজেদের বেশি প্রকাশ করার চেষ্টা করছে। ক্রিকেটটা সাধারণত যে রকম হয়, সে রকমই হচ্ছে এখানে।’’

কিন্তু একে স্বাগত জানাতে রাজি নন ডুপ্লেসি। তিনি বরং বলছেন, ‘‘এটা ঠিকই যে নিয়মের মধ্যে থেকেই সব কিছু করা উচিত। কিন্তু সেটা করতে গিয়ে যদি ক্রিকেটারদের নিজেদের স্বাভাবিক প্রবৃত্তিগুলো একেবারে দূরে সরিয়ে দিতে হয়, তা হলে তার প্রভাব তো পারফরম্যান্সে পড়তেই পারে।’’ ডুপ্লেসি হয়তো পরোক্ষে বলতে চাইছেন, টিম পেইনদের সাম্প্রতিক ব্যর্থতার কারণ কিছুটা হলেও তাঁদের এই স্বভাব বদল। দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক এ দিন আবার বলেছেন, অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরে তিিন এই ফর্ম্যাটের আন্তর্জাতিক ম্যাচ থেকে অবসর নিতে পারেন।

(ইতিহাসের পাতায় আজকের তারিখ, দেখতে ক্লিক করুন — ফিরে দেখা এই দিন।) 

ক্রিকেটে স্লেজিং বন্ধ হওয়াটা যে মানতে পারছেন না তাঁদের প্রাক্তন তারকা পেসার মিচেল জনসনও, তা তাঁর সাম্প্রতিক টুইটেই স্পষ্ট। ২০১৪-য় মেলবোর্ন টেস্টে বিরাট কোহালিকে  বল ছুড়ে বিতর্কে জড়ান জনসন। সেই আগ্রাসী পেসার ফক্স স্পোর্টসের এক টুইটের জবাবে লেখেন, ‘‘স্লেজিং বন্ধ হলে তো বিরাটের সেই আগ্রাসী বিদায় দেওয়ার দৃশ্যও দেখতে পাচ্ছি না।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন