বিরাট কোহালিদের নতুন কোচ হওয়ার আবেদনপত্র পাঠিয়ে দিলেন রবি শাস্ত্রী।

গত বছর শাস্ত্রীকে সরিয়েই অনিল কুম্বলেকে কোচ বেছে নিয়েছিল তিন সদস্যের ক্রিকেট অ্যাডভাইসরি কমিটি। তিন প্রাক্তন ক্রিকেটার রয়েছেন সেই কমিটিতে। সচিন তেন্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং ভি ভি এস লক্ষ্মণ। এ বারও এই কমিটির হাতে কোচ নির্বাচনের দায়িত্ব ছেড়েছে ভারতীয় বোর্ড। 

এর আগে সাফল্যের সঙ্গে আঠেরো মাস কোহালিদের টিম ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করেছেন শাস্ত্রী। সেটা তাঁকে অনেকের থেকে এগিয়ে রাখতে পারে। মাঠের মধ্যে কোহালিদের পারফরম্যান্সে তফাত ঘটানোর পাশাপাশি ড্রেসিংরুমেও সুন্দর আবহ গড়ে তুলতে পেরেছিলেন শাস্ত্রী। এক বোর্ড কর্তা যেমন বলছিলেন, ‘‘রবি শাস্ত্রী ডিরেক্টর থাকাকালীন টিমের মধ্যে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। কোনও সঙ্ঘাত ছিল না টিমের মধ্যে। কোচ বনাম অধিনায়ক কোনও ব্যক্তিত্বের সঙ্ঘাত ঘটেছে বলে কখনও শোনা যায়নি।’’   

আরও খবর: ভারতীয় দলের ম্যানেজারের রিপোর্ট বিসিসিআই-এর হাতে

তবে আগের বারের সঙ্গে এ বারের তফাত, ভারতীয় দল এবং শীর্ষস্থানীয় বোর্ড কর্তাদের বক্তব্যও প্রাধান্য পেতে পারে। সেই কারণেই আরও শাস্ত্রী হট ফেভারিট প্রার্থী হিসেবে উঠে আসছেন। কোহালি এবং ভারতীয় দলের সদস্যরা শাস্ত্রীকে ফেরত পেতে চান। তাঁর ম্যান ম্যানেজমেন্ট স্কিলও ভাল। প্রাক্তন তারকা হলেও অধিনায়ক বা সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে কখনও ব্যক্তিত্বের সঙ্ঘাত বাধেনি।

শাস্ত্রী এখনও লন্ডনে ছুটি কাটাচ্ছেন। তাঁর সঙ্গে অনেক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেএ পাওয়া যায়নি। তবে বিশ্বস্ত সূত্রে নিশ্চিত ভাবেই খবর পাওয়া গিয়েছে যে, তিনি বেশ কয়েক দিন আগেই আবেদনপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন। 

বোর্ড আবেদনপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময়সীমা রেখেছে ৯ জুলাই। ১০ জুলাই ‘শর্টলিস্ট’ হওয়া প্রার্থীদের ডাকা হবে ইন্টারভিউতে। বলার অপেক্ষা রাখে না যে, কোচের পদ হারানোর এক বছরের মধ্যে ইন্টারভিউতে ফের ফেভারিট হিসেবে আসতে চলেছেন শাস্ত্রী। 

কোচহীন এই ভারতীয় দল এখন খেলছে ওয়েস্ট ইন্ডিজে। ছবি: এএফপি। 

ভারতীয় কোচের পদের জন্য যে আবেদন করবেন, তা আগেই প্রকাশিত হয়েছিল। তবু অনিশ্চয়তা এবং জল্পনা চলছিল। সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিরাট কোহালিদের নতুন কোচ হওয়ার জন্য আবেদনপত্রও পাঠিয়ে দিলেন রবি শাস্ত্রী। সরকারি ভাবে আবেদনপত্র জমা পড়ে যাওয়ায় শাস্ত্রীই যে এখন হট ফেভারিট প্রার্থী হয়ে গেলেন, তা নিয়ে সন্দেহ নেই।  

ভারতীয় বোর্ডের প্রাথমিক বাছাই তালিকায় ভারতীয় প্রার্থীদের মধ্যে বীরেন্দ্র সহবাগ আছেন। লালচাঁদ রাজপুত আছেন। বিদেশিদের মধ্যে আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের মেন্টর টম মুডি এবং পাকিস্তানের কোচের দায়িত্ব সামলানো রিচার্ড পাইবাস আছেন। শোনা যাচ্ছে, প্রাক্তন ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার ফিল সিমন্স আবেদন করেছেন। ৯ জুলাইয়ের মধ্যে আরও দু’একজন আবেদন করতে পারেন বলে বোর্ড মহলে কেউ কেউ আশা করছেন। তার পর সৌরভদের কমিটি ১০ জুলাই ইন্টারভিউ নিয়ে সে দিনই জানিয়ে দেবে তাঁদের পছন্দের নাম।

তবে তারও আগে কোহালি টিমের পক্ষ থেকে তাঁদের পছন্দের কথা জানিয়ে দিতে পারেন বলেও মনে করা হচ্ছে। কেউ কেউ বলছেন, ইতিমধ্যেই সচিন তেন্ডুলকরের কাছে তাঁদের পছন্দের কথা জানিয়ে রেখেছেন বর্তমান ভারত অধিনায়ক। আর ওয়াকিবহাল মহলের মত হচ্ছে, কোহালির বলা পছন্দের সেই নাম প্রাক্তন ডিরেক্টর রবি শাস্ত্রী-ই।