• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কেন নিলামের আগেই দিল্লি ক্যাপিটালস নিল রাহানে-অশ্বিনকে? ফাঁস করলেন পন্টিং...

R Ashwin, Ajinkya Rahane
ফিরোজ শাহ কোটলায় কাজে আসবেন রাহানে-অশ্বিন, এমনই বিশ্বাস দিল্লি ক্যাপিটালসের কোচ পন্টিংয়ের।

আইপিএলে শেষ মরসুমে সেরা ছন্দে দেখা যায়নি রবিচন্দ্রন অশ্বিনঅজিঙ্ক রাহানেকে। তবু কিংস ইলেভেন পঞ্জাব  ও রাজস্থান রয়্যালস থেকে অশ্বিন-রাহানেকে নিলামের আগেই দলে নিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস।

অশ্বিন-রাহানের কেউই ওভারের ফরম্যাটে দেশের হয়ে এখন নিয়মিত নন। দু’জনেই খেলেন টেস্টে। রাহানে দলের সহ-অধিনায়ক। আর অশ্বিন দলের সফলতম স্পিনার। সাদা বলের ক্রিকেটে খুব বেশি খেলার মধ্যেও নেই দু’জনে। বরং লাল বলের ক্রিকেটেই প্রধানত দাপট দেখান এই দুই ক্রিকেটার। এই পরিস্থিতিতে আইপিএলে কেন নেওয়া হল দু’জনকে, স্বাভাবিক ভাবেই উঠছে প্রশ্ন।

গতি কমে গিয়েছে বলায় টুইটারে তীব্র কথা কাটকাটি আর্চার-বেস্টের! আরও পড়ুন

দিল্লি ক্যাপিটালসের কোচ রিকি পন্টিং অবশ্য জানিয়েছেন ঘরের মাঠ ফিরোজ শাহ কোটলার পিচ এই দুই ক্রিকেটারের ক্ষেত্রে সহায়ক হয়ে উঠতে পারে বলে মনে করছেন তাঁরা। আর সেই কারণেই নেওয়া হয়েছে তাঁদের। পন্টিংয়ের কথায়, “ওরা দু’জন এমন ধরনের ক্রিকেটার, যাঁদের কোটলার পিচে ভাল করার সম্ভাবনা বেশি। তা ছাড়া দু’জনের অগাধ অভিজ্ঞতাও রয়েছে। গত কয়েক মাসে আমরা এটা নিয়ে অনেক আলোচনাও করেছি। যাতে এ বার প্রস্তুতিতে কোনও ফাঁকি না থাকে, সেদিকে লক্ষ্য রেখেছি।”

আইপিএলের নিলামে কী হবে দিল্লি ক্যাপিটালসের পরিকল্পনা? পন্টিং বলেছেন, “জোরে বোলারদের দিকে আমাদের নজর থাকবে। বিশেষ করে বিদেশি জোরে বোলারদের দিকে। প্যাট কামিংসের জন্য দর উঠতে পারে। ক্রিস ওকসের জন্যও তাই। আমার কাছে অলরাউন্ডাররাও খুব আকর্ষণীয়। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টোয়নিস, মিচেল মার্শ, জিমি নিশাম, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমিদের জন্যও উঠতে পারে দর। নিলামে যাওয়ার আগে নিশ্চিত হতে হবে যে ঠিক কেমন ক্রিকেটার দরকার।”

টেস্টের পর একেবারে ‘চহাল টিভি’-তে ডেবিউ করলেন এই ভারতীয় ওপেনার! আরও পড়ুন

তবে দিল্লির যে টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের প্রয়োজন নেই, তা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন পন্টিং। কোচের কথায়, “আমাদের দলে তিনজন ওপেনার রয়েছে। তাই আর ওপেনারের দরকার নেই। প্রথম এগারোয় কোথায় সমস্যা রয়েছে, সেটা চিহ্নিত করতে হবে আমাদের।” গত মরসুমে আইপিএলের প্লেঅফে চেন্নাই সুপার কিংসের কাছে হেরে বিদায় নিতে হয়েছিল। সেই প্রসঙ্গে পন্টিং বলেছেন, “ওটা খুব হতাশাজনক ছিল। তবে আমরা দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছিলাম। প্রতিযোগিতা শেষ হওয়ার সাত-আট মাস পরেও কখনও কখনও মনে হয়, আমরাই ছিলাম সেরা দল।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন