চোট যেন পিছু ছাড়ছে না ঋদ্ধিমান সাহার। সোমবার রাঁচীতে চায়ের বিরতির পর বাঁ হাতের বুড়ো আঙুলে চোট পেলেন তিনি। যার জন্য মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যেতে হল তাঁকে। পরিবর্ত কিপার হিসেবে মাঠে এলেন ঋষভ পন্থ।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্টের তৃতীয় সেশনে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বলে কিপিং করার সময় চোট পান ঋদ্ধি। দেখে বোঝাই যাচ্ছিল যে যন্ত্রণা হচ্ছে। আর তাই ফিজিয়ো নীতিন প্যাটেলের সঙ্গে ড্রেসিংরুমে ফিরে আসেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় ইনিংসের ২৬.১ ওভারে এই ঘটনা ঘটে। তখন থেকে কিপিংয়ের দায়িত্ব পালন করছেন ঋষভ পন্থ। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড টুইট করে এর আপডেটও দেয়। পরে টিভিতে দেখা যায় ড্রেসিংরুমে বসে রয়েছেন ঋদ্ধি। ক্রিকেটপ্রেমীরা আশা করছেন তাঁর চোট যেন গুরুতর না হয়।

প্রসঙ্গত, গত বছরের শুরুতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে পাওয়া চোটের জন্য দীর্ঘদিন বাইরে ছিলেন ঋদ্ধি। অস্ত্রোপচার, রিহ্যাবের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে লেগে গিয়েছে দেড় বছরেরও বেশি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চলতি সিরিজের প্রথম টেস্টে প্রত্যাবর্তন ঘটে তাঁর। আর ফিরেই ঋদ্ধি নিজেকে প্রমাণ করেন। দেখান যে তাঁর কিপিংয়ের স্কিল একই রকম ধারালো রয়েছে। ক্রিকেটমহল উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠে ‘সুপারম্যান সাহা’র প্রশংসায়। ফের চোট পেলেন বলেই উদ্বেগ বাড়ছে।

আরও পড়ুন: ১১ দাবি শাকিবদের, না মানলে ধর্মঘটের ডাক, অনিশ্চিত ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজ

আরও পড়ুন: হোয়াইটওয়াশ করতে মঙ্গলবার কোহালিদের চাই আর মাত্র দুই উইকেট

এদিন ভারতীয় দলের মতো চোটের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকাও বাধ্য হল পরিবর্ত ক্রিকেটারের সাহায্য নিতে। প্রোটিয়াদের দ্বিতীয় ইনিংসের নবম ওভারে উমেশ যাদবের বল হেলমেট লেগেছিল ওপেনার ডিন এলগারের। তিনি বেরিয়ে আসেন চোটের জন্য। আর ব্যাট করতে নামেননি এলগার। ৬৭ রানে ছয় উইকেট পড়ার পর নয় নম্বরে থেউনিস দি ব্রুইন নামেন ‘কনকাসন’ পরিবর্ত হিসেবে।