Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পাক-বয়কট নিয়ে সেই কট্টর গম্ভীর

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৯ মার্চ ২০১৯ ০৩:৩০
অনড়: পাকিস্তান নিয়ে দ্রুত সিদ্ধান্তের পক্ষে গম্ভীর। ফাইল চিত্র

অনড়: পাকিস্তান নিয়ে দ্রুত সিদ্ধান্তের পক্ষে গম্ভীর। ফাইল চিত্র

পাকিস্তান বিরোধিতার প্রশ্নে তিনি অনড়। প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার গৌতম গম্ভীর জানিয়ে দিলেন, সার্বিক ভাবে পাকিস্তানের সঙ্গে ক্রিকেটীয় সম্পর্ক ছেদ করা হবে না কি তাদের সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা হবে, তা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এ বার নিতে হবে ভারতীয় বোর্ডকেই।

পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় ৪০জন সিআরপিএফ জওয়ানের নিহত হওয়ার ঘটনার পরে দু’দেশের সম্পর্কে ভয়ঙ্কর অবনতি ঘটে। ভারতীয় বোর্ড জানিয়ে দেয়, বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে বয়কট করা হোক। সচিন তেন্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, হরভজন সিংহের মতো প্রাক্তন ক্রিকেটারেরা জানিয়ে দেন, বিশ্বকাপে পাকিস্তান ম্যাচ খেলা উচিত নয় ভারতের। এমনকী রাঁচীতে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে জওয়ানদের সম্মান জানাতে ফৌজি টুপি পরে খেলতে নেমেছিলেন বিরাট কোহালিরা।

কিন্তু বিশ্বকাপে যে আগের সূচি অনুযায়ী ভারত-পাক ম্যাচ হবে, তা স্পষ্ট করে দিয়েছে আইসিসি। সোমবার এক অনুষ্ঠানে সেই প্রসঙ্গ টেনে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার বলেছেন, ‘‘শর্তসাপেক্ষে নির্বাসন বলে কিছু হতে পারে না। হয় আমরা পাকিস্তানকে বয়কট করব অথবা তাদের সঙ্গে সমস্ত প্রতিযোগিতাতেই খেলব। পুলওয়ামায় যা হয়েছে, তা কোনও অবস্থাতেই গ্রহণযোগ্য নয়।’’ গম্ভীর আরও বলেছেন, ‘‘আইসিসি-র প্রতিযোগিতাগুলিতে পাকিস্তানকে বয়কট করা যে কঠিন হবে, সেটা আমিও জানি। কিন্তু আমরা এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে না খেলার সিদ্ধান্ত নিতে পারি। যদিও আমি এখনও মনে করি, পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও রকম ক্রিকেটীয় সম্পর্ক রাখা উচিত নয় ভারতের।’’ আইসিসি-র কাছে পাঠানো চিঠিতে পাকিস্তানের নাম না করে ভারতীয় বোর্ড এই আবেদনও জানিয়েছিল, যে সমস্ত দেশ সন্ত্রাসবাদকে প্রশ্রয় দেয়, তাদের বাতিল করা হোক। সেই দাবি অবশ্য খারিজ করে দেয় আইসিসি। গম্ভীর সেই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে উদাহরণ টেনেছেন ২০০৩ বিশ্বকাপের। সে বার প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি রবার্ট মুগাবের অত্যাচারের প্রতিবাদ জানিয়ে জিম্বাবোয়ে ম্যাচ বয়কট করেছিল ইংল্যান্ড। গম্ভীর বলেছেন, ‘‘বিশ্বকাপের মঞ্চে দাঁড়িয়ে ইংল্যান্ড যদি জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচ বয়কট করতে পারে, তা হলে ভারতে কেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বয়কট করতে পারে না? ভারতীয় বোর্ডের সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত ছিল। আমি মনে করি, বোর্ড সেই নির্দেশ দিলে ভারতীয় দলের সমস্ত ক্রিকেটার দু’পয়েন্ট পাকিস্তানকে ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে মানসিক ভাবে প্রস্তুত হয়ে যেত।’’ বরং এক ধাপ এগিয়ে গম্ভীর দাবি করেছেন, ‘‘তাতে যদি আমরা সেমিফাইনালে না উঠতে পারতাম, তা হলে কেউ ভারতীয় দলকে দোষারোপ করতেন না।’’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement