Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: মেসির জোড়া গোলে শেষ আটে বার্সেলোনা

শুরুতেই এগিয়ে গিয়ে আক্রমণে ঝাঁঝ বাড়ায় বার্সা। যার ফল ২০ মিনিটে ২-০ গোলে এগিয়ে যান মেসিরা। প্রথম গোলের পর এ বার দ্বিতীয় গোলের পিছনে ভূমিকা র

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৫ মার্চ ২০১৮ ১৬:০৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
গোলের পর লিওনেল মেসি। ছবি: এএফপি।

গোলের পর লিওনেল মেসি। ছবি: এএফপি।

Popup Close

বার্সেলোনা ৩ (মেসি-২, দেমবেলে) : চেলসি ০

মোট গোল: ৪-১

ছোট্ট ছুটি কাটিয়ে ফিরেই বাজিমাত তাঁর। তিনি লিও মেসি। ঘরের মাঠে ফিরতি লেগের ম্যাচে শুরুতেই বাজিমাত করলেন ফুটবলের রাজপুত্র। ম্যাচ সবে শুরুই হয়েছিল। সকলে গুছিয়েও বসতে পারেননি গ্যালারিতে। যদিও ম্যাচ শুরুর অনেক আগে থেকেই ভরে গিয়েছিল ন্যু ক্যাম্প। উঠছিল মেসি মেসি চিৎকার। সামনে চেলসি। ঘরের মাঠ। প্রথম লেগের ম্যাচে চেলসির ঘরের মাঠে ম্যাচ ১-১ গোলে শেষ হয়েছিল। সমানে সমানে অবস্থাতেই আবার মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। কিন্তু শুরু থেকে শেষ, ম্যাচের উপর দাপট রেখে গেল বার্সেলোনা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গোলের সেঞ্চুরিটিও করে ফেললেন লিও।

Advertisement

ম্যাচের বয়স তখন সবে ৩ মিনিট। দ্রুত চেলসি বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন মেসি। দেমবেলের সঙ্গে ছোট্ট পাস খেলেই বল আলোন্সোর গায়ে ধাক্কা খেয়ে চলে গিয়েছিল সুয়ারেজের কাছে। সেই চলতি বলেই সুয়ারেজের ফ্লিকে বল আবার ফিরে আসে মেসির কাছে। মেসির শট চেলসি গোলকিপার কোর্তোয়েসের পায়ের ফাঁক গলে চলে যায় গোলে। শুরুতেই এগিয়ে যায় বার্সেলোনা।

শুরুতেই এগিয়ে গিয়ে আক্রমণে ঝাঁঝ বাড়ায় বার্সা। যার ফল ২০ মিনিটে ২-০ গোলে এগিয়ে যান মেসিরা। প্রথম গোলের পর এ বার দ্বিতীয় গোলের পিছনে ভূমিকা রেখে গেলেন মেসি। কাউন্টার অ্যাটাকে মাঝমাঠে ফ্যাব্রিগাসের পা থেকে ছিটকে আসা বল পেয়ে গিয়েছিলেন মেসি। সেখান থেকেই দৌড় শুরু। ক্রিস্টেনসেন ও আজপিলিকুয়েতাকে কাটিয়ে পৌঁছে গিয়েছিলেন বক্সের কাছে। সেখান থেকেই দেমবেলেকে লক্ষ্য করে বল সাজিয়ে দিয়েছিলেন মেসি। দেমবেলে সেই বলই গোলকিপারের মাথার উপর দিয়ে গোলে পাঠান।

আরও পড়ুন

দুর্দশার ম্যান ইউ, পতন চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও

প্রথমার্ধেই অ্যাওয়ে ম্যাচে ০-২ গোলে পিছিয়ে পড়া চেলসি কোথায় সর্ব শক্তি নিয়ে ঝাঁপাবে বলেই ভাবা হয়েছিল। কিন্তু তেমনটা হল না। বরং যেখানে শেষ করেছিল বার্সা সেখান থেকেই দ্বিতীয়ার্ধ শুরু করল মেসিরা। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ইনিয়েস্তাকে তুলে পলিনহোকে মাঠে নামান বার্সেলোনা কোচ। কয়েক মিনিটের মধ্যেই বুস্কেটসকে তুলে নিয়ে আসেন গোমেসকে। এর পরই ৩-০ করেন আবার সেই মেসি। এ বারও সেই সুয়ারেজের পাস থেকে। চেলসির তরফে বলার মতো কিছুই নেই। ম্যাচ শেষের এক মিনিট আগে রুডিগারের শট ক্রসবারে লেগে ফেরা ছাড়া। ম্যাচ শেষে মেসির প্রশংসা শোনা গেল বার্সা কোচের মুখেও।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement