Advertisement
১৭ জুন ২০২৪
South Africa T20 League

আইপিএলের প্রথম ১০ পেয়েছিল প্রায় ১১৫ কোটি, দক্ষিণ আফ্রিকার টি২০ লিগে পেল মাত্র ২৫ কোটি

দক্ষিণ আফ্রিকার টি-টোয়েন্টি লিগে দর উঠল না আইপিএলের মতো। কোনও ক্রিকেটার পাঁচ কোটি টাকাও পেলেন না। আইপিএলে সব থেকে বেশি দর পেয়েছিলেন ঈশান কিশন। তিনি পেয়েছিলেন ১৫ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা।

আইপিএলের মতো দর উঠল না ক্রিকেটারদের।

আইপিএলের মতো দর উঠল না ক্রিকেটারদের। —ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:২১
Share: Save:

আইপিএলের ধাঁচে দক্ষিণ আফ্রিকায় টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা। আইপিএলের বিভিন্ন দলের মালিকরাই দল কিনেছেন সেখানে। নিলামের মাধ্যমে ক্রিকেটার কেনাও হল। ছ’দলের সেই লিগে যদিও আইপিএলের মতো দর পেলেন না ক্রিকেটাররা।

দক্ষিণ আফ্রিকা লিগে সব থেকে বেশি দাম পেলেন ট্রিস্টিয়ান স্টাবস। সানরাইজার্স ইস্টার্ন কেপ কিনেছে তাঁকে। তাঁকে কেনা হয়েছে ৪ কোটি ১৩ লক্ষ টাকায়। এ বছর আইপিএলের নিলামে সব থেকে বেশি দামে বিক্রি হন ঈশান কিশন। তাঁর দাম উঠেছিল ১৫.২৫ কোটি টাকা। আইপিএল নিলামে প্রথম ১০ ক্রিকেটারের দাম উঠেছিল প্রায় ১১৫ কোটি টাকা। দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম ১০ ক্রিকেটারের দাম উঠল প্রায় সাড়ে ২৪ কোটি টাকা।

নিলামে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন রিলি রোসৌ। তিনি পেয়েছেন ৩ কোটি ১০ লক্ষ টাকা। তাঁকে কিনেছে প্রিটোরিয়া ক্যাপিটালস। তৃতীয় স্থানে মার্কো জানসেন। যাঁকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে রাখা হয়নি। বাঁহাতি পেসার পেলেন ২ কোটি ৭৪ লক্ষ টাকা। তাঁকে দলে নিয়েছে সানরাইজার্স ইস্টার্ন কেপ। ওয়েন পারনেল পেয়েছেন ২ কোটি ৫১ লক্ষ টাকা। দক্ষিণ আফ্রিকার এই অলরাউন্ডারকে কিনেছে প্রিটোরিয়া ক্যাপিটালস।

ভারতের কোনও ক্রিকেটার এই লিগে অংশ নেননি। আইপিএলের নিলামে দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন দীপক চাহার। চেন্নাই সুপার কিংস তাঁকে কিনেছিল ১৪ কোটি টাকায়। কলকাতা নাইট রাইডার্স শ্রেয়স আয়ারকে কেনে ১২ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা দিয়ে। তৃতীয় স্থানে ছিলেন তিনি। ১০ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা পেয়েছিলেন হর্ষল পটেল, নিকোলাস পুরান, ওয়ানিন্দু হাসরঙ্গ এবং শার্দূল ঠাকুর।

দক্ষিণ আফ্রিকার টি-টোয়েন্টি লিগে দামের বিচারে পঞ্চম স্থানে সিসান্দা মাগালা। তিনি পেয়েছেন ২ কোটি ৪২ লক্ষ টাকা। হেনরিখ ক্লাসেন পেয়েছেন ২ কোটি ২ লক্ষ টাকা। তাঁকে কেনে ডারবান সুপার জায়ান্টস। রিজা হেন্ড্রিক্সও একই দর পেয়েছেন। স্পিনার তাবরাইজ শামসি পেয়েছেন ১ কোটি ৯৩ লক্ষ টাকা। পার্ল রয়্যালস কিনেছে তাঁকে। ডোয়েন প্রিটোরিয়াস পেয়েছেন ১ কোটি ৮৪ লক্ষ টাকা। তাঁকে কিনেছে ডারবান সুপার জায়ান্টস। দশম স্থানে রসি ভান ডার ডুসেন। তিনি পেয়েছেন ১ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা। তাঁকে কিনেছে এমআই কেপ টাউন।

আইপিএলের নিলামে ১০ কোটি টাকা পেয়েছিলেন প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ, লকি ফার্গুসন এবং আবেশ খান। আইপিএলে প্রথম ১০ জনের দামই ছুঁতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা টি-টোয়েন্টি লিগের সর্বোচ্চ দর পাওয়া ট্রিস্টিয়ান স্টাবস।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE