Advertisement
০৫ মার্চ ২০২৪
ICC ODI World Cup 2023 Final

বিশ্বকাপ ফাইনালে মোদীর সঙ্গে করমর্দনের পর মঞ্চে ১০ মিনিট একা অসি নেতা, ১৬ দিনে মুখ খুললেন সতীর্থ

বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে পাওয়ার পর কয়েক মিনিট মঞ্চে একা দাঁড়িয়েছিলেন কামিন্স। সে সময় তাঁকে কিছুটা অপ্রস্তুত, বিভ্রান্ত মনে হচ্ছিল দেখে। সেই পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খুলেছেন ম্যাক্সওয়েল।

picture of ICC ODI world cup

কামিন্সের হাতে বিশ্বকাপ ট্রফি তুলে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
শেষ আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩ ২২:০৭
Share: Save:

বিশ্বকাপ ফাইনালে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের সেই দৃশ্য এখনও মনে আছে ক্রিকেটপ্রেমীদের। বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে পাওয়ার পর বেশ কিছু ক্ষণ মঞ্চে একা দাঁড়িয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। তাঁকে কিছুটা অপ্রস্তুত, বিভ্রান্ত দেখাচ্ছিল। সেই মুহূর্তে কী করা উচিৎ যেন বুঝতে পারছিলেন না কামিন্স। অথচ একটু দূরেই তাঁর সতীর্থেরা অপেক্ষা করছিলেন বিশ্বকাপ ট্রফি নিয়ে উচ্ছ্বাসে মাতবেন বলে। সেই পরিস্থিতি নিয়ে ১৬ দিন পর মুখ খুললেন অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দলে থাকা অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অস্ট্রেলিয়ার উপপ্রধানমন্ত্রী রিচার্ড মার্লেকে নিয়ে মঞ্চে উঠেছিলেন কামিন্সের হাতে বিশ্বকাপ তুলে দেওয়ার জন্য। বিশ্বজয়ী অধিনায়কের সঙ্গে দু’জনে করমর্দন করার পর তাঁর হাতে বিশ্বকাপ ট্রফি তুলে দেন মোদী। তার পরের ১০ মিনিটের কথা বলেছেন ম্যাক্সওয়েল।

কী হয়েছিল সেই ১০ মিনিটে? সে সময় চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্যদের সঙ্গে করমর্দন করছিলেন দুই রাষ্ট্রনেতা। তাই সৌজন্যের খাতিরে সেখানে যেতে পারছিলেন না কামিন্স। আবার সতীর্থদের কাছে যাওয়ার তর সইছিল না তাঁর। সে সময় কামিন্সের অবস্থার কথা বলেছেন ম্যাক্সওয়েল।

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চেন্নাইয়ের জামাই বলেছেন, ‘‘ফাইনালের পর পুরস্কার দেওয়ার ওই অংশের ভিডিয়োটা দেখলে বেশ মজা লাগছে। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে হাত মেলানোর পর কামিন্সকে খানিক ক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে হয়েছিল। ১০ মিনিট ধরে কামিন্স ট্রফি নিয়ে মঞ্চে অপেক্ষা করেছিল। জানি সে সময় আমাদের কাছে ওর আসতে ইচ্ছা করছিল। তবু সৌজন্য বজায় রেখেছিল। দারুন ভাবে পরিস্থিতি সামলেছিল। কামিন্স হয়তো ভাবছিল, সম্মান বজায় রাখতে মঞ্চে অপেক্ষা করাই ভাল। তবে বলতে পারি অন্য কেউ হলে কিন্তু ওর মতো আচরণ করত না।’’

সেই পরিস্থিতি সামলানোর জন্য ম্যাক্সওয়েল কৃতিত্ব দিয়েছেন কামিন্সের শান্ত স্বভাব, ভদ্রতা বোধ এবং ধৈর্য্যকে। তিনি বোঝাতে চেয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ার অন্য কোনও ক্রিকেটার হলে বিশ্বকাপ হাতে নিয়ে হয়তো ও ভাবে একা মঞ্চের উপর দাঁড়িয়ে থাকতেন না। সঙ্গে সঙ্গে সতীর্থদের সঙ্গে উচ্ছ্বাসে মেতে উঠতেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE