Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

India Cricket: ওমিক্রনের ভয়ে গ্রামে রাখা হয় ঈশ্বরনদের

দক্ষিণ আফ্রিকা ‘এ’ দলের সঙ্গে প্রথম টেস্ট হওয়ার পরেই ওমিক্রন হানায় বাড়তে থাকে আক্রান্তের সংখ্যা।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১২ ডিসেম্বর ২০২১ ০৫:৫৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
অভিমন্যু ঈশ্বর।

অভিমন্যু ঈশ্বর।
—ফাইল চিত্র।

Popup Close

সেঞ্চুরিয়নে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট খেলতে নামবে ভারত। যেখানে নতুন করোনাভাইরাস ওমিক্রনের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে বিভিন্ন প্রান্তে। সে দেশ থেকেই ভারতীয় ‘এ’ দলের হয়ে বেসরকারি টেস্ট সিরিজ় খেলে দেশে ফিরলেন বাংলার ঈশান পোড়েল ও অভিমন্যু ঈশ্বরন। সে দেশের এই মুহূর্তের পরিস্থিতির ছবিও তুলে ধরলেন আনন্দবাজারের সামনে।

দক্ষিণ আফ্রিকা ‘এ’ দলের সঙ্গে প্রথম টেস্ট হওয়ার পরেই ওমিক্রন হানায় বাড়তে থাকে আক্রান্তের সংখ্যা। পরিস্থিতি এতটাই জটিল হয়ে যায় যে, দ্বিতীয় ম্যাচের আগেই সিরিজ় বাতিল হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। ঈশান, ঈশ্বরনদের ব্লুমফন্টিন শহরের মধ্যে কোনও হোটেলে না রেখে গ্রামের মধ্যে একটি রিসর্টে রাখা হয়। যেখানে একটি বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া সে রকম জনবসতি ছিল না। ক্রিকেটারেরা যাতে কোনও ভাবেই এই ভাইরাসে আক্রান্ত না হন, তার জন্য বাড়িয়ে দেওয়া হয় জৈব সুরক্ষা বলয়ের সতর্কতাও।

ঈশান পোড়েল বলছিলেন, ‘‘ঘর থেকে ডিনার করতে যাওয়ার সময় দু’টো মুখাবরণ পরতেই হত। বাইরে থেকে খাবার আনাও বন্ধ করে দিতে হয়েছিল। কোনও কিছু বাইরে থেকে আনা যাবে না, এমনই নির্দেশ ছিল প্রত্যেকের উপরে।’’ যোগ করেন, ‘‘হোটেলের মধ্যে প্রাণ খুলে ঘোরাফেরা করা যেত না। আইপিএলের বলয়ের চেয়ে অনেক বেশি কড়াকড়ি ছিল এই সফরে।’’

Advertisement

ঈশান, ঈশ্বরনেরা ভেবেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফিরে রাজ্য দলের হয়ে বিজয় হজারে ট্রফিতে খেলতে নামবেন। কিন্তু সেই ইচ্ছাপূরণ হচ্ছে না। দক্ষিণ আফ্রিকার জৈব সুরক্ষা থেকে রাজ্য দলের বলয়ে তাঁদের সরাসরি প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। অন্তত সাত দিন কোয়রান্টিনে থাকতে হবে তাঁদের।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement