Advertisement
০২ মার্চ ২০২৪
Jasprit Bumrah

চোট সারাতে শেষ পর্যন্ত ভরসা অস্ত্রোপচার, বুমরার মাঠে ফিরতে আরও প্রায় ছ’মাস

এক দিনের বিশ্বকাপের আগে বুমরার খেলার কোনও সম্ভাবনা নেই। এখন মাঠে নামলে বড় ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। ফলে প্রায় এক বছর মাঠের বাইরে থাকতে হবে ভারতের অন্যতম সেরা জোরে বোলারকে।

picture of Jasprit Bumrah

সেপ্টেম্বরের আগে মাঠে ফেরার সম্ভাবনা নেই বুমরার। ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০২ মার্চ ২০২৩ ১৪:৩২
Share: Save:

আইপিএল তো নয়ই, ভারত বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠলে সেই ম্যাচও খেলতে পারবেন না যশপ্রীত বুমরা। অন্তত আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তাঁকে থাকতে হবে মাঠের বাইরে। পিঠের চোটে দীর্ঘ দিন ভোগা জোরে বোলারকে অস্ত্রোপচার করানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নিউ জিল্যান্ডে হবে তাঁর অস্ত্রোপচার।

পাঁচ মাস ক্রিকেটের বাইরে বুমরা। আরও ২০ থেকে ২৪ সপ্তাহ তাঁকে মাঠের বাইরেই থাকতে হবে। ২৯ বছরের জোরে বোলারকে চোট মুক্ত করতে বিদেশে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। এক দিনের বিশ্বকাপের আগে তাঁকে সম্পূর্ণ সুস্থ করে তোলাই লক্ষ্য বোর্ড কর্তাদের। বোর্ডের মেডিক্যাল টিমের সদস্যরা এবং জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমি কর্তৃপক্ষ বুমরার পিঠের অস্ত্রোপচারের জন্য কিউয়ি অস্থিশল্য চিকিৎসক রোয়ান সাউটনকে চূড়ান্ত করেছেন। তিনি ইংল্যান্ডের জোরে বোলার জোফ্রা আর্চারকে চোট মুক্ত করেছেন। এক সময় শেন বন্ডেরও চিকিৎসা করেছিলেন। কয়েক দিনের মধ্যেই অকল্যান্ড পাঠানো হতে পারে বুমরাকে। চিকিৎসকরা প্রাথমিক ভাবে মনে করছে অস্ত্রোপচারের পর বুমরার মাঠে ফিরতে ২০ থেকে ২৪ সপ্তাহ সময় লাগবে। সে ক্ষেত্রে তাঁর মাঠে ফিরতে ফিরতে অন্তত সেপ্টেম্বর। গত ২৫ সেপ্টেম্বর ঘরের মাঠে শেষ বার জাতীয় দলের হয়ে খেলেছিলেন বুমরা। সেই অর্থে তাঁকে প্রায় এক বছর মাঠের বাইরে থাকতে হচ্ছে।

সম্প্রতি জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে কয়েকটি অনুশীলন ম্যাচে খেলানো হয় বুমরাকে। তিনি মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে আইপিএল বা বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলতে পারবেন কি না, তা দেখে নিতে ফিটনেস বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু বুমরার চোটের পরিস্থিতি দেখে তাঁরা খুশি নন। এই অবস্থায় মাঠে ফিরলে বড় ক্ষতি হতে পারে বলে মনে করছেন তাঁরা। বোর্ড কর্তারাও দেশের অন্যতম সেরা বোলারকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে চাইছেন না। বুমরাকে সম্পূর্ণ সুস্থ করে ২২ গজে ফেরাতে চান তাঁরা।

এর আগে একাধিক বার বুমরাকে জাতীয় দলে রাখা হলেও শেষ পর্যন্ত খেলতে পারেননি তিনি। যা নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে বোর্ড কর্তাদের। তেমন পরিস্থিতি আর তৈরি করতে চাইছেন না তাঁরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE