Advertisement
১৭ জুন ২০২৪
Indian Women Cricket team

বোনেরা পারলেও আটকে গেলেন দিদিরা, বিশ্বকাপের আট দিন আগে ধাক্কা খেলেন হরমনপ্রীতরা

দক্ষিণ আফ্রিকায় আয়োজিত ত্রিদেশীয় সিরিজ়ে চ্যাম্পিয়ন হতে পারলেন না হরমনপ্রীতরা। ফাইনালে হারতে হল আয়োজকদের কাছে। ফাইনালে ব্যাটিং ব্যর্থতাই ডোবাল ভারতীয় মহিলা দলকে।

picture of harmanpreet kaur

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ়ের ফাইনালে হার ভারতের মহিলা ক্রিকেট দলের। ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২১:২২
Share: Save:

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর আট দিন আগে আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নিতে পারল না ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দল। দক্ষিণ আফ্রিকায় আয়োজিত ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতার ফাইনালে ৫ উইকেটে হেরে গেলেন হরমনপ্রীত কৌররা। প্রথমে ব্যাট করে ভারত করে ৪ উইকেটে ১০৯ রান। জবাবে আয়োজকরা ৫ উইকেটে ১১৩ রান তুলল ১২ বল বাকি থাকতেই।

কয়েক দিন আগে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতেই মহিলাদের প্রথম অনূর্ধ্ব ১৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারত। শেফালি বর্মার দলের সফল্যের পর হরমনপ্রীতদের নিয়েও প্রত্যাশা বেড়ে গিয়েছিল ক্রিকেটপ্রেমীদের। কিন্তু সেই প্রত্য়াশা পূরণ করতে পারলেন না হরমনপ্রীতরা। বৃহস্পতিবারের ফাইনালে ব্যাটিং ব্যর্থতাই ডোবাল তাঁদের। ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে মহিলাদের ২০ ওভারের বিশ্বকাপ। তার আগে এই হার ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের মনোবলে ধাক্কা দিতে পারে।

টস জিতে প্রথম ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ভারতীয় দলের অধিনায়ক। প্রতিপক্ষের উপর বড় রানের বোঝা চাপিয়ে দেওয়াই ছিল হরমনপ্রীতদের লক্ষ্য। কিন্তু ২০ ওভারে ১০৯ রানের বেশি তুললে পারেননি ভারতীয় ব্যাটাররা। শুরুতেই আউট হয়ে যান ওপেনার স্মৃতি মন্ধনা (শূন্য)। তেমন রান পেলেন না আর এক ওপেনার জেমাইমা রড্রিগেজও (১১)। শুরুর এই ধাক্কাই বাকি ম্যাচে আর সামলাতে পারল না ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দল। ভারতীয় ইনিংসকে টানলেন মূলত তিন নম্বরে নামা হার্লিন দেওল। তাঁর ব্যাট থেকে এল ৫৬ বলে ৪৬ রানের ইনিংস। চারটি চার মারেন তিনি। চার নম্বরে নেমে অধিনায়ক হরমনপ্রীত দু’টি চারের সাহায্যে করলেন ২২ বলে ২১ রান। শেষ পর্যন্ত ২২ গজে ছিলেন দীপ্তি শর্মা (১৬) এবং পূজা বস্ত্রকার (১)। দক্ষিণ আফ্রিকার সফলতম বোলার ননকুলেকো ম্লাবা ১৬ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন।

জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংসের শুরুটাও ভাল হয়নি। মাত্র ২১ রানে ৩ উইকেট হারায় আয়োজকরা। দীপ্তি, স্নেহ রানারা প্রাথমিক ধাক্কা দিলেও লাভের লাভ কিছু হয়নি। জয়ের জন্য লক্ষ্য বড় না থাকায় চাপে ফেলা যায়নি দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটারদের। চার নম্বরে নেমে রান পাননি অধিনায়ক সুনে লুসও (১২)। তাঁকে আউট করেন রেনুকা সিংহ। আয়োজকদের প্রথম তিন ব্যাটার লরা উলভার্ডট (শূন্য), তাজ়মিন ব্রিটস (৮) এবং লারা গুডঅল (৭) দলের ইনিংসকে ভরসা দিতে পারেনি। তবু দক্ষিণ আফ্রিকার জয় পাওয়া কঠিন হল না পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নামা ক্লো ট্রায়নের অপরাজিত ৫৭ রানের আগ্রাসী ইনিংসের সুবাদে। ৩২ বলে ৫৭ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। মারলেন ছ’টি চার এবং দু’টি ছক্কা। তিনিই ফাইনালের সেরা ক্রিকেটার। ছয় নম্বরে নামা অ্যানেরি ডার্কসেন (৮) রান না পেলেও ২২ গজে ট্রায়নের সঙ্গে শেষ পর্যন্ত ছিলেন নাদিন ডি ক্লার্ক। তিনি ১৭ বলে ১৭ রান করেন।

ভারতের সফলতম বোলার স্নেহ ২১ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন। আইসিসির টি-টোয়েন্টি বোলারদের ক্রমতালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা দীপ্তি ১৯ রান দিয়ে ১ উইকেট নিয়েছেন। ১৬ রান দিয়ে ১ উইকেট রেনুকার। রাজেস্বরী গায়কোয়াড় ২৫ রান খরচ করে ১ উইকেট পেয়েছেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE