Advertisement
২৮ মে ২০২৪
Rohit Sharma

পশ্চিমবঙ্গ পুলিশে রোহিত শর্মা! বাইকচালকদের ‘হিরোগিরি’ আটকাতে তৎপর রাজ্য পুলিশ

হেলমেট ছাড়া বাইক চালাতে দেখা যায় অনেককেই। সেই সব ব্যক্তিদের সাবধান করতে অভিনব পদ্ধতি নিল পুলিশ। ভারত-ইংল্যান্ড টেস্টের একটি ঘটনার ভিডিয়ো ব্যবহার করল তারা।

Rohit Sharma

রোহিত শর্মা। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১১:৪৭
Share: Save:

হেলমেট না পরে বাইক চালানো অপরাধ। কিন্তু এমন কাজ অনেককেই করতে দেখা যায়। সেই সব বাইকচালকদের সাবধান করতে অভিনব পদ্ধতি নিল পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। ভারত-ইংল্যান্ড টেস্টের একটি ঘটনার ভিডিয়ো ব্যবহার করল তারা।

রাঁচীতে ছিল ভারত-ইংল্যান্ড চতুর্থ টেস্ট। সেই টেস্টে হেলমেট ছাড়াই ব্যাটারের সামনে সিলি পয়েন্টে ফিল্ডিং করতে গিয়েছিলেন সরফরাজ় খান। তাঁকে এমন ‘হিরোগিরি’ করতে নিষেধ করেন রোহিত শর্মা। হেলমেট পরতে বলেন ভারত অধিনায়ক। সেই ভিডিয়ো পোস্ট করে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ লেখে, “কোনও হিরোগিরি নয়।”

কী ঘটেছিল টেস্টে? রাঁচী টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা চলাকালীন সরফরাজ়ের উপরে রেগে গিয়েছিলেন রোহিত। সতীর্থকে নির্দেশ দিয়েছিলেন বেশি সাহস না দেখাতে। রবিবার এই ঘটনাটি ঘটেছিল। সরফরাজ় বাধ্য ছাত্রের মতোই রোহিতের কথা মেনে নিয়েছিলেন। ইংল্যান্ডের ইনিংসের শেষ দিকে সরফরাজ়‌কে ব্যাটারের কাছাকাছি ফিল্ডিং করার নির্দেশ দিয়েছিলেন রোহিত। সেই মতো সিলি পয়েন্টের কাছে ফিল্ডিং করতে আসেন সরফরাজ়‌। কিন্তু হেলমেট বা গার্ড ছাড়াই দাঁড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। সেটা দেখেই মেজাজ ঠিক রাখতে পারেননি রোহিত। সরফরাজ়‌ের উদ্দেশে বলে ওঠেন, “আরে ভাই, বেশি হিরো সাজতে যেয়ো না।” সরফরাজ় সঙ্গে সঙ্গে মেনে নেন তিনি ভুল করেছেন।

ব্যাটারের সামনে কোনও ফিল্ডার দাঁড়ালে সাধারণত হেলমেট এবং শিন প্যাড পরেই দাঁড়াতে দেখা যায়। না হলে বিপদ ঘটে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। রোহিতের নির্দেশ দেখে সরফরাজ় ছুটে যান ডাগআউটের দিকে। সেখানে হেলমেট হাতে দাঁড়িয়েছিলেন শ্রীকর ভরত। সরফরাজ় গিয়ে তাঁর হাত থেকে হেলমেট নিয়ে নির্দিষ্ট জায়গায় ফিল্ডিং করতে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

এর আগেও বিভিন্ন সময় খেলার ঘটনার উল্লেখ করে মানুষকে সাবধান করতে দেখা গিয়েছে পুলিশকে। বাংলাদেশ বনাম নিউ জ়িল্যান্ড ম্যাচে ‘অবস্ট্রাক্টিং দ্য ফিল্ড’ করে আউট হয়েছেন মুশফিকুর। হাত দিয়ে বল আটকে আউট হওয়ার ধরনকে উদাহরণ করে কলকাতা পুলিশ সমাজমাধ্যমে একটি পোস্ট করে লেখেন, “লিঙ্ক হোক বা বল ছুঁলেই গ্যাঁড়াকল”। অনেকেই মোবাইলে আসা কোনও লিঙ্কে ক্লিক করে ফেলেন। তাতে অনেক জালিয়াত ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তুলে নেয়। মানুষকে সাবধান করতে এই পোস্ট করেছিল কলকাতা পুলিশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE