Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

রিওয় ফের নারীশক্তির জয়

রুপো জিতে কথা রাখলেন অন্য দীপা

রিওতে ফের ইতিহাস ‘নারীশক্তির’। যা শুরু হয়েছিল অলিম্পিক্স থেকে। যা আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠল রিও প্যারালিম্পিক্সেও। ‘তিন কন্যা’ পিভি সিন্ধু, সাক্ষী

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০৪:০০
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

রিওতে ফের ইতিহাস ‘নারীশক্তির’।

যা শুরু হয়েছিল অলিম্পিক্স থেকে। যা আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠল রিও প্যারালিম্পিক্সেও।

‘তিন কন্যা’ পিভি সিন্ধু, সাক্ষী মালিক আর দীপা কর্মকার সদ্য শেষ হওয়া রিও অলিম্পিক্সে দেশের মান রেখেছেন। সিন্ধু রুপো আর সাক্ষী ব্রোঞ্জ জিতেছেন। দীপা কর্মকার পদক না পেলেও তাঁর চতুর্থ স্থানে শেষ করা পারফরম্যান্স ভারতীয় জিমন্যাস্টিক্সকে আলাদা প্রতিষ্ঠা দিয়েছে বিশ্বমঞ্চে।

Advertisement

সেই নারীশক্তির জয়ের ধারাই ধরে রাখলেন অন্য এক দীপা। রিও প্যারালিম্পিক্সে এফ ৫৩ শটপাটে রুপো জিতলেন ভারতের দীপা মালিক। ৪.৬১ মিটার স্কোর করে। মারিয়াপ্পান থঙ্গভেলুর সোনা আর বরুণ সিংহ ভাটির ব্রোঞ্জ জয়ের পর ভারতকে রিও প্যারিলিম্পিক্সে তৃতীয় পদক দিলেন ৪৫ বছর বয়সি দীপা। সঙ্গে প্রথম ভারতীয় মেয়ে হিসেবে প্যারালিম্পিক্সে পদক জেতার নজিরও গড়লেন তিনি।



অলিম্পিক্সে ভারতকে পদকের জন্য তাও সপ্তাহ দেড়েক হাহাকার করতে হয়েছিল। প্যারালিম্পিক্সে কিন্তু প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই তিনটে পদক হয়ে গেল ভারতের।

প্রতিবন্ধকতার সঙ্গে দীপার লড়াই চলছে প্রায় দু’দশক। প্যারাপ্লেজিক। কোমরের নীচ থেকে অসাড়। সতেরো বছর আগে স্পাইনাল টিউমার তাঁর হাঁটাচলা অসম্ভব করে দিয়েছিল। ৩১ বার তাঁর অস্ত্রোপচার হয়েছে। কিন্তু দীপাকে ‘অসম্ভব লড়াই’ চালিয়ে যাওয়া থেকে থামাতে পারেনি। সেনা অফিসারের স্ত্রী দীপাকে সামলাতে হয়েছে সব। সংসার, খেলাধুলোর সঙ্গে তাঁর দুই বাচ্চার দায়িত্বও।

শুধু শটপাট নয়, দীপা অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টসম্যান, সাঁতারু আবার জ্যাভলিন থ্রোয়ারও। রাজ্য আর জাতীয় স্তরে ৫৮টি পদক জয়ের পাশাপাশি ১৭টি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টেও দীপার পদক রয়েছে। জ্যাভলিন থ্রোয়ে ভেঙেছেন এশিয়ান রেকর্ড। তবে প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে খেলাধুলোর পাশাপাশি দীপার পছন্দের আরও নানা দিক রয়েছে। তিনি বাইক চালান, চ্যালেঞ্জ, অ্যাডভেঞ্চার ভালবাসেন। দীপা দেশের প্রথম প্রতিবন্ধী র‌্যালি রেসার যাঁর দেশের মোটর স্পোর্টস ফেডারেশনের লাইসেন্স রয়েছে। সঙ্গে ‘মোটিভেশনাল স্পিকার’ও। বিভিন্ন জায়গায় ছেলে-মেয়েদের উৎসাহ দেন, উদ্বুদ্ধ করেন তাঁর কথায়।

এ বার তাঁর পারফরম্যান্সেও দেশকে উদ্বুদ্ধ করলেন অর্জুন পুরস্কারজয়ী দীপা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর রুপোজয়ের খবর ছড়িয়ে পড়তেই শুভেচ্ছা, অভিনন্দনের বন্যায় সেটাই স্পষ্ট। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর টুইট, ‘‘ওয়েল ডান দীপা। প্যারালিম্পিক্সে তোমার রুপো জয় দেশকে গর্বিত করেছে। অনেক অভিনন্দন।’’ বেজিং অলিম্পিক্সে ভারতের সোনাজয়ী শ্যুটার অভিনব বিন্দ্রা টুইট করেন, ‘‘অনেক অনেক অভিনন্দন দীপা। তুমি দেশের প্রেরণা।’’ আর এক ভারতীয় শুটার হিনা সিধু আবার টুইট করেছেন, ‘‘আর একটা রুপো জিতল ভারত। দীপা মালিক। আশ্চর্য তাই না, আমাদের সাক্ষী মালিক আর দীপা কর্মাকার আছেন। এ বার আর এক নতুন চ্যাম্পিয়ন উঠে এলেন, দীপা মালিক!’’

রিও উড়ে যাওয়ার আগে একটি অনলাইন ম্যাগাজিনকে যা বলেছিলেন, তাতেই বোঝা যায় জেদ আর আত্মবিশ্বাস কতটা দীপার। ‘‘এই যে আমরা ১৮-১৯ জন প্যারাঅ্যাথলিট রিওতে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করব এ নিয়ে কোনও প্রচার নেই। তাই নেই স্পনসরও। এতে যদিও আমরা হতাশ হচ্ছি না। রিওতে আমাদের তারকারা যা জিতেছে তার থেকে বেশি পদক নিয়ে ফিরব আমরা। এই বিশ্বাসটা নিয়েই রওনা হচ্ছি।’’

কথা রাখলেন দীপা।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement