×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

ওয়াহাব সুস্থ না হলে অভিষেক নয়া আফ্রিদির

সুমিত ঘোষ
বার্মিংহাম০২ জুন ২০১৭ ০৫:৫৩
অস্ত্র: রবিবার পাক বোলিংয়ের ভরসা মহম্মদ আমির। ছবি: এএফপি

অস্ত্র: রবিবার পাক বোলিংয়ের ভরসা মহম্মদ আমির। ছবি: এএফপি

ভারতীয় সীমান্তের কাছাকাছি অবস্থিত কসুরের নতুন বিস্ময় তিনি। কেউ কেউ ডাকতে শুরু করেছে ‘নতুন আফ্রিদি’ হিসেবে। লাহৌর থেকে প্রায় ঘণ্টাখানেক দূরের শহর থেকে কেউ কখনও পাকিস্তানের হয়ে খেলেননি।

ফইম আশরাফ তাই ইতিহাসের সামনে দাঁড়িয়ে। যদি ৪ জুন বৃষ্টির আতঙ্ক কাটিয়ে বার্মিংহামের ভারত-পাকিস্তান ব্লকবাস্টার দ্বৈরথ হয় এবং ২৩ বছর বয়সি আশরাফ খেলেন, তা হলে ক্রিকেটবিশ্বের নজর থাকবে তাঁর উপর। আরও বেশি করে তিনি আলোচনায় উঠে এসেছেন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ঝোড়ো ব্যাটিং করার পরে। সেই প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের ৩৪২ তাড়া করতে নেমে পাকিস্তান নিশ্চিত হারের মুখে দাঁড়িয়ে ছিল। ২৪৯ রানে আট উইকেট চলে গিয়েছিল তাদের। সেখান থেকে অভাবনীয় জয় উপহার দেন আশরাফ। ৩০ বলে ৬৪ নট আউটের ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলেন তিনি। ইনিংসে ছিল চারটি চার ও চারটি ছক্কা।

ঘটনা হল, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আশরাফের ইনিংস হুল্লোড় তুলে দিলেও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ব্লকবাস্টারে নিশ্চিত নন তিনি। এখনই প্রথম দলে তাঁর জায়গা পাকা হচ্ছে না কারণ পাক টিম ম্যানেজমেন্টে অনেকে মনে করছেন, আশরাফকে আরও একটু সময় দেওয়া দরকার। এখনই তাঁকে ভারতের বিরুদ্ধে নামিয়ে দেওয়াটা বড় ঝুঁকি হয়ে যেতে পারে।

Advertisement

গত দু’দিন ধরে অবশ্য আশরাফের খেলার সম্ভাবনা কিছুটা হলেও উজ্জ্বল হতে শুরু করেছে। তার কারণ, দলের বাঁ হাতি পেসার ওয়াহাব রিয়াজের চোট। এজবাস্টনে গত কালের প্র্যাকটিসে বল করেননি ওয়াহাব। এ দিন দেখা গেল হাঁটুতে স্ট্র্যাপ লাগানো। বল করলেও রবিবারের মহারণের আগে সম্পূর্ণ ফিটনেস তিনি ফিরে পাবেন কি না, তা এখনও নিশ্চিত নয়। মাঝে এখনও দু’দিন সময় থাকছে। তার মধ্যে ওয়াহাবের হাঁটুর অবস্থার উন্নতি ঘটলে তিনিই খেলবেন।

আরও পড়ুন: ক্ষুব্ধ কোহালি নিজেই গেলেন প্রস্তুতির ভাল জায়গা খুঁজতে

পাকিস্তানের পেস বোলিং আক্রমণটাই এখন বাঁ হাতি নির্ভর। মহম্মদ আমির, জুনেইদ খান, ওয়াহাব রিয়াজ— তিন জনেই বাঁ হাতি। অন্য দিকে ভারতীয় দলে এই মুহূর্তে এক জনও  বাঁ হাতি পেসার নেই। মহম্মদ শামি, ভুবনেশ্বর কুমার, উমেশ যাদব, যশপ্রীত বুমরা— সকলেই ডান হাতি। রবিবারের ম্যাচ তাই বাঁ হাতি বনাম ডান হাতি পেসারদের দ্বৈরথও হয়ে উঠতে পারে। এবং, আগের মতো আর পাক পেস বোলিং মানেই ভারতের চেয়ে এগিয়ে, তা বলা যাবে না। এখন ওয়াঘার ও-পারে যেমন ওয়াসিম আক্রম-ওয়াকার ইউনিসরা নেই, তেমনই এ পারে কিন্তু এসে গিয়েছেন শামি, উমেশদের মতো গতিসম্পন্ন, সফল পেসাররা।

এর মধ্যেই কোথাও ইতিহাসের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকা ফইম আশরাফ। তারকা পূর্বসূরি শাহিদ আফ্রিদির মতো ডানহাতি ব্যাট আর লেগস্পিন নয়, আশরাফ বাঁ হাতে ব্যাট আর ডান হাতে মিডিয়াম পেস বল করেন। পাকিস্তানের বিখ্যাত গায়িকা নূর জাহানের শহর এখন তাদের প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারের উদয়ের অপেক্ষায়। ব্লকবাস্টার ম্যাচেই তাঁর অভিষেক ঘটবে কি না, নির্ভর করছে ওয়াহাবের চোট আর পাক টিম ম্যানেজমেন্ট ফাটকা খেলবে কি না, তার ওপর।



Tags:
Pakistan India Champions Trophyনতুন আফ্রিদিফইম আশরাফ Cricket Wahab Riaz

Advertisement