Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
ক্ষিপ্ত অ্যাসপ্রিয়ার বোমা

‘হামেসকে নষ্ট করছে রোনাল্ডো’

হামেস রদ্রিগেজকে ‘নষ্ট’ করে দিচ্ছেন কে? আর কেউ নন। ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো! কলম্বিয়া ফুটবলে ফাউনিস্তো অ্যাসপ্রিয়ার আলাদা একটা জায়গা আছে।

ফাউনিস্তো অ্যাসপ্রিয়া।

ফাউনিস্তো অ্যাসপ্রিয়া।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১৮ নভেম্বর ২০১৬ ০৩:১৩
Share: Save:

হামেস রদ্রিগেজকে ‘নষ্ট’ করে দিচ্ছেন কে?

Advertisement

আর কেউ নন। ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো!

কলম্বিয়া ফুটবলে ফাউনিস্তো অ্যাসপ্রিয়ার আলাদা একটা জায়গা আছে। কেউ কেউ তাঁকে কলম্বিয়া ফুটবলের কিংবদন্তিও মনে করেন। সেই অ্যাসপ্রিয়া এক মোক্ষম বোমা নিক্ষেপ করেছেন সিআর সেভেন নিয়ে। তাঁর মনে হচ্ছে, এই যে সতীর্থদের সঙ্গে হামেসের দূরত্ব তৈরি হয়ে গিয়েছে, তার পিছনে রোনাল্ডো! রিয়াল মাদ্রিদে রোনাল্ডোর থেকে যা শিখছেন হামেস, ম্যাচে ঠিক সেই কাজগুলো করে যাচ্ছেন। সতীর্থদের সঙ্গে যে ‘দুর্ব্যবহার’ রোনাল্ডো রিয়ালে করে থাকেন, দেশের জার্সিতে হামেসকে হুবহু সে সব করতে দেখা যাচ্ছে।

আর্জেন্তিনার কাছে বিশ্বকাপ যোগ্যতাঅর্জন পর্বের ম্যাচে তিন গোলে হারার পর মেজাজ হারিয়েছিলেন কলম্বিয়ার হামেস। যা নিয়ে বিরক্ত অ্যাসপ্রিয়া বৃহস্পতিবার বলে দেন, ‘‘হামেসকে আমি ভালবাসি, পছন্দও করি। কিন্তু মনে হচ্ছে, রোনাল্ডোর সঙ্গে মেশার প্রভাব ওর উপর পড়তে শুরু করেছে। ওকে নষ্ট করে দিচ্ছে। রিয়ালে সতীর্থদের থেকে বল না পেলে রোনাল্ডো যে ভাবে প্রকাশ্যে বিরক্তি দেখাতে থাকে, হামেসকেও দেখছি একই জিনিস করছে। খেলা শুরুর আগে দেখলাম, এক সতীর্থের উপর চিৎকার করল। বুঝতেই পারলাম না তার দোষটা কোথায়। সে পেস দেয়নি বলে এতটা বিরক্তি কি না, বুঝতে পারলাম না।’’

Advertisement

অ্যাসপ্রিয়া পরিষ্কার বলে দিচ্ছেন, হামেস এ রকম আগে ছিলেন না। এতটা উদ্ধত আগে তাঁকে কখনও লাগেনি। ‘‘একটা জিনিস হামেসকে বুঝতে হবে। ও বিপক্ষের সঙ্গে মাথা গরম করতে পারে, রেফারির সঙ্গেও পারে। ও সব হয়েই থাকে। কিন্তু তোমার সতীর্থদের সঙ্গে দুর্বব্যবহার তুমি করতে পারো না। হামেসকে মনে রাখতে হবে, এই কলম্বিয়া টিমটা ওকে অসম্ভব শ্রদ্ধা করে। এা প্রত্যেকে তরুণ যারা ওকে কিছু বলার সাহস পায় না,’’ বিরক্তি প্রকাশ করে ফেলেছেন অ্যাসপ্রিয়া। সঙ্গে আরও উষ্মা—‘‘অন্য কোনও কলম্বিয়া টিমে এ সব করলে তো চড়-থাপ্পড় খেয়ে যেত! অন্তত আমি যে টিমের হয়ে খেলেছি, তারা হামেসের এ সব কীর্তি বরদাস্ত করত না। তোমার টিমমেট বল পাস করেনি বলে তুমি তার সঙ্গে ঝামেলা বাঁধিয়ে দিচ্ছ, এটা অন্যায়। এ সব ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর থেকে শিখছে আসলে। যে সপ্তাহে একবার এ জিনিস করে থাকে!’’

পুরো অভিযোগটাই বেশ অভিনব। এত দিন রোনাল্ডো বিতর্কে থাকতেন নিজের কারণে। হালফিল পরিস্থিতি যা, তাতে অন্যের দায়ও এখন নিতে হচ্ছে রোনাল্ডোকে।

লাতিনের এক প্রতিশ্রতিমানকে নষ্ট করে দেওয়ার দায়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.