Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
Bayern Munich

Bayern Munich: ন’সেকেন্ড ১২ জনে খেলে বড় শাস্তির মুখে এই ফুটবল ক্লাব

ফ্রেইবুর্গের ফুটবলাররা রেফারির দৃষ্টি আকর্ষণ করলে খেলা থামিয়ে দেন তিনি। কিন্ত ততক্ষণে ফুটবলার পরিবর্তনের পর ৯ সেকেন্ড খেলা হয়ে গিয়েছে।

মাঠে বায়ার্নের কালো জার্সিতে ১১ জন ফুটবলার।

মাঠে বায়ার্নের কালো জার্সিতে ১১ জন ফুটবলার। ছবি: টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ এপ্রিল ২০২২ ১৯:৩৪
Share: Save:

বড় শাস্তি হতে পারে বায়ার্ন মিউনিখের। কারণ, বুন্দেশগিলার একটি ম্যাচে নয় সেকেন্ড ১২ জনে খেলেছে বায়ার্ন। ফুটবলার পরিবর্তন করার সময় ভুল বোঝাবুঝির জেরে এই ঘটনা ঘটলেও নিয়ম অনুযায়ী বায়ার্নের শাস্তি এড়ানো কঠিন।

বুন্দেশগিলায় বায়ার্নের খেলা ছিল ফ্রেইবুর্গের বিরুদ্ধে। ম্যাচটি ৪-১ ব্যবধানে জেতে বায়ার্ন। কিন্তু ফ্রেইবুর্গের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বড় শাস্তি হতে পারে।

ম্যাচের ৮৫ মিনিটে বায়ার্ন ম্যানেজার জুলিয়ান নাগেলসম্যান জোড়া পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেন। নিকলাস সুলে এবং মার্সেল সাবিটজারকে মাঠে নামানোর সিদ্ধান্ত নেন। কোরেনটিন টোলিসো চতুর্থ রেফারির বোর্ড দেখে মাঠ ছাড়লেও তা খেয়াল করেননি আরেক ফুটবলার কিঙ্গসলে কোম্যান। তিনি মাঠেই থেকে যান। অথচ পরিবর্ত দুই ফুটবলারই মাঠে নেমে যান।

বিষয়টি খেয়াল করেনি রেফারিরাও। ফ্রেইবুর্গের ফুটবলাররা রেফারির দৃষ্টি আকর্ষণ করলে খেলা থামিয়ে দেন তিনি। এর পর মাঠ ছাড়েন কিঙ্গসলে। কিন্তু ততক্ষণে ফুটবলার পরিবর্তনের পর ৯ সেকেন্ড খেলা হয়ে গিয়েছে। ফ্রেইবুর্গের ম্যানেজার বলেছেন, ‘‘এমন ঘটনা দেখিনি আগে। গোলরক্ষক ছাড়াও বায়ার্নের ১১ জন ফুটবলার মাঠে ছিল। আমরাই রেফারির দৃষ্টি আকর্ষণ করি।’’ পরে লিগ কর্তৃপক্ষের কাছে সরকারি ভাবেও অভিযোগ করেছে ফ্রেইবুর্গ।

খেলার রেফারি ক্রিস্টিয়ান ডিনগার্ট তাঁর রিপোর্টে ঘটনার কথা উল্লেখ করেছেন। তাঁর বক্তব্য, ‘‘এ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন।’’ এমন ঘটনা ঘটা উচিত হয়নি, মেনে নিয়েছেন রেফারি। এই ঘটনার জন্য বায়ার্নের কী শাস্তি হতে পারে তা নিয়ে মুখ খোলেনি কোনও পক্ষই।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE