Advertisement
০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
FIFA World Cup 2022

রেফারি শেমনই ভাবাচ্ছেন মেসিদের

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামার আগে অবশ্য ছোটখাটো কোনও ব্যাপার ধর্তব্যের মধ্যেই আনছেন না আর্জেন্টিনা দলের ডিরেক্টর সিজ়ার লুই মেনোত্তি।

মগ্ন: অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের প্রস্তুতির ফাঁকে মেসি। শুক্রবার। রয়টার্স

মগ্ন: অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের প্রস্তুতির ফাঁকে মেসি। শুক্রবার। রয়টার্স

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ ০৭:৪৬
Share: Save:

তিক্ত অভিজ্ঞতার রেফারি-কাঁটা। প্রাক্তনের প্রত্যাশার চাপ। ‘মেসিও মানুষ’ বলে দেওয়া বিপক্ষের চ্যালেঞ্জ। সব নিয়েই আজ নক-আউটের লড়াইয়ে মাঠে নামবেন লিয়োনেল মেসি।

Advertisement

পোল্যান্ডের সঙ্গে খেলায় পেনাল্টি মিস করেছিলেন মেসি। তবে আর্জেন্টিনা দুরন্ত খেলে জিতেছে। তার পরেই সমাজমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছিল বার্তা, ১৯৭৮ এবং ১৯৮৬-তে মারিয়ো কেম্পেস ও ডিয়েগো মারাদোনা বিশ্বকাপের তৃতীয় ম্যাচেই মিস করেছিলেন পেনাল্টি। দু’জনের হাতেই উঠেছিল বিশ্বকাপ। সেই ‘যোগে’ই কি এ বার মেসির পালা?

নক-আউট পর্বে আজ, শনিবার অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের আগে মেসি-ভক্তদের এমন ‘তুকতাকে’ জল ঢেকে দিতে হাজির অন্য তথ্য। ম্যাচ খেলানোর দায়িত্বে আছেন যে প্রধান রেফারি রয়েছেন, পোল্যান্ডের সেই শেমন মার্চিনিয়াক নাকি মেসির জন্য ‘অপয়া’! এর আগে তাঁর খেলানো একাধিক ম্যাচে তিক্ত স্মৃতি নিয়ে ম্যাচ ছাড়তে হয়েছে মেসিকে। ২০১৮-র রাশিয়া বিশ্বকাপের আর্জেন্টিনার প্রথম ম্যাচে এই মার্চিনিয়াকই ছিলেন রেফারি। দুর্বল প্রতিপক্ষ আইসল্যান্ডের বিরুদ্ধে কেবল ড্র করে মাঠ ছাড়াই নয়, সেই ম্যাচেও পেনাল্টি থেকে গোল করার সুযোগ হারিয়েছিলেন মেসি।

তবে কেবল দেশের হয়ে না, ৪১ বছরের মার্চিনিয়াকের খেলানো ক্লাবের ম্যাচেও তিক্ত স্মৃতি রয়েছে মেসির। পাঁচ বছর আগে চ্যাম্পিয়নস লিগের খেলায় প্যারিস সাঁ জরমঁর কাছে ৪-০ হারতে হয়েছিল বার্সেলোনাকে। মেসি তখন বার্সেলোনায়। নিজের এখনকার ক্লাবের কাছে সেই লজ্জাজনক হারের ম্যাচেও রেফারি ছিলেন মার্চিনিয়াক। আর্জেন্টিনা দলে আজ তাঁর পাশে যিনি খেলবেন সেই দি মারিয়াই দু’টি গোল করেছিলেন মেসিদের বিপক্ষে। ওই বছর লিগের ফিরতি খেলায় অবশ্য ঘরের মাঠে প্যারিস সাঁ জরমঁকে ৬-১ হারিয়ে প্রতিশোধ নেন মেসি, নেইমারেরা। তবে এতেই মেসির মার্চিনিয়াক-কাঁটার ইতি হয়নি। সেই চ্যাম্পিয়নস লিগেই জুভেন্তাসের কাছে ৩-০ পরাজয়ের ম্যাচে এই মার্চিনিয়াকই খেলিয়েছিলেন।

Advertisement

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামার আগে অবশ্য ছোটখাটো কোনও ব্যাপার ধর্তব্যের মধ্যেই আনছেন না আর্জেন্টিনা দলের ডিরেক্টর সিজ়ার লুই মেনোত্তি। আটাত্তরের বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা দলের কোচ গোদা ভাবে বলে দিচ্ছেন ফাইনাল খেলা ছাড়া আর কোনও কিছুই যথেষ্ট নয়। ম্যাচের আগে মেনোত্তি বলছেন, ‘‘আমাদের কাছে ফাইনাল ছাড়া আর কোনও কিছুই যথেষ্ট নয়। আর কী হল না হল তাতে কিছু যায় আসে না।’’তবে দলের খেলায় তিনি খুশি বলে জানিয়েছেন মেনোত্তি। তাঁর কথায়, ‘‘বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ সব সময়ই কঠিন। তবে পোল্যান্ড ম্যাচের পর দল ঐক্যবদ্ধ হয়েউঠেছে। প্রথম ম্যাচে হারা আর ফাইনালে হারা এক জিনিস নয়। আমরা কর্তৃত্ব নিয়ে খেলছি এবং সবচেয়ে কঠিন লড়াই এ বার আসছে। আশাবাদী হয়ে এগিয়ে যেতে হবে।’’

বর্তমানের তারকা মেসিকে নিয়েও মুখ খুলেছেন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তী। মেনোত্তি বলছেন, ‘‘মেসি লক্ষ্যে স্থির ও শান্ত। ওর ওপর একটা বোঝা রয়েছে যে ওকে ছিয়াশির মারাদোনা হতে হবে। এটা নিয়ে খেলা খুব কঠিন। তবে মেসি দাপটের সঙ্গেই তা করে চলেছে।’’

মেসির প্রশংসা শোনা গিয়েছে বিপক্ষের মুখেও। অস্ট্রেলিয়ার ডিফেন্ডার মিলোস ডেজেনেক ম্যাচের আগে সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়ে দিয়েছেন যে তিনি মেসির ভক্ত। তবে মেসিও যে মানুষ, তাও সোজাসাপ্টা বলে দিয়েছেন ডেজেনেক। তিনি বললেন, ‘‘মেসির বিরুদ্ধে খেলা সব সময় সম্মানের।আমি মেসিকে, মেসির খেলা ভালবাসি। কিন্তু আমি এটাও জানিয়ে দিতে চাই যেমেসিও মানুষ।’’ অস্ট্রেলিয়ার ডিফেন্স যাতে মেসি ভেদ করতে না পারেন তার প্রস্তুতিও যে তাঁরা নিয়েছেন তাও জানিয়েছেন ডেজেনেক। কী ভাবে তাঁরা মেসিকে আটকাতে চান তা ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ‘‘দলগত ভাবে খেলেইরুখতে হবে মেসিকে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.