Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
Indonesia

শোকার্ত রুনি থেকে এনরিকে

শনিবারের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন ওয়েন রুনি। প্রাক্তন ইংল্যান্ড তারকা জানিয়েছেন, এমন দুঃখজনক ঘটনার পরে কী বলবেন, তা বুঝতে পারছেন না।

মর্মান্তিক: ইন্দোনেশিয়ায় আহত দর্শককে উদ্ধারের মরিয়া চেষ্টা।

মর্মান্তিক: ইন্দোনেশিয়ায় আহত দর্শককে উদ্ধারের মরিয়া চেষ্টা। ছবি রয়টার্স।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ অক্টোবর ২০২২ ০৭:০৪
Share: Save:

ইন্দোনেশিয়ার স্টেডিয়ামে দাঙ্গার ঘটনা নিয়ে উত্তাল ফুটবলবিশ্ব। যে ঘটনায় উদ্বিগ্ন ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। তিনি জানিয়েছেন, ফুটবলের ইতিহাসে কালো দিন হয়ে থাকবে এই দিন।

Advertisement

এক বিবৃতিতে ইনফান্তিনো বলেছেন, “শনিবার ইন্দোনেশিয়ায় ম্যাচ শেষ হওয়ার পরে যে ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে, তাতে ফুটবলবিশ্ব শোকার্ত। যাঁরা এই ঘটনায় আক্রান্ত হয়েছেন, সেই সমস্ত সমর্থকদের দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠার জন্য সকলে প্রার্থনা করছি। ইন্দোনেশিয়ার মানুষদের সঙ্গেই রয়েছি।” ফিফার পক্ষ থেকে ইন্দোনেশিয়া ফুটবল সংস্থাকে গোটা ঘটনা নিয়ে রিপোর্ট পেশ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তারই সঙ্গে ইন্দোনেশিয়ার মানবাধিকার সংস্থা নিজেদের মতো করে তদন্ত করবে। বিশেষ করে, মাঠে উন্মত্ত জনতাকে ছত্রাখান করতে পুলিশের কাঁদানে গ্যাস ছোড়া নিয়ে। অনেকে মনে করছেন, পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছোড়ার পরে পরিস্থিতি আরও ভয়ঙ্কর হয়ে পড়ে এবং অবস্থা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।

স্মরণ: ইন্দোনেশিয়ার মালাংয়ে কাঞ্জুরুহান স্টেডিয়ামের বাইরে শোকজ্ঞাপন। রবিবার। রয়টার্স

স্মরণ: ইন্দোনেশিয়ার মালাংয়ে কাঞ্জুরুহান স্টেডিয়ামের বাইরে শোকজ্ঞাপন। রবিবার। রয়টার্স

প্রসঙ্গত শনিবার ইন্দোনেশিয়ার লিগে ম্যাচ ছিল আরেমা এবং পার্সিবায়া সুরাবায়ার। ম্যাচ শেষ হওয়ার পরে দুই দলের সমর্থকেরা জড়িয়ে পড়েন হাতাহাতিতে। মাঠে নেমে পড়েন আরেমা দলের সমর্থকেরা। তাঁদের সঙ্গে সঙ্ঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে পুলিশও। সরকারি ভাবে মৃতের সংখ্যা ১২৫ বলা হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও অনেক মানুষ।

Advertisement

শনিবারের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন ওয়েন রুনি। প্রাক্তন ইংল্যান্ড তারকা জানিয়েছেন, এমন দুঃখজনক ঘটনার পরে কী বলবেন, তা বুঝতে পারছেন না। গণমাধ্যমে তিনি লিখেছেন, “এমন একটা ঘটনা শোনার পরে মন একেবারে ভেঙে পড়েছে। এর চেয়ে দুঃখজনক ঘটনা আর কিছু হতে পারে না। যাঁরা এই ঘটনায় প্রাণ হারালেন এবং যাঁরা আহত হয়েছেন, তাঁদের পরিবারের প্রতি রইল সমবেদনা।”

শোক জানিয়ে বিবৃতি প্রকাশ করেছে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনও। রবিবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলির পক্ষ থেকেও ইন্দোনেশিয়ার ঘটনার জন্য শোক প্রকাশ করা হয়েছে।

স্পেন জাতীয় দলের কোচ লুইস এনরিকে বলেছেন, “এমন মর্মান্তিক ঘটনা শোনার পরে বাক্যহারা হয়ে গিয়েছি। যাঁরা প্রাণ হারিয়েছেন, তাঁদের পরিবারের প্রতি জানাই সমবেদনা। এবং সকলকে একটাই বার্তা দিতে চাই, জীবনের চেয়ে বড় কিছু হতে পারে না।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.