Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে বিখ্যাত নীরজই হয়তো হতে চলেছেন দুর্নীতি দমন প্রধান

দিল্লি পুলিশ ২০১৩-র আইপিএল স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারি ফাঁস করেছিল যাঁর নেতৃত্বে, সেই প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার নীরজ কুমারকে দূর্নীতি দমন বিভাগের শ

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৭ এপ্রিল ২০১৫ ০৩:১৪
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

দিল্লি পুলিশ ২০১৩-র আইপিএল স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারি ফাঁস করেছিল যাঁর নেতৃত্বে, সেই প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার নীরজ কুমারকে দূর্নীতি দমন বিভাগের শীর্ষে বসাতে চলেছে বিসিসিআই। আগামী সপ্তাহে কলকাতায় বোর্ডের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্তে সিলমোহর লাগানো হতে পারে। নীরজ কুমারের নেতৃত্বেই দিল্লি পুলিশ আইপিএল ৬-এ স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে শ্রীসন্থ, অঙ্কিত চহ্বন ও অজিত চান্ডিলাকে গ্রেফতার করা হয়। এক সাংবাদিক বৈঠক ডেকে রীতিমতো ভিডিও ক্লিপিংস দেখিয়ে প্রমাণ করার চেষ্টা হয়েছিল কী ভাবে ফিক্সিং চক্রের নির্দেশে অভিযুক্ত ক্রিকেটাররা গড়াপেটায় যুক্ত ছিলেন। ফিক্সিং কেলেঙ্কারির এই জট ছাড়ানোর জন্য পরে দেশের সর্বোচ্চ আদালত তদন্ত কমিশন গড়ার নির্দেশ দেয় এবং অভিযোগ ওঠে, খোদ নারায়ণস্বামী শ্রীনিবাসনের কোম্পানি ইন্ডিয়া সিমেন্টসের মালিকানাধীন চেন্নাই সুপার কিংসের অন্যতম কর্ণধার ও শ্রীনির জামাই গুরুনাথ মইয়াপন্নের বিরুদ্ধে। অভিযোগ ওঠে শ্রীনি তা জেনেও জামাইকে বাধা দেননি। সেই তদন্ত প্রক্রিয়া অবশ্য এখনও চলছে।

ডালমিয়া প্রেসিডেন্টের আসনে বসার পরই এখন নিয়ে আসতে চলেছেন সেই দুঁদে আইপিএস-কে। এ দিন এক প্রভাবশালী বোর্ডকর্তা সংবাদসংস্থাকে বলেছেন, ‘‘আইপিএল স্পট ফিক্সিং তদন্ত উনি দারুণ ভাবে সামলেছিলেন এবং আইপিএস হিসেবে উনি যথেষ্ট অভিজ্ঞ বলেই নিরজ কুমারকে এই পদে নিয়ে আসা হচ্ছে। রবি সাওয়ানির জায়গায় তাঁকেই আনা হবে। যার সরকারি সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে রবিবার ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে।’’ কয়েক দিন আগেই বোর্ড প্রেসিডেন্ট জগমোহন ডালমিয়া জানিয়েছিলেন উচ্চ স্তরের তদন্তে নেতৃত্ব দেওয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে, এমন কোনও বিশেষজ্ঞকে দুর্নীতি দমন বিভাগের শীর্ষে আনতে চান। এ বার সেই পরিকল্পনাতেই সিলমোহর লাগতে চলেছে।

Advertisement


Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement