×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৬ জুন ২০২১ ই-পেপার

নয়া চ্যাম্পিয়ন ইংরেজদের ছন্দে পা মেলাল কলকাতা

সুচরিতা সেন চৌধুরী
২৮ অক্টোবর ২০১৭ ২৩:১৭
ইংল্যান্ডর উচ্ছ্বাস। ছবি ফিফার সৌজন্যে।

ইংল্যান্ডর উচ্ছ্বাস। ছবি ফিফার সৌজন্যে।

মাঠের মাঝে তখনও ছড়িয়ে রয়েছে নানা রঙের চকচকে কাগজের টুকরো। কিছুক্ষণ আগেই তো ওই মঞ্চে চলছিল ফোডেন, ব্রিউস্টারদের জয়োৎসব। মঞ্চ ছাড়লেও মাঠ ছাড়ল না ইংল্যান্ড। চলল চক্করের পর চক্কর।

আরও পড়ুন

দু’গোলের খোঁচা খেয়ে স্পেনকে পাঁচ গোলে ওড়াল ইংল্যান্ড

Advertisement

হেরেও চ্যাম্পিয়ন ভারত, দর্শকে বিশ্বরেকর্ড

গ্যালারির সামনে গিয়ে শুভেচ্ছা নিল পুরো দল। আর জয়ের সঙ্গে সঙ্গে বদলে গেল গ্যালারিও। যে যুবভারতীর গ্যালারি এই ইংল্যান্ডের কাছে ব্রাজিলের হারের পর মুহূর্তেই খালি হয়ে গিয়েছিল সেই গ্যালারিই আজ মাতল ইংল্যান্ডের উৎসবে। এমন ফুটবলে না মেতে কি পারা যায়? সেই স্পিরিটই দেখাল কলকাতা তথা বাংলা। আর সেই উৎসবে গা ভাসাল পুরো ইংল্যান্ড দল। এই যুবভারতী ছেড়ে যেতেই চাইছিল না ইংল্যান্ড। কখনও গ্যালারি তো কখনও ভলেন্টিয়ারদের সঙ্গে সেলফি আবার কখনও নিজেদের সেই চেনা নাচ। সব সেরে পুরো দল আবার ফিরে গেল সেই মঞ্চে। এই প্রথম বিশ্বকাপ জয় অনূর্ধ্ব-১৭ দলের। এটাই তো সেই মঞ্চ যা লেখা থাকল ভারতের মাটিতে।



গ্যালারির শুভেচ্ছা নিচ্ছে ফোডেন। ছবি ফিফার সৌজন্যে।

ম্যাচ শেষ হতেই হতাশ স্পেন যেন থমকে গেল কয়েক মিনিট। ইতস্তত ছড়িয়ে ছিটিয়ে মাঠের মধ্যেই গুম হয়ে থাকল। হার তো হারই। লড়াইটা শুরু করেও শেষ করা হল না। স্পেনের চেনা ছন্দ দ্বিতীয়ার্ধে ধুয়ে মুছে সাফ করে দিল ইংল্যান্ড। হারিয়ে গেল স্পেনের পাস-পাস-পাস। যেখানে জয় হল ইংল্যান্ডের ডাইরেক্ট ফুটবলের। ম্যাচ শেষে বিশ্বকাপ ট্রফি মাঠে নিয়ে এলেন ভারতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী। মঞ্চ আলো করে তখন হাজির পশ্চিমবঙ্গেল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এআইএফএফ-এর প্রেসিডেন্ট প্রফুল পটেল, কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী রাজ্যবর্ধন রাঠৌর, ফিফা প্রেসিডেন্ট ইনফান্তিনোসহ আরও অনেকে।

একে একে মঞ্চে ডেকে নেওয়া হল তৃতীয় ব্রাজিল, দ্বিতীয় স্পেন ও চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে। সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার উঠল জোড়া হ্যাটট্রিকের নায়ক রিয়ান ব্রিউস্টারের হাতে। টুর্নামেন্টে আট গোল করলেন তিনি। বাড়ি ফিরলেন সোনার বুট নিয়ে। টুর্নামেন্টের সেরা ফুটবলার হয়ে সোনার বল নিয়ে ফিরল ইংল্যান্ডেরই ফোডেন। ম্যাচ শেষের পরের এক ঘণ্টা যুবভারতীতে রাজ করল ইংল্যান্ড দল। একঝাঁক ১৭র ছেলে আগাম বার্তা দিয়ে দিল বিশ্ব ফুটবলে সাম্রাজ্য বিস্তারের। যার উত্থান হল এই শহর থেকেই। এখান থেকেই ইংল্যান্ড লিখল নতুন ইতিহাস।

এই টুর্নামেন্ট থেকে যা যা এল

প্রথমত, ৫২ ম্যাচে হল ১৮৩টি গোল। যেটা নতুন অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ রেকর্ড। এর আগের রেকর্ড ছিল ২০১৩তে ইউএই বিশ্বকাপে ১৭২ গোল।

দ্বিতীয়ত, দর্শকের বিচারে সবাইকে ছাপিয়ে গেল ভারত। এখনও পর্যন্ত অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ সব থেকে বেশি দর্শক দেখল ভারতের মাটিতে।

তৃতীয়ত, গোল্ডেন বুট পেল ইংল্যান্ডের ব্রিউস্টার, গোল্ডেন বল পেল ইংল্যান্ডেরই ফোডেন, গোল্ডেন গ্লাভস পেল ব্রাজিলের ব্রাজাও ও ফেয়ার প্লে পুরস্কার পেল ব্রাজিল।

Advertisement