Advertisement
০৮ ডিসেম্বর ২০২২

নিজেদের শহরে ফিরেই জয়ের সরণিতে রবিনরা

পুণে সিটি দল তুলে দেওয়ায় এই মরসুমেই আইএসএলে অভিষেক ঘটিয়েছে হায়দরাবাদ। কিন্তু শুরু থেকেই বিপর্যয় সঙ্গী নিজ়ামের শহরের দলের।

উৎসব: হায়দরাবাদকে সমতায় ফিরিয়ে মার্কো স্টানকোভিচ। আইএসএল

উৎসব: হায়দরাবাদকে সমতায় ফিরিয়ে মার্কো স্টানকোভিচ। আইএসএল

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৩ নভেম্বর ২০১৯ ০৪:০৩
Share: Save:

শাপমুক্ত হায়দরাবাদ এফসি। ঘরের মাঠে অভিষেক ম্যাচে কেরল ব্লাস্টার্সকে হারিয়ে প্রথম জয় পেলেন রবিন সিংহেরা।

Advertisement

পুণে সিটি দল তুলে দেওয়ায় এই মরসুমেই আইএসএলে অভিষেক ঘটিয়েছে হায়দরাবাদ। কিন্তু শুরু থেকেই বিপর্যয় সঙ্গী নিজ়ামের শহরের দলের। প্রথম ম্যাচে যুবভারতীতে এটিকে ৫-০ চূর্ণ করে হায়দরাবাদকে। দ্বিতীয় ম্যাচে ১-৩ হার জামশেদপুর এফসি-র কাছ। এ দিন ঘরের মাঠে প্রথম নেমেছিলেন রবিন সিংহেরা। তাঁদের উজ্জীবিত করতে মাঠে ছিলেন হায়দরাবাদ এফসি-র অন্যতম অংশীদার ও অভিনেতা রানা দাগ্গুবাটি। কিন্তু ম্যাচের ৩৪ মিনিটেই অন্ধকার নেমে আসে পি ভি সিন্ধু, সাইনা নেহওয়াল, মহম্মদ আজহারউদ্দিন, সানিয়া মির্জা, মহম্মদ হাবিবের শহরের দলের শিবিরে। গোল করে কেরলকে এগিয়ে দেন রাহুল কে পি।

কেরল কোচ এলকো সাতৌরি এ দিন প্রথম একাদশে সাহাল আব্দুল সামাদ ও রাহুলকে ফেরাতেই বদলে গিয়েছিল কেরল। ভারতীয় ফুটবলের দুই প্রতিশ্রুতিমান ফুটবলারের দাপটে একেবারেই স্বস্তিতে ছিলেন না হায়দরাবাদের ফুটবলারেরা। তবে অভিনেতা রানা দাগ্গুবাটি আত্মবিশ্বাসী ছিলেন ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যাপারে। হায়দরাবাদে প্রথম আইএসএলের ম্যাচের বিরতিতে সম্প্রচারকারী চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলছিলেন, ‘‘হায়দরাবাদে প্রথম আইএসএলের ম্যাচ হচ্ছে। খেলা তো সবে শুরু হয়েছে। এখনও অনেক সময় বাকি। শেষের ছবিটা কিন্তু অন্য রকম হবে।’’

তারকা অভিনেতার ভবিষ্যদ্বাণী মিলে গেল। দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচ শুরু হওয়ার ন’মিনিটের মধ্যে পেনাল্টি থেকে গোল করে সমতা ফেরান মার্কো স্তাঙ্কোভিচ। আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়ানোর লক্ষ্যে ৭৪ মিনিটে গোলদাতা রাহুলকে তুলে হোলিচরণ নার্জারিকে নামান এলকো। ফল হল উল্টো। চাপ বাড়াতে শুরু করে হায়দরাবাদ। ৮১ মিনিটে প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে অসাধারণ ফ্রি-কিকে গোল করে হায়দরাবাদকে এগিয়ে দেন মার্সেলো লেইতে পেরেইরা।

Advertisement

কেরলকে হারিয়ে দুরন্ত প্রত্যাবর্তন শুধু নয়, লিগ টেবলের ছবিটাও শনিবার রাতে বদলে দিল হায়দরাবাদ এফসি। তিন ম্যাচ ছ’পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষ স্থান এখনও এটিকের দখলে। দ্বিতীয়, তৃতীয় স্থানে যথাক্রমে জামশেদপুর এফসি ও এফসি গোয়া। এই জয়ের ফলে তিন ম্যাচে তিন পয়েন্ট নিয়ে বেঙ্গালুরু এফসি-কে টপকে আট নম্বরে উঠে এল হায়দরাবাদ। পয়েন্ট সমান হলেও গোল পার্থক্যে এগিয়ে থাকায় সপ্তম স্থানে কেরল। ন’নম্বরে নেমে গেলেন সুনীলেরা। সবার শেষে চেন্নাইয়িন এফসি।

হারদরাবাদের পরের ম্যাচে ঘরের মাঠেই নর্থইস্ট ইউনাইটেড এফসি-র বিরুদ্ধে ৬ নভেম্বর। কেরলও নিজেদের মাঠে খেলবে ওড়িশা এফসি-র বিরুদ্ধে ৮ নভেম্বর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.