×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

রাহুলকে বিতর্কে জড়াতে দেখে অবাক হয়েছিলেন প্রীতি

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৬ এপ্রিল ২০১৯ ০৩:২২
সহমর্মী: রাহুলের পাশে প্রীতি।

সহমর্মী: রাহুলের পাশে প্রীতি।

ভারতের ব্যাটসম্যান কে এল রাহুল ‘‘মেয়েদের খুব সম্মান করে’’। চ্যাট শো-এ রাহুল এবং হার্দিক পাণ্ড্যর মন্তব্য নিয়ে যে ভাবে দেশ জুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছিল সেটা দেখে খারাপ লেগেছে তাঁর। শুক্রবার বললেন কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের মালকিন প্রীতি জিন্টা। এই বিতর্কের জেরে রাহুল এবং হার্দিককে নির্বাসিত করা হয়েছিল। পরে অবশ্য তাদের নির্বাসন উঠে যায়। তবে এখনও ভারতীয় বোর্ডের তদন্ত চলছে এই ব্যাপারে।

প্রীতি বলেন, ‘‘রাহুলকে আইপিএলে ছন্দে ফিরতে দেখে দারুণ লাগছে। মানুষ হিসেবেও রাহুল ভীষণ ভাল। অতীতে যা হয়েছে সেটা খারাপ লেগেছে আমার। ও মেয়েদের খুব সম্মান করে। তাই জানি না কী ভাবে এ সব ঘটে গেল। তবে মানুষ তো এ ভাবেই শিক্ষা নেয়।’’ বলিউডের নায়িকা হিসেবে অর্থ এবং খ্যাতি কী ভাবে সামলাতে হয় প্রীতি সেটা জানেন এবং তাঁর দলের তরুণ ক্রিকেটারদের সঙ্গে সেই অভিজ্ঞতাও তিনি ভাগ করে নেন। তিনি বলেন, ‘‘আমাদের এই নিয়ে আলোচনা হয়। জীবনে ভুল না করলে কখনও শিক্ষা নেওয়া যায় না।’’

কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের ড্রেসিংরুমে সবচেয়ে মজার মানুষ কে জানতে চাইলে বলিউড তারকা বলেন, ‘‘আমার সবচেয়ে পছন্দের ক্রিস গেল। যে ভাবে ও চলে, যে ভাবে খেলে, দলের তরুণদের সঙ্গে যে ভাবে মেশে, ও সত্যিকারের এক জন সুপার স্টার। ভীষণ বিনয়ী। সময় মেনে চলে। একই সঙ্গে মজার মানুষও।’’ পাশাপাশি তিনি বলেন তাঁর দলের লক্ষ্য এখন আইপিএল ট্রফি জয়। ‘‘আমি ট্রফিটা জিততে চাই। বিশেষ করে আমাদের পঞ্জাবের সমর্থকদের জন্য। যেখানকার মানুষদের মন খুব বড়। আমাদের সমর্থকদের এটা পাওনা। আশা করি এ বার আমরা ট্রফিটা জিতব।’’

Advertisement

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

মন্থর পিচ নিয়ে ক্ষুব্ধ পন্টিং : টানা তিন ম্যাচে হার! বৃহস্পতিবার রাতে ফিরোজ় শাহ কোটলায় দিল্লি ক্যাপিটালসকে পাঁচ উইকেটে হারিয়ে গেল সানরাইজার্স হায়দরাবাদও। স্বভাবতই মেজাজ খুবই খারাপ ছিল দিল্লির প্রধান কোচ রিকি পন্টিংয়ের। তবে আইপিএলে তিন নম্বর হারের জন্য দল বা কোনও ক্রিকেটারকে নয়, প্রাক্তন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক কাঠগড়ায় তুললেন কোটলার পিচকে। আরও নির্দিষ্ট করে বললে, পিচ প্রস্তুতকারককে। রাখঢাক না করে তিনি বলে দিলেন, ঘরের দল নয়, কোটলার পিচ আসলে সাহায্য করেছে বিপক্ষ দল সানরাইজার্সকে।

ক্ষিপ্ত পন্টিংয়ের সাফ কথা, ‘‘এখানকার উইকেট দেখে সত্যিই আমরা সবাই চমকে গেলাম। অথচ ম্যাচ শুরুর আগে মাঠের কর্মীরা বলেছিল ঠিক উল্টো।’’

Advertisement