×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মে ২০২১ ই-পেপার

খেলা

দ্বাদশচক্রে আইপিএল

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৪:৩৪
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ। ভাবনা ললিত মোদীর। ভিত ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। ২০০৮ সালে শুরু হয়ে বিনোদন এবং ক্রিকেটের মিশেলে এই টি-২০ টুর্নামেন্ট রমরম করে চলেছে ১২ বছর। এবার ত্রয়োদশ বর্ষ। অতিমারির আবহেও বন্ধ হয়নি বিশ্বের অন্যতম ধনাঢ্য এই লিগ। ১৯ সেপ্টেম্বর মরুশহরে প্রথম বল পড়ার আগে আনন্দবাজার ডিজিটাল ফিরে দেখল তাদের বিচারে অতীতের  ১২ বছরের ১২টি সেরা ঝলক। সঙ্গে আরও কিছু প্রাসঙ্গিক ঘটনাপ্রবাহ।

ফাইনালে চেন্নাইকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন শেন ওয়ার্নের রাজস্থান। জন্মলগ্ন থেকেই এই লিগের সঙ্গী বিতর্ক। শ্বেতাঙ্গ না হওয়ায় দুই চিয়ারলিডারকে মোহালিতে ঢুকতে না দেওয়া। পঞ্জাব-মুম্বই ম্যাচে সপাটে শ্রীসন্থকে চড় মেরে বাকি টুর্নামেন্ট থেকে বহিষ্কৃত হরভজন।
Advertisement
লোকসভা ভোটের জন্য ভারত ছেড়ে টুর্নামেন্ট গেল দক্ষিণ আফ্রিকায়। কলকাতার কোচ জন বুকাননের ‘মাল্টিপল ক্যাপ্টেন্সি’ তত্ত্ব মানতে নারাজ হলেন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। শেষে ম্যাকালামের নেতৃত্বে খেলল কলকাতা। শেষ করল সকলের শেষে। সাড়া ফেলেছিল ‘ফেক আইপিএল প্লেয়ার’ ব্লগ। অনুমান, কলকাতা শিবিরের নানা নেতিবাচক খবর দিয়ে সেটি লিখছিলেন তাদেরই কোনও ক্রিকেটার।

কলকাতার কোচের পদ থেকে অপসারণ বুকাননের। পূর্ণ দায়িত্ব অধিনায়ক পদে ফেরা সৌরভকে। কিন্তু টিম মালিক শাহরুখের সঙ্গে খুচখাচ সঙ্ঘাত চলতেই থাকল তাঁর। যার পরিণতিতে নিজের শহরের টিম থেকেই বিদায় নিতে হবে জিওফ্রে বয়কটের ‘প্রিন্স অব কালকুটা’-কে।
Advertisement
দলের সংখ্যা ৮ থেকে বেড়ে হল ১০। নতুন দল পুণে ও কোচি। কোচির অবশ্য সেটাই প্রথম ও শেষ আইপিএল। ব্যাঙ্ক গ্যারান্টি দিতে না পারায় দলটাই বাদ পড়ে। চুক্তিতে নিয়মভঙ্গের অভিযোগে এক বছরের জন্য নির্বাসিত হন রবীন্দ্র জাডেজা। দক্ষিণ আফ্রিকার চিয়ারলিডার গ্যাব্রিয়েলা পাসকোয়ালোট্টো আলোড়ন ফেলেন ম্যাচ-শেষে পার্টিতে ক্রিকেটারদের আচরণ নিয়ে ব্লগ লিখে। আইপিএল তাঁকে সরিয়ে দেয়।

গম্ভীরের নেতৃত্বে কলকাতা প্রথম বার চ্যাম্পিয়ন। পুণের রাহুল শর্মা এবং ওয়েন পার্নেল ধরা পড়েন রেভ পার্টিতে। ড্রাগ টেস্টে পজিটিভ আসে দু’জনের। তবে তাঁদের ছেড়েও দেওয়া হয়। এক মার্কিন মহিলার শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার হন ব্যাঙ্গালোরের ব্যাটসম্যান লুক পোমার্সবাখ। পরে অভিযোগ তুলে নেওয়া হয়।

টাইটেল স্পনসর হিসেবে ‘পেপসিকো’-র আগমন। ২০০৯ সালের চ্যাম্পিয়ন ডেকান চার্জার্স লুপ্ত হয়ে জন্ম সানরাইজার্স হায়দরাবাদের। স্পট-ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে রাজস্থানের শ্রীসন্থ, অঙ্কিত চহ্বন ও অজিত চাণ্ডিলা গ্রেফতার এবং চিরনির্বাসিত। বোর্ডের সঙ্গে মতানৈক্যে পুণে দল তুলে নিল সাহারা অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টস লিমিটেড। কলকাতা-ব্যাঙ্গালোর ম্যাচে কোহালি-গম্ভীর কথা-কাটাকাটি। চেন্নাইকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন মুম্বই। প্রথম বার অধিনায়ক হয়েই ট্রফি রোহিত শর্মার।

আবার দেশে লোকসভা ভোট। ফলে টুর্নামেন্টের যুগ্ম আয়োজক ভারত এবং আমিরশাহি। প্রথম ২০টি ম্যাচ মরুশহরে। বাকিগুলি ভারতে। কলকাতা-রাজস্থান ম্যাচ যায় সুপার ওভারে। কলকাতা করে ১১ রান। রাজস্থানও করে ১১। নিয়ম অনুযায়ী বেশি বাউন্ডারি মারায় ম্যাচ জেতে রাজস্থান। পঞ্জাব শিবিরে ব্যক্তিগত ডামাডোল। নেস ওয়াদিয়ার বিরুদ্ধে শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগ বান্ধবী প্রীতি জিন্টার। কালক্রমে শেষই হয়ে যায় দু’জনের সম্পর্ক।

মুম্বই-ব্যাঙ্গালোর ম্যাচে মালিঙ্গার সামনে টলমলে গেলকে বিদ্রুপ করেন পোলার্ড। আম্পায়ার সতর্ক করার পর পোলার্ড টেপ দিয়ে মুখ বেঁধে ফেলেন। বৃষ্টি-বিরতিতে খেলোয়াড়দের জন্য নির্দিষ্ট সীমানা ভেঙে তৎকালীন বান্ধবী অনুষ্কার সঙ্গে দেখা করেন কোহালি। তাঁকে অবশ্য হুঁশিয়ারি দিয়েই ছেড়ে দেওয়া হয়।

টাইটেল স্পনসর হিসেবে আসে ভিভো। ব্যাঙ্গালোরকে হারিয়ে খেতাব জেতে হায়দরাবাদ। প্রথম বার এলইডি আলো লাগানো স্টাম্প ব্যবহার করা হয়। স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে নির্বাসিত চেন্নাই ও রাজস্থানের জায়গায় আসে গুজরাত ও পুণে। পুণে অধিনায়ক ধোনির জন্য ইডেনে টেস্ট ম্যাচের ফিল্ডিং সাজিয়েছিলেন কলকাতার অধিনায়ক গম্ভীর। হায়দরাবাদ-মুম্বই ম্যাচের পর সচিনের পা ছুঁয়ে প্রণাম করেন যুবরাজ সিংহ। শিবিরের গোলমালে পঞ্জাব টিম ছেড়ে মাঝপথে চলে যান শন মার্শ।

পুণেকে ১ রানে হারিয়ে তৃতীয় বার আইপিএল খেতাব জেতে মুম্বই। ব্যাঙ্গালোর-মুম্বই ম্যাচে স্যামুয়েল বদ্রির হ্যাটট্রিকে ভেঙে পড়ে মুম্বইয়ের ব্যাটিং। সে দিনই অন্য ম্যাচে গুজরাতের অ্যান্ড্রু টাই হ্যাটট্রিক করেন পুণের বিরুদ্ধে।

২ বছরের নির্বাসন কাটিয়ে প্রত্যাবর্তন চেন্নাই এবং রাজস্থানের। ফিরেই চ্যাম্পিয়ন ধোনির চেন্নাই। তৃতীয় বার। মাঝপথে দিল্লির দায়িত্ব ছাড়েন গম্ভীর। তাঁর পরামর্শে শ্রেয়স আইয়ারকে ক্যাপ্টেন করে দিল্লি। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ৬০ বলে ৯৪ রান করে লোকেশ রাহুল জেতেন স্টাইলিশ প্লেয়ারের সম্মান। ড্রেসিংরুমে ফেরার পথে ট্রফিটি এক ভক্তের দিকে ছুড়ে দেন তিনি।

শ্বাসরোধকারী ফাইনালে মুম্বই ১ রানে চেন্নাইকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। পন্টিং ও সৌরভের কোচিংয়ে সকলকে চমকে দিয়ে দিল্লি তিন নম্বরে টুর্নামেন্ট শেষ করে। সুপার ওভারে কলকাতাকে হারায় দিল্লি। রাজস্থানের বিরুদ্ধে ম্যাচে মেজাজ হারান ‘ক্যাপ্টেন কুল’ ধোনি। ম্যাচ ফি-র ৫০ শতাংশ জরিমানা দিতে হয় তাঁকে।

প্রশাসক হিসেবে মসৃণ ভাবে মরুশহরে আইপিএল পরিচালনা করার চ্যালেঞ্জের মুখে বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। গোলাপি বলে দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচ সফল ভাবে আয়োজন করায় তাঁর থেকে প্রত্যাশা বেড়েছে ক্রিকেটজনতার।

এখনও পর্যন্ত কোন কোন বছরে কারা চ্যাম্পিয়ন। দেখে নিন একঝলকে।

আইপিএলের ৮টি টিমের দর গত ১২ বছরে কতটা বেড়েছে।

আইপিএলের টাইটেল স্পনসরশিপ কতটা বেড়েছে গত ১২ বছরে। 
(গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ। তথ্য: জয়দীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌরাংশু দেবনাথ ও কৃশানু মজুমদার)