×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

রাসেল, কার্তিকের ম্যাচ জেতানোর মানসিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন বীরেন্দ্র সহবাগ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৪ এপ্রিল ২০২১ ১৯:৩৬
রাসেল, কার্তিকের মানসিকতায় বিরক্ত বীরেন্দ্র সহবাগ।

রাসেল, কার্তিকের মানসিকতায় বিরক্ত বীরেন্দ্র সহবাগ।
ফাইল চিত্র

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ১০ রানে লজ্জাজনক হারের পর আন্দ্রে রাসেলদীনেশ কার্তিকের মানসিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন বীরেন্দ্র সহবাগ। তবে এখানে ক্ষান্ত না থেকে টুইটারে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে কটাক্ষ করে বসলেন বীরু। নাইটদের উদ্দেশে শ্লেষ করা দুটো টুইট এখন বেশ ভাইরাল।

১৫২ রান তাড়া করতে গিয়ে ৭ উইকেটে ১৪২ রানে থেমে যায় কেকেআর। রাহুল চাহার ২৭ রানে ৪ উইকেট নিলেও একটা সময় পর্যন্ত নাইটদের হাতে ম্যাচ ছিল। ২৭ বলে দরকার ছিল ৩০ রান। হাতে ছিল ৭ উইকেট। যদিও রাসেল ও কার্তিক ক্রিজে থাকলেও দলকে জেতাতে ব্যর্থ হয়েছেন। দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানের এমন কাণ্ডকারখানা দেখে বিস্মিত বীরু।

দুই ব্যাটসম্যানের দিকে আঙুল তুলে বীরু বললেন, “ম্যাচের আগে অইন মর্গ্যান বলছিল তার দল ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে খেলবে। এটা ইতিবাচক ক্রিকেটের নমুনা! রাসেল ও কার্তিককে দেখে একবারও মনে হয়নি যে ওরা দলকে জেতাতে পারবে। লজ্জাজনক হার বললেও কম বলা হয়।”

Advertisement



গত ম্যাচে রাসেল শেষ ওভারে ১৫ বলে ৯ রান করে ফিরলেন। কার্তিক শেষ পর্যন্ত ৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। খেললেন ১১ বল। তাঁদের এমন ভঙ্গুর ব্যাটিং দেখে ক্ষোভ চেপে রাখতে পারেননি বীরু। সটান বলে দিলেন, “আমার মনে হয় মর্গ্যান ও শাকিব খারাপ শট খেলে আউট হয়ে যাওয়ার পরেও ওরা দুজন ভেবেছিল মুম্বইকে হেলায় হারিয়ে দেবে। রাসেল যখন ক্রিজে গেল তখন ওদের জেতার জন্য ২৭ বলে ৩০ রান দরকার। কার্তিক শেষ পর্যন্ত ছিল। এরপরেও হারতে হল! এটাকে লজ্জাজনক হার ছাড়া আর কি বা বলা যায়।” একইসঙ্গে তিনি কটাক্ষের সঙ্গে যোগ করেন, “কম রান তাড়া করতে নামলে সব দল দ্রুত খেলা শেষ করতে চায়। এতে তাদের রান রেট বেড়ে যায়। এটাই ক্রিকেটের স্বাভাবিক নিয়ম। কিন্তু কেকেআর একমাত্র দল যারা রান রেট নিয়ে একদম চিন্তা করে না।”

Advertisement