Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

মুম্বইয়ে নাইটদের ম্যাচ মাঠে নেই বাদশা

যন্ত্রণাটা নিশ্চয়ই তাঁকে এখনও বিদ্ধ করে। দু’বছর আগেই তাঁর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠে গিয়েছে। কিন্তু সেই যন্ত্রণার রাতটা সম্ভবত তিনি এখনও ভুলতে

কৌশিক দাশ
মুম্বই ০৯ এপ্রিল ২০১৭ ০৪:১৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
সংশয়: ওয়াংখেড়েতে নেই শাহরুখ। ছবি:  বিসিসিআই

সংশয়: ওয়াংখেড়েতে নেই শাহরুখ। ছবি: বিসিসিআই

Popup Close

যন্ত্রণাটা নিশ্চয়ই তাঁকে এখনও বিদ্ধ করে।

দু’বছর আগেই তাঁর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠে গিয়েছে। কিন্তু সেই যন্ত্রণার রাতটা সম্ভবত তিনি এখনও ভুলতে পারেননি।

আর ভুলতে পারেননি বলেই ওয়াংখেড়ে থেকে নিজেকে এখনও দূরে সরিয়ে রাখেন শাহরুখ খান!

Advertisement

মাত্র ২৪ ঘণ্টার তফাত। রাজকোটে গুজরাত ম্যাচ আর ওয়াংখেড়ে মুম্বই ম্যাচের মধ্যে। দশম আইপিএলের প্রথম ম্যাচে তাঁর টিমের দুরন্ত জয় রাজকোটের ভিআইপি গ্যালারিতে বসে দেখেছেন শাহরুখ। টিমের সঙ্গে মু্ম্বইও এসেছেন। আজ, রবিবার ওয়াংখেড়েতে তাঁর নাইটরা নামবেন মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে। সবাই ধরে নিয়েছিল কিংগ খান তাঁর ঘরের মাঠে থাকবেন!

কিন্তু সেটা ঘটছে না। শাহরুখ খান ওয়াংখেড়েতে কেকেআরের ম্যাচ দেখতে আসবেন না। এমনকী, তিনি দেশেই থাকছেন না। কেকেআরের এক সূত্র জানাচ্ছে, রবিবারই বিদেশ চলে যাচ্ছেন শাহরুখ। ফলে তাঁর মাঠে থাকা হচ্ছে না। টিমের তরফে কেউ কেউ এও বলছেন, এটা তো আগে থেকেই ঠিক করা ছিল। শাহরুখ এখন কী করবেন? ঠিক কথা। কিন্তু এ প্রশ্নটাও উঠছে যে, আইপিএল সূচিও তো অনেক আগে থেকে ঠিক করা ছিল। তা হলে এক দিনের জন্য কি বিদেশ যাত্রা পিছিয়ে দেওয়া যেত না?

এখানেই আবার ঘুরে ফিরে আসছে সেই যন্ত্রণার কাহিনি। যেখানে ওয়াংখেড়ের এক নিরাপত্তারক্ষীর সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ার পর শাহরুখের পাঁচ বছর মাঠে ঢোকা বন্ধ করে দিয়েছিল মুম্বই ক্রিকেট সংস্থা। যে নিষেধাজ্ঞা দু’বছর আগে উঠে গেলেও শাহরুখ আর কখনও ওয়াখেড়ে-মুখো হননি।

আরও পড়ুন: তাণ্ডবের পরে আইপিএলে ‘লিন্মাদোনা’

শাহরুখের যন্ত্রণার কাহিনিটা সম্ভবত শুধু ওয়াংখেড়ের জন্যই। রাজকোটে শুক্রবারের রাতটা কিন্তু ছিল আনন্দ আর উৎসবের। হোটেলে ফিরে শাহরুখ বলে দেন, ‘‘আমার কাজটাই হল ক্রিকেটারদের আনন্দ দেওয়া। ওরা যখন জেতে, তখন আমি দারুণ খুশি থাকি। ওরা যখন হারে, তখনও আমি খুশি থাকি। ওই যে বললাম, আমার কাজটাই হল টিমের ক্রিকেটারদের খুশি রাখা।’’

তা আনন্দের যে কমতি ছিল না জয়ের রাতে, সেটা কেকেআর শিবিরে খোঁজখবর নিয়ে জানা যাচ্ছে। ম্যাচের দুই নায়ক— কুলদীপ যাদব এবং ক্রিস লিনকে দিয়ে কেক কাটানো হয়। দু’জনেই পালিয়ে বাঁচতে চাইলেন কেক কাটতে গিয়ে। প্রথমে কেকটা কুলদীপ কাটেন। এর পর লিন কেকটা কাটার সঙ্গে সঙ্গে সতীর্থরা তাঁর মুখে তো বটেই, চকচকে টাক মাথাতেও মাফিয়ে দিলেন কেক।

নাইটদের পোস্ট করা ভিডিওতে টিম নিয়ে শাহরুখের বক্তব্য, ‘‘ছেলেরা ভাল ছন্দে আছে। ক্রিস লিন, গৌতম গম্ভীর— সবাই। চেঞ্জিংরুমে ওদের দেখলেই সেটা বোঝা যায়। আমি শুধু ওদের খেলা দেখতে চাই আর ম্যাচ জিতলে যেটা সবচেয়ে ভাল করতে পারি, সেটা করতে চাই। পার্টি করা আর কী!’’

ওয়াংখেড়েতে ম্যাচ জিতলেও কিন্তু পার্টি করার জন্য শাহরুখ খানকে পাবে না নাইটরা!

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement