Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
IPL 2024

‘ভয়াবহ’! অধিনায়ক হার্দিককে দেখলেই ভয় পেয়ে যাচ্ছেন গাওস্কর, পাণ্ড্যকে তুলোধনা সানির

মহেন্দ্র সিংহ ধোনির তিন বলে তিন ছক্কার প্রশংসা করছিলেন সঞ্চালক মায়ান্তি ল্যাঙ্গার। কিন্তু তাঁকে প্রায় থামিয়ে দিয়ে হার্দিক পাণ্ড্যের উপর ক্ষোভ উগরে দিলেন সুনীল গাওস্কর। তাঁর সঙ্গী হলেন কেভিন পিটারসেনও।

Hardik Pandya

হার্দিক পাণ্ড্য। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ২১:৫৭
Share: Save:

চেন্নাই সুপার কিংসের ইনিংস তখন সবে শেষ হয়েছে। সম্প্রচারকারী সংস্থা মাঠ থেকে ক্যামেরা ফিরিয়েছে স্টুডিয়োতে। মহেন্দ্র সিংহ ধোনির তিন বলে তিন ছক্কার প্রশংসা করছিলেন সঞ্চালক মায়ান্তি ল্যাঙ্গার। কিন্তু তাঁকে প্রায় থামিয়ে দিয়ে হার্দিক পাণ্ড্যের উপর ক্ষোভ উগরে দিলেন সুনীল গাওস্কর। তাঁর সঙ্গী হলেন কেভিন পিটারসেনও।

খেলা হচ্ছে ওয়াংখেড়েতে। কিন্তু চিৎকার শুনে মনে হবে ম্যাচ হচ্ছে চিপকে। পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। পাঁচ বার আইপিএল জিতেছে চেন্নাই সুপার কিংসও। সেই দুই দলের লড়াইয়ে প্রথমে ব্যাট করে চেন্নাই তুলল ২০৬ রান। শেষ ওভারে বল করতে এসে হার্দিক দিলেন ২৬ রান। যা সহ্য হচ্ছে না মুম্বইবাসী গাওস্করের। তিনি বলেন, “ভয়াবহ বোলিং। ভয়াবহ নেতৃত্ব। হাতে একাধিক বোলার থাকতেও নিজে বল করতে এল। ধোনি অপেক্ষা করছিল ওর পায়ের কাছে বল আসার। সেটাই করল হার্দিক। ছক্কা মারতে দিল। খুব সাধারণ মানের বোলিং এটা। ততটাই সাধারণ নেতৃত্ব।”

গাওস্কর গড় গড় করে বলে চলেছেন। তিনি যে কতটা বিরক্ত সেটা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল। তিনি বলতেই থাকেন, “শ্রেয়স গোপাল মাত্র এক ওভার বল করল। কেন? ও তো বোলার। তাকে দিয়ে আমি মাত্র এক ওভার করাব? এটা নেতৃত্ব! আগের ম্যাচে যে (যশপ্রীত) বুমরা এত ভাল বল করল, তাকে নতুন বলটাই দিল না। এটাকে নেতৃত্ব বলে না।”

গাওস্কর একটু থামতেই পিটারসেন বলতে শুরু করলেন। ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক বলেন, “কিচ্ছু ঠিক নেই। হার্দিককে টসের সময় দেখছিলাম খুব হাসছে। কিন্তু ও ঠিক নেই। আমি বলছি ও ঠিক নেই। এটা মুম্বইয়ের ঘরের মাঠ। সেখানে ওকে টিটকিরি দেওয়া হচ্ছে। এখানে গোটা মাঠ চেন্নাইয়ের জন্য চিৎকার করছে। এটা মেনে নেওয়া কঠিন। ও তো মানুষ। ওর আবেগ আছে। আমি জানি এমন পরিস্থিতিতে কেমন লাগে। গাওস্করও জানেন। মায়ান্তিও জানে। এটা মেনে নেওয়া কঠিন। সেটার প্রভাব পড়ছে হার্দিকের উপর।”

ধোনির সঙ্গে হার্দিকের তুলনা করেন পিটারসেন। তিনি বলেন, “একটা দলের অধিনায়ক পাঁচ বছর আগে থেকে পরিকল্পনা করছে পরবর্তী অধিনায়ক কে হবে। আর এ দিকে হার্দিকের কাছে এই ম্যাচের জন্য দ্বিতীয় কোনও পরিকল্পনা নেই। ও বুঝতেই পারছে না কী করবে।”

গাওস্কর এবং পিটারসেন যে ভাবে হার্দিকের সমালোচনা করছিলেন, তাতে কিছুটা রাশ টানেন মায়ান্তি। তিনি বলেন, “ম্যাচ এখনও বাকি আছে। রান তাড়া করা বাকি আছে।” কিছুটা ঠান্ডা হন গাওস্কর এবং পিটারসেন। তাঁরা সায় দেন। তার পরেও পিটারসেন বলেন, “অবশ্যই ম্যাচ এখনও বাকি আছে। তবে ২০০ রান হওয়া উচিত হয়নি।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE