×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

জয় অধরাই কিবুর কেরলের, জামশেদপুরের বিরুদ্ধে নাটকীয় ড্র ওডিশার

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা৩০ নভেম্বর ২০২০ ০৫:৫৭
প্রথম ম্যাচে জামশেদপুরের বিরুদ্ধে দু’গোল করে ওডিশাকে নিশ্চিত হারের মুখ থেকে বাঁচালেন মরিসিও। ছবি: আইএসএল।

প্রথম ম্যাচে জামশেদপুরের বিরুদ্ধে দু’গোল করে ওডিশাকে নিশ্চিত হারের মুখ থেকে বাঁচালেন মরিসিও। ছবি: আইএসএল।

রবিবার ছিল এ বারের ইন্ডিয়ান সুপার লিগে প্রথম জোড়া ম্যাচ। কিন্তু, কোনও ম্যাচেরই ফয়সালা হল না। বিকেলের ম্যাচে জামশেদপুরের বিরুদ্ধে ২-২ ড্র করল ওডিশা। আর সন্ধের ম্যাচে চেন্নাইয়িন ও কেরল ব্লাস্টার্সের খেলা গোলশূন্য ভাবে শেষ হল।

গোয়ার ব্যাম্বোলিমে চেন্নাইয়িন ও কেরলের ম্যাচ চিহ্নিত হচ্ছিল দক্ষিণের ডার্বি হিসেবে। শুরুতে অনেক বেশি আক্রমণাত্মক দেখাচ্ছিল চেন্নাইয়িনকে। কিন্তু কিবু ভিকুনার কেরল ব্লাস্টার্স প্রথমার্ধের মাঝামাঝি সময় থেকে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল। তবে গোলমুখ খোলা যায়নি।

দ্বিতীয়ার্ধের ৭৪ মিনিটে পেনাল্টি পেয়েছিল চেন্নাইয়িন। কিন্তু সিলভেস্ত্রের শট বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে আটকে দেন কেরল গোলরক্ষক আলবিনো গোমেজ। তিনিই ম্যাচের সেরা হন। ড্রয়ের ফলে ৩ ম্যাচে কেরলের হল ২ পয়েন্ট। কিন্তু এখনও জয়ের মুখ দেখল না কিবুর দল। 

Advertisement


আরও পড়ুন: সচিনের রেকর্ড ভেঙে দ্রুততম ২২ হাজার কোহালির​ 

আরও পড়ুন: সিরিজ হারের মাঠেই নাটক, গ্যালারিতে অজি বান্ধবীকে প্রোপোজ ভারতীয় সমর্থকের​

অন্য দিকে, তিলক ময়দানে দিনের প্রথম ম্যাচে শেষ মুহূর্তে নাটকীয় ভাবে ২-২ ড্র করেছিল ওডিশা এফসি। প্রথমার্ধে নেরিজাস ভালস্কিসের দুই গোল জামশেদপুরকে ২-০ এগিয়ে দিয়েছিল। দ্বিতীয়ার্ধে পরিবর্ত হিসেবে নামা দিয়েগো মরিসিও ওডিশার হয়ে ছিনিয়ে আনলেন ১ পয়েন্ট। প্রথমে ৭৭ মিনিটে ব্যবধান কমালেন তিনি। তার পর ইনজুরি টাইমের তৃতীয় মিনিটে জোরালো শটে ২-২ করেন। জামশেদপুর অবশ্য অনেক আগেই ১০ জনে পরিণত হয়েছিল। ৭৪ মিনিটে বক্সের বাইরে বলে হাত দেওয়ায় লাল কার্ড দেখে বেরিয়ে গিয়েছিলেন গোলরক্ষক রেহনেশ।



Advertisement