×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

হেরেও হাবাস বলছেন ফিরে আসা সম্ভব

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১২ জানুয়ারি ২০২১ ০০:৩৯
মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে হারলেও হতাশ নন হাবাস। ছবি : আইএসএল

মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে হারলেও হতাশ নন হাবাস। ছবি : আইএসএল

চলতি আইএসএলে দ্বিতীয়বার হারের মুখ দেখল এটিকে মোহনবাগান। এরমধ্যে আবার চোট পেলেন দলের ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার কার্ল ম্যাকহিউ। মনে করা হচ্ছে এক সপ্তাহের আগে তাঁর মাঠে ফেরা সম্ভব নয়। গত ৭ ডিসেম্বর শেষবার হেরেছিলেন রয় কৃষ্ণ, প্রীতম কোটালরা। সেবার জোড়া গোল করে জয়ের নায়ক হয়েছিলেন জামশেদপুর এফসি-র নেরিউস ভাল্সকিস। আর এবার আন্তোনিও লোপেজ হাবাসের ডিফেন্সকে বুঝে নিলেন ওগবেচে।

ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত স্প্যানিশ কোচকে টেক্কা দিয়ে গেলেন বিপক্ষের সার্জিও লোবেরা। ফলে ফতোরদা স্টেডিয়ামে ১-০ গোলে হেরে গেল সবুজ-মেরুন বাহিনী। আর এই জয়ের পর ১০ ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান ধরে রাখল মুম্বই। অন্যদিকে ১০ ম্যাচে ২০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবলের দ্বিতীয় স্থানেই আপাতত রয়ে গেল এটিকে মোহনবাগান। তবে এই ম্যাচ হারলেও গেল গেল রব তুলতে রাজি নন দুবারের আইএসএল জয়ী কোচ।

শীর্ষে যাওয়ার ম্যাচে গোল হাতছাড়া করলে এক পয়েন্ট ঝুলিতে ভরাও কঠিন! এটিকে মোহনবাগানের ক্ষেত্রেও তেমনটাই হল। সেই সুযোগে দুরন্ত পারফরম্যান্স করলেন লোবেরোর ছেলেরা। যদিও ম্যাচের শেষে ভার্চুয়াল সাংবাদিক সম্মেলনে হাবাস বলেন, "দুটো দলই সমান। ওরা সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপাবে এটাই তো স্বাভাবিক। তবে প্রথমার্ধে আমাদের আরও আক্রমণাত্মক খেলা উচিত ছিল।সেখানেই আমরা একটু পিছিয়ে যাই। কিন্তু আমরা মাত্র দুটি ম্যাচ হেরেছি। তাই গেল গেল রব তোলার কিছু নেই।"

Advertisement

আরও পড়ুন: মুম্বইয়ের কাছে হেরে পিছিয়ে পড়ল এটিকে মোহনবাগান

গত ম্যাচে নর্থ ইস্ট ইউনাইটেডকে হারিয়ে চনমনে মেজাজেই মাঠে নেমেছিল সবুজ-মেরুন শিবির। দলে তিনটে বদল ঘটান হাবাস। কার্ল ম্যাকহিউর বদলে চোট সারিয়ে ফেরেন জেভিয়ার হার্নান্ডেজ। শেখ শাহিলের বদলে নামেন গ্লেন মার্টিন্স এবং প্রবীর দাসের বদলে শুরু করেন মনবীর সিংহ। প্রথমার্ধে দু’দলই একে অপরকে টেক্কা দেয়। কিন্তু শুরুতেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েও তা নষ্ট করে এটিকে মোহনবাগান। বলা ভাল এদিন রয় কৃষ্ণ নিজের মেজাজে খেলতে পারেননি। তাঁকে কড়া মার্কিংয়ে রাখেন মুম্বইয়ের ডিফেন্ডাররা। ফলে মোহনবাগানের আক্রমণ ভাগে ধার কমতে থাকে। প্রথমার্ধ গোলশূন্য থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধের ৬৯ মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন ওগবেচে।

তবে মোহনবাগানের কাছে সমতা ফেরানোর সুযোগ এসেছিল। ফ্রি-কিক থেকে দুর্দান্ত শট নিয়েছিলেন এডু গার্সিয়া। অমরিন্দর তাঁর শট রুখে দেন। এর কিছুক্ষণ পর গার্সিয়ার একটি শট বারে লেগে বেরিয়ে যায়। ডেভিড উইলিয়ামসও প্রায় নিশ্চিত গোল হাতছাড়া করেন। প্রথমার্ধের কিছু ভুলের জন্য যে পয়েন্ট মাঠে ফেলে আসতে হল সেটা মেনে নিলেন এডু। বললেন, "দ্বিতীয়ার্ধে আমরা একাধিক সুযোগ তৈরি করেছিলাম। কিন্তু প্রথমার্ধে করা কিছু ভুলের খেসারত পয়েন্ট হারিয়ে দিতে হল। আসলে এক একটা দিন এমন হয়। তবে চিন্তার কারণ নেই। আমরা ঠিক ফিরে আসব।"

আরও পড়ুন: স্বস্তিতে ফাওলার, দ্বিতীয় পর্বে লাল-হলুদের ভাবনায় ২০ পয়েন্ট

Advertisement