Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

৩০ জুন ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

আসতে পারেন সিমিওনে

চার অধিনায়ক বাছল কলকাতা

নাইট রাইডার্সের প্রাক্তন কোচ জন বুকানন আমদানি করেছিলেন থিওরিটা। তাঁর দেখানো রাস্তায় এ বার হাঁটতে শুরু করলেন অ্যান্টনিও লোপেজ হাবাস। বুকাননের

নিজস্ব সংবাদদাতা
২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০৩:২১
Save
Something isn't right! Please refresh.
টিম আটলেটিকো দে কলকাতা। রবিবার। -নিজস্ব চিত্র

টিম আটলেটিকো দে কলকাতা। রবিবার। -নিজস্ব চিত্র

Popup Close

নাইট রাইডার্সের প্রাক্তন কোচ জন বুকানন আমদানি করেছিলেন থিওরিটা। তাঁর দেখানো রাস্তায় এ বার হাঁটতে শুরু করলেন অ্যান্টনিও লোপেজ হাবাস।

বুকাননের থিওরি ছিল ‘মাল্টিপল ক্যাপ্টেন’। অনেকটা সেই থিওরি মেনে রোটেশনাল প্রথায় অ্যাটলেটিকো দে কলকাতার অধিনায়ক বাছার নিয়ম চালু করছেন স্প্যানিশ কোচ। রবিবার সল্টলেকের টিম হোটেলে রীতিমতো সাংবাদিক সম্মেলন করে লোপেজ বলে দিলেন, “আমার টিমে চার জন অধিনায়ক। লুই গার্সিয়া, বোরহা ফার্নান্দেজ, সঞ্জু প্রধান এবং শুভাশিস রায়চৌধুরী। ঘুরিয়ে ফিরিয়ে সবাইকে অধিনায়ক করা হবে।”

স্পেন থেকে এক মাসের ট্রেনিং শেষে শনিবার-ই ফিরেছেন গার্সিয়া-অর্ণবরা। এ দিন সরকারি ভাবে পুরো টিমের আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে কলকাতার কোচ হাবাস বললেন, “স্পেন প্রতিদিন আমার আটলেটিকো কোচ সিমিওনের সঙ্গে কথা হত। একমাসের অনুশীলনে ছেলেরা কঠিন পরিশ্রম করেছে। সবাই একজোট হয়ে থেকেছে।” টিম সূত্রের খবর, কলকাতা টিম সেমিফাইনাল বা ফাইনালে উঠলে সিমিওনে আসতে পারেন খেলা দেখতে। আজ থেকেই কলকাতায় অনুশীলন শুরু করে দিচ্ছে হাবাস ব্রিগেড। সঞ্জু-অর্ণব-লোবোরা যুবভারতীর কৃত্রিম ঘাসের সঙ্গে সড়গড় হলেও গার্সিয়ারা এ দিন থেকেই নামবেন এই টার্ফে। আই এস এল যে আটটি মাঠে খেলা হবে তার মধ্যে যুবভারতীতেই একমাত্র কৃত্রিম ঘাস আছে। অনেকেই মনে করছেন এতে সমস্যায় পড়বে কলকাতার বিদেশিরা। দলের ম্যানেজার রজত ঘোষদস্তিদার অবশ্য বললেন, “এটাই কলকাতার টিমকে সুবিধা করে দেবে। কারণ আমরা সব হোম ম্যাচ খেলব তো এখানেই।” জানা গিয়েছে, ফুটবলারদের ফিটনেস ঠিক রাখার জন্য মাদ্রিদ থেকে যন্ত্রপাতি নিয়ে এসেছেন আটলেটিকোর লোকজন।

Advertisement

এ দিন সাংবাদিক সম্মেলনে টিমের মালিকরা ছাড়াও হাজির ছিলেন টিম ম্যানেজমেন্টের সবাই। সেখানেই টিমের অন্যতম মালিক সৌরভ বললেন, “প্রথম মরসুমে কিছু ভুল ত্রুটি হতেই পারে। কিন্তু এটুকু বলতেই পারি আমাদের টিম হৃদয় দিয়ে ফুটবল খেলবে।” লুই গার্সিয়া-সহ ফুটবলারদের সঙ্গে ফটো শু্যটেও অংশ নেন সৌরভ। আমরোকে কিট স্পনসর ঘোষণা করা হয়। সহকারী কোচ হোসে ব্যারেটোর পাশে বসে দুই ভারতীয় ফুটবলার শুভাশিস রায়চৌধুরী এবং ডেঞ্জিল ফ্রাঙ্কোরা মাদ্রিদে তাঁদের এক মাসের ট্রেনিংয়ের অভিজ্ঞতার কথা বলেন। শুভাশিস বললেন, “এমন কিছু শিখে এসেছি যা এত দিন ভারতে খেলেও শিখিনি।” আর ডেঞ্জিল বললেন, “মাদ্রিদের অভিজ্ঞতার কথা ভুলতে পারব না। অনেক কিছু শিখে এসেছি।” এখন দেখার, লুই গার্সিয়াদের সঙ্গে নেমে শুভাশিস-ডেঞ্জিল-সঞ্জুরা কী করেন?

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement